অন্তর্জালে সর্বকালের সব রেকর্ড ভাঙচুর!

পৃথিবীকে বাঁচাতে হবে ভয়ঙ্কর এক শত্রুর হাত থেকে। তাই একসঙ্গে অভিযানে নেমেছে মার্ভেল কমিকসের সব সুপারহিরো। আয়রনম্যান থেকে শুরু করে ক্যাপ্টেন আমেরিকা, হাল্ক, থর, ডক্টর স্ট্রেঞ্জ, স্পাইডার-ম্যান, ব্ল্যাক উইডো, উইন্টার সোলজার, ব্ল্যাক প্যান্থার, গার্ডিয়ানস অব দ্য গ্যালাক্সি বাহিনী; কে নেই!

 ফলে ‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’ নামের ছবিতে দেখা যাবে দুনিয়ার সব বাঘা তারকাকে। এ দৃশ্য নজিরবিহীন। অনলাইনে এর ট্রেলার দেখতে তাই হুমড়ি খেয়ে পড়েছে সারাবিশ্বের ভক্তরা। সেজন্য তৈরি হয়ে গেছে নতুন এক ইতিহাস।
‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’ গড়েছে সর্বকালের সবচেয়ে বেশিবার দেখা ট্রেলারের রেকর্ড। প্রকাশের প্রথম ২৪ ঘণ্টায় এটি দেখা হয়েছে ২৩ কোটি বার! এর মাধ্যমে ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে পুরনো সব রেকর্ড। স্বাভাবিকভাবে ইউটিউবে ট্রেন্ডিংয়ে এক নম্বরে আছে এটি। তাই আরেকবার প্রমাণিত হলো, বিশ্বজুড়ে ওয়াল্ট ডিজনির মালিকানাধীন মার্ভেল এন্টারটেইনমেন্টের ভক্ত গুনে শেষ করা যাবে না!
ইতিহাস সৃষ্টি হওয়ায় বিশ্বজুড়ে ভক্তদের ধন্যবাদ জানানো হয়েছে টুইটারে মার্ভেল এন্টারটেইনমেন্ট ও দ্য অ্যাভেঞ্জার্স পেজে। বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ২টার দিকে এতে বলা হয়, “মার্ভেল স্টুডিও গড়ে তোলার জন্য পৃথিবী নামক এই গ্রহের সেরা ভক্তদের ধন্যবাদ। ‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’ সর্বকালের সবচেয়ে বেশিবার দেখা ট্রেলার।”
ট্রেলারটি ইউটিউবে উন্মুক্ত হয়েছে গত ২৯ নভেম্বর। এর একদিন পর প্রকাশিত হয় ছবির একটি পোস্টার। হলিউডের প্রথম সারির তারকা রবার্ট ডাউনি জুনিয়র (আয়রন ম্যান), টম হল্যান্ড (স্পাইডার-ম্যান), ক্রিস প্রাটসহ কলাকুশলীরা নিজেদের সামাজিক যোগাযোগের অ্যাকাউন্টে ইউটিউব লিংকটি শেয়ার করেছেন। ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন স্কারলেট জোহানসন (ব্ল্যাক উইডো), মার্ক রাফালো (হাল্ক), ক্রিস ইভান্স (ক্যাপ্টেন আমেরিকা), জেরেমি রেনার (হাউকি), এলিজাবেথ ওলসেন, অ্যান্থনি ম্যাকি, পল রুড (অ্যান্ট-ম্যান), জোয়ি স্যালডানা, ডেভ বাউটিস্টা, পম ক্লেমেনটিয়েফম, বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচ (ডক্টর স্ট্রেঞ্জ), চ্যাডউইক বোসম্যান (ব্ল্যাক প্যান্থার), টম হিডেলস্টন (লকি), সেবাস্তিয়ান স্ট্যান, পিটার পিঙ্কলেজ, জশ ব্রোলিনসহ অনেকে।
বোঝা যাচ্ছে, ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ সিরিজের চতুর্থ ছবিটিতে একসঙ্গে দেখা যাবে ফ্রাঞ্চাইজিটির প্রায় সব চরিত্রকে। ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ বাহিনীর সদস্য থেকে শুরু করে ‘গার্ডিয়ানস অব দ্য গ্যালাক্সি’র, ডক্টর স্ট্রেঞ্জ ও অ্যান্ট-ম্যান একত্র হয় তাদের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর শত্রু  থানোসের বিরুদ্ধে লড়তে। অসীম শক্তিসমৃদ্ধ ধাতুর দস্তানা পরে পৃথিবীর নিয়ন্ত্রণ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে থানোস।
‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’ মুক্তি পাবে ২০১৮ সালের ৪ মে। এটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন দুই ভাই জো রুশো ও অ্যান্থনি রুশো। তারা এর আগে ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা’ সিরিজের দুটি ছবি পরিচালনা করেন। দুই ভাই জানিয়েছেন, ২০০৮ সালে ‘আয়রন ম্যান’ ছবির মাধ্যমে যে গল্প শুরু হয়েছিল, ‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’-এর মাধ্যমে এর সমাপ্তি হবে।

Facebook Comments
Please follow and like us: