জুলাই ৭, ২০১৭
সাতক্ষীরায় পৃথক দুটি বাড়ি থেকে ৭৬টি গোখরা সাপ ও ৫০টি ডিম উদ্ধার

ক্রাইমবার্তা রিপোট:17  সাতক্ষীরায় পৃথক দুটি বাড়ি থেকে ৭৬টি গোখরা সাপ ও ৫০টি ডিম উদ্ধার করা হয়েছে। গত বুধবার সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ও আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের দুটি বাড়ি থেকে এ সাপ গুলো উদ্ধার করা হয়।

স্থনীয়রা জানান, গত বুধবার রাত ১২টার দিকে সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের বালুই গাছা গ্রামের কৃষক মো: ছাত্তার খন্দকারের বাড়ি থেকে ৫৬টি গোখরা সাপ ও ৫০টি ডিম উদ্ধার করা হয়।16

রাতে ছাত্তারের মায়ের হাতের উপর একটি গোখরা সাপ ওঠে। পরে তারা সে সাপটিকে মেরে ফেলে। সকালে তার ছেলে মো: ইসমাইল (১৬) ঘরের মেঝেতে আরো একটি সাপ দেখতে পায় এবং সেটিও তারা মেরে ফেলে। পরে সেখানে একজন সাপুড়িকে আনা হলে তিনি তার পিতা ঘেরের মেঝের মাটি খুড়তে খুড়তে একাধারে ৫৬টি গোখরা সাপ এবং ৫০টি ডিম উদ্ধার করেন। বর্তমানে বাড়িটির চারপাশে জাল দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ছাত্তার খান্দকারের ছেলে ইসমাইল জানান, এতগুলো সাপ আমাদের বাড়িতে অথচ আমরা জানতাম না। সাপ গুলো আমাদের পরিবারের কাউকে কোনো ক্ষতি করিনি। বর্তমানে পরিবারসহ এলাকাবাসীর মধ্যে সাপ আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এদিকে, আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নে মাটির তৈরি বসত ঘর থেকে একে একে ২০টি গোখরা সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধহাটা ইউনিয়নের বেউলা গ্রামের মোড়ল পাড়ায়।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, বুধবার বিকাল ৫টার দিকে বাড়ির মালিক মৃত মুজির সরদারের পুত্র মকবুল সরদার ওরফে খোকনের বাড়ির বসত ঘরের মেঝের নিচ থেকে হঠাৎ ১টি গোখরা সাপ বের হয়ে আসে। বাড়ির মালিক সাপটি দেখা মাত্র লাঠি দিয়ে মেরে ফেলে। বিষাক্ত সাপটি প্রায় দেড় ফুট লম্বা।

পরে ঘরের কাচা মেঝের একটি ছোট ছিদ্র দিয়ে একে একে আরো ১৯টি একই মাপের সাপ বের হয়ে আসে। পরে খোকনসহ স্থানীয় লোকজন একহয়ে সাপগুলোকে মেরে ফেলে।
##

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com