সাতক্ষীরার মাঠে লাল-সবুজে হলুদ হয়ে বাতাসে দোল খাচ্ছে ভুট্টা

*সাতক্ষীরার দিগন্ত মাঠ জুড়ে ভুট্টা* বাম্পার ফলনের সম্ভবনা
আবু সাইদ বিশ্বাসঃসাতক্ষীরা:সাতক্ষীরা জেলায় ব্যাপকভাবে ভুট্টার চাষ হয়েছে। ফলনও বেশ ভাল। এরিমধ্যে সবুজ পাতার আড়ালে হাসছে হলুদ রঙের ভুট্টা। মাথায় লাল ফুল, গায়ে হলুদ বর্ণের এসব ভুট্টা দোলা খাচ্ছে বাতাসে। উৎপাদন বেশি, খরচ কম তাই ভুট্টচাষে আগ্রহ বেড়েছে এখানকার কৃষকদের। আখ চাষের পরিবর্তে কৃষকরা ভুট্টা চাষের দিকে ঝুঁকে পড়েছে। চলতি মৌসুমে এ জেলাতে এসকে ৪০, প্যাসিফিক, মুকুট, এলিট, সুপার ফাইন জাতের ভুট্টার আবাদ বেশি হয়েছে। সাতক্ষীরার ভুট্টার ভাল সুনাম ও রয়েছে । তাই এ জেলার উৎপাদিত ভুট্টা জেলার চাহিদা মিটিয়ে পাশ্ববর্তি জেলা সমূহে সরবরাহ করা হয়। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে সাতক্ষীরা জেলাতে ভুট্টার  লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ২৩৫ হেক্টর জমিতে। উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ২হাজার ৫৬ মেঃটন। সদরে আবাদ হয়েছে ৬৪ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ৫৬০ মেঃটন। কলারোয়াতে আবাদ হয়েছে ৫০ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ৪৩৭ মেঃটন। তালাতে আবাদ হয়েছে ৪৬ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ৪০৩ মেঃটন। দেবহাটাতে আবাদ হয়েছে ১৭ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ১৪৯ মেঃটন। কালিগঞ্জে আবাদ হয়েছে ৩৪ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ২৯৮ মেঃটন। আশাশুনিতে আবাদ হয়েছে ১০ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ৮৭ মেঃটন। শ্যামনগরে আবাদ হয়েছে ১৪ হেক্টর জমিতে যা থেকে উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা ধরা হয়েছে ১২২ মেঃটন।

কৃষকরা বোরো ধানের পাশাপাশি গত কয়েক বছর ধরে ভুট্টা আবাদ করছেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ভুট্টা আবাদের উপর তেমন প্রভাব পড়ে না এবং সার তেল সহ অন্যান্য খরচ কম হওয়ার কারণে ভুট্টা চাষে কৃষকরা দিনদিন আগ্রহী হয়ে উঠছে।
এ জেলার ভুট্টার দানা এবং রং ভালো হওয়ায় বাজারেও চাহিদা অনেক। তাই স্থানীয় ব্যবসায়ীরা চাষীদের কাছ থেকে সরাসরি ভুট্টা ক্রয় করেন।
এবিষয়ে সাতক্ষীরা খামার বাড়ির কৃষি উপপরিচালক আব্দুল মান্নান জানান, শুধু উৎপাদন বাড়ালেই হবে না, মাটির উর্বরতাতা যেন ঠিক থাকে এবং চাষীরা যাতে পরিকল্পিতভাবে ভুট্টার আবাদ করতে পারে সেদিকেও নজর দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ধান ও গমের তুলনায় ভুট্টার পুষ্টিমান বেশি। এতে প্রায় ১১ভাগ আমিষ জাতীয় উপাদান রয়েছে। আমিষে প্রয়াজনীয় অ্যামিনো এসিড, ট্রিপটোফ্যান ও লাইসিন অধিক পরিমাণে আছে। এছাড়া হলদে রংয়ের ভুট্টা দানায় প্রতি ১০০ গ্রামে প্রায় ৯০ মিলিগ্রাম ক্যারোটিন বা ভিটামিন এ থাকে।

Facebook Comments
Please follow and like us: