ডিসেম্বর ১২, ২০১৭
ক্ষমতায় না থাকলে পাঁচ হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও কোন নেতাকে খুজে পাওয়া যাবে না-সাতক্ষীরায় ওবায়দুল কাদের

জনপ্রিয় নিয়জ পোর্টালট ক্রাইমবার্তার এই সংবাদটি সোসাল মিডিয়াতে তুমুল ঝড় তোলে। ফোন করতে থাকে ক্রাইমবার্তা অফিসে।সংবদিট সোসাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়

আবু সাইদ বিশ্বসঃসাতক্ষীরা: দল ক্ষমতায় না থাকলে পাঁচ হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও কোন নেতাকে খুজে পাওয়া যাবে না। এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার বেলা দুইটার টার দিকে সাতক্ষীরা আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন,দলীয় গ্রুপিং করে লাভ নেই। যারা গ্রুপিং করবেন তাদের আ’লীগে কোন স্থান নাই। যখন সাতক্ষীরাতে হিন্দুদের বাড়ি ঘরে হামলা চালানো হয়ে ছিল তখন এসব নেতারা কোথায় ছিলেন। এলাকাতে সমস্য পড়লে যে সব নেতারা ঢাকাতে চলে যান এমন নেতা সাতক্ষীরাতে দরকার নেই।
কাদের বলেন, মঞ্চের সামনে যারা আছেন তারা অনেক ত্যাগী। তাদের মধ্যে কোন সমস্যা নেই। সমস্যা মঞ্চের উপরে(আমার পিছনে) দিকে যারা আছেন তাদের মধ্যে। এসময় তিনি মঞ্চের উপরে দাড়িয়ে থাকা দলীয় নেতাদের ধমক দিয়ে মঞ্চের নিচে নামতে বলেন। তিনি বলেন,আপন ঘরে শত্রু থাকলে বাইরের শত্রুর দরকার নেই।
মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে জেলা আ’লীগের সভাপতি মনসুর আহম্মদের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সাতক্ষীরা-০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম,দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ,যুবলীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রেজাউল ইসলাম রেজা সহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী বলেন, নমিনেশন পাওয়ার জন্যে ঢাকায় যেয়ে বসে থাকার দরকার নেই। তৃর্ণমূলে কাজ করেন। তৃর্ণমুলের রির্পোটের ভিত্তিতে নমিনেশন দেয়া হবে।
তিনি নৌকা মার্কার স্লেগান দিয়ে বলেন, মার্কা একটা ‘নৌকা’। এসময় তিনি কবিতার ছন্দে বলেন,কাগজে লেখা নাম মুছে যাবে,পাথরে লেখা নাম ক্ষয়ে যাবে,হ্রদয়ে লেখা নাম থেকে যাবে। তাই মানুষের হ্রদয়ে নৌকার নাম লেখাতে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সাধারণের মাঝে তুলে ধরতে নেতাকর্মীদের অনু

রোধ করেন। কাদের বলেন,দেশের উন্নয়ন যা করেছে তা শেখ হাসিনার সরকার করেছে। ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১৪ কোটি মোবাইল। ৮ কোটিরও বেশি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। পাসপোর্ট,ভিসা,বিদ্যুৎ বিল,পরীক্ষার ফরম পুরণ সহ যাবর্তীয় কাজ হচ্ছে ঘরে বসে। মুক্তি যোদ্ধ ভাতা,বয়স্ক ভাতা,বিধবা ভাতার সংখ্যা ও পরিমান বাড়িয়েছে। বিমান বাহিনী,পুলিশ বাহিনী,ডিসি সহ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ

পদে এখন নারী প্রতিনিধিত্ব করছে। নারীদের কাছে ভোট চাওয়ার দরকার নেই। তারা নৌকা ছাড়া কিছুই চেনে না। তিনি আরো বলেন,দৃশ্যমান পদ্ধা সেতু দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে চেহারা পাল্টে দিয়েছে।
কাদের সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরতে যেয়ে বলেন,বিএনপির কোন উন্নয়ন নেই। তারা জনগণের কাছে কি দেখাবে। েিকান কাজ তারা করেনি । তারা দেশে থেকে ১২ বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ৫শ কোটি টাকা দুর্ণিতি করে সৌদি সহ বিভিন্ন দেশে পাচার করেছে। যা সৌদির দুর্ণিতি গ্রস্ত মন্ত্রীরা বলেছে। তারেক মানি লন্ডারিং করেছে যা আদালতের মাধ্যমে প্রমানিত। তিনি আরো বলেন,জিয়া যখন মারা গেরেন তখন ভাঙ্গা সুটকেস রেখে গেলেন। এখন বিএনপির কি অবস্থা। তারা ১২টি সুটকেস বিমানে করে পাচার করলে। যাতে ১২ বিলিয়ন টাকা ছিল।
কাদের বিএনপির মহাসচিব ফরুল ইসলামকে উদ্দেশ্যে

করে বলেন,বিএনপির মুখে দুর্ণিতির কথা মানায় না। ঠাকুর ঘরে কেরে আমি কলা খায়নি। এমন অবস্থার মধ্যে বিএনপি। শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করে লাভ নেই।
কাদের বলেন,বিএনপির মুখে সংলাপ মানায় না। বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান খোকোর মৃত্যুতে যখন শোকার্ত মাকে স্বান্তনা দিতে গিয়ে ছিলেন আমার নের্তৃ শেখ হাসিনা তখন বেগম জিয়া দরজা বন্ধ করে দিয়ে ছিল। সংলাপ কি ভাবে হবে। সংলাপের পথতো তারায় বন্ধ করে দিয়েছে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাতক্ষীরাতে দলীয় কোন্দল মেটাতে দলের জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকতে মঞ্চে ডেকে হাতে হাত মিলিয়ে ঐক্য বদ্ধ থাকার কথা বলেন। বলেন আ’লীগের ইতিহাস গৌরর্বের ইতিহাস। দলটি পরিচালনা করতে যেয়ে সাতক্ষীরাতে অনেকে শহীদ হয়েছেন। তিনি দলীয় শহীদের নাম ধরে ধরে সরণ করেন। এসময় তিনি বলেন,কোন চিহ্নিত খুনি,সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজি,সাম্প্রদায়িক অপশক্তি যেন আ’গীরে সদস্য না হতে পারে সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। যারা দলের নিয়ম মানবে না এমন পরগাছা দলে দরকার নেই বলে তিনি সকলকে হুশিয়ার করেন। সাতক্ষীরার ভাঙ্গা-চুরা রাস্তাঘাট সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন,টেন্ডর হয়ে গেছে,দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।

তিনি জামায়াতের বিষযে কোন কথা না বলায় অনেকে ক্ষোভ জানান।

১২ ডিসেম্বর,২০১৭ মঙ্গলবার:ক্রাইমর্বাতাডটকম/প্রতিনিধি/আসাবি

————–0————————————–

 

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com