দারিদ্রতা, শিক্ষার অভাব, বাল্যবিবাহ ও বিবাহ বিচ্ছেদের কারনে দিন দিন মানব পচার বৃদ্ধি পাচ্ছে

মানব পাচার প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের দায়দায়িত্ব ও করণীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর হোসেন সজল

শেখ কামরুল ইসলাম : ‘মানব পাচার প্রতিরোধে, কাজ করি এক সাথে’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মানব পাচার প্রতিরোধ ও নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিতকরনে টেকসই উদ্যোগ প্রকল্প (সাসটেইন) মানব পাচার প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের দায়দায়িত্ব ও করণীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অগ্রগতি সংস্থা সাতক্ষীরার বাস্তবায়নে ও ইউএসএইড এবং উইনরক ইন্টারন্যাশনাল এর অর্থায়ন ও সহযোগিতায় অগ্রগতি সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুস সবুর বিশ^াসের সভাপতিত্বে মানব পাচার প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের দায়দায়িত্ব ও করণীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নূর হোসেন সজল। এসময় তার বক্তব্যে বলেন, ‘সামাজিক ভাবে জনসচেতনতাই পারে মানব পাচার রোধ করতে। দারিদ্রতা, শিক্ষার অভাব, বাল্যবিবাহ ও বিবাহ বিচ্ছেদ এর কারনে দিন দিন মানব পচার বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলে টিম গঠন করে মানব পাচার প্রতিরোধে সচেতনতা বাড়াতে হবে।’ কর্মশালায় বিশেষ অতিথি বক্তব্য রাখেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ভারপ্রাপ্ত আসফিয়া সিরাত, সাতক্ষীরা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক এ.কে.এম আবু সাঈদ, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি সাতক্ষীরা অফিসের সহকারী পরিচালক শেখ মো. আজিজুর রহমান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. তোজাম্মেল হক প্রমুখ। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. রোকনুজ্জামান, জেলা মহিলা ষিয়ক কর্মকর্তা তারাময়ী মুখার্জী, সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. জাহিদুর রহমান, সচেতন প্রকল্প রাজশাহীর কর্মকর্তা মাহমুদুন নবী, টিটিসির প্রিন্সিপ্যাল মোছাবেরুজ্জামান, ব্রক্ষরাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, এ্যাডভোকেসী অর্গানাইজার আলমগীর হোসেন, মোর্শেদ আলম, কৃষ্ণা রাণী সাহা প্রমুখ। এসময় জনপ্রতিনিধিসহ মানব পাচার ও নিরাপদ অভিবাসন কমিটির সংশ্লিষ্ট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অগ্রগতি সংস্থার প্রকল্প কর্মকর্তা অসিত ব্যাণার্জী।

 

Facebook Comments
Please follow and like us: