লাবসা চম্পা মায়ের দরগা শরীফের দান বাক্স ভাংচুর ॥ থানায় অভিযোগ, জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী ভক্ত ও এলাকাবাসীর

শেখ কামরুল ইসলাম : সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনিয়নে অবস্থিত লাবসা চম্পা মায়ের দরগা শরীফের নির্মাণাধীন দান বাক্স ভাংচুর ও টিউবওয়েলের মাথা খুলে নিয়ে গেছে দুবৃত্তরা। গত ইং- ২৮ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত ও দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে ফুসে উঠেছে এলাকাবাসী ও ভক্তরা । সদর থানায় অভিযোগ করে সাধারণ ডাইরী করা হয়েছে। যার নং- ১৮৫২ তারিখ-২৯/১১/১৭ ইং। এই ঘটনায় যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের সংঘর্ষের সৃষ্টি হতে পারে বলে মনে করছে সচেতন মহল ও এলাকাবাসী। লাবসা চম্পা মায়ের দরগা শরীফ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি কাজী এছানুল হক হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মো. আরসাদ আলী জানান, দরগা শরীফ রক্ষানাবেক্ষণের অভবে ভগ্নদশায় পরিনত হয়েছিল। গত ৪ মাস আগে ওয়ার্কপ স্টেট কর্তৃক কমিটির দায়িত্ব পাওয়ার পর আমরা সংস্কারের জন্য কাজ শুরু করি। তারই অংশ হিসেবে গেট, দান বাক্সসহ বিভিন্ন নির্মাণ কাজ চলতে থাকে। কিন্তু একটি কুচক্রী মহলের স্বার্থে আঘাত লাগায় তারা বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত করতে থাকে। গত ইং- ২৮ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে লাবসা চম্পা মায়ের দরগা শরীফের নির্মাণাধীন দান বাক্স ভাংচুর ও টিউবওয়েলের মাথা খুলে নিয়ে গেছে দুবৃত্তরা এটা তারই বর্হিপ্রকাশ। ইতিপুর্বে চম্পা মায়ের দরগা শরীফের ওয়ার্কপ স্টেটভুক্ত ২৭ শতক জমির মধ্যে লাগানো গাছ কেটে নিয়ে যায় দুবৃত্তরা। ঐ ঘটনায় শত শত এলাকাবাসী স্বাক্ষরিত অভিযোগ জেলা প্রশাসক ও সদর উপজেলা ভুমি অফিসে দেওয়া হলে তদন্ত সম্পন্ন হয় এবং অভিযুক্তদের সনাক্ত করা হয়। দীর্ঘদিন পার হলেও দোষীদের বিরুদ্ধে কোন প্রকার আইনানুক ব্যবস্থা গ্রহন না করায় এধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করছে এলাকাবাসী ও সচেতন মহল। এধরনের হীন কাজে জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপারের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে সচেতন মহল ও এলাকাবাসী।

Facebook Comments
Please follow and like us: