যুবদল নেতার দাঁত ভেঙে দিল ছাত্রলীগ নেতা

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় বাস কাউন্টারের ক্যাশ থেকে টাকা ছিনিয়ে নিতে বাধা দেয়ায় উপজেলা যুবদলের সভাপতি শরীফ শফিকুর রহমান স্বপনের দুটি দাঁত ভেঙে দিয়েছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

এ সময় স্বপনের চিৎকারে তার বোন নাজমা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করা হয়। হামলায় গুরুতর আহত স্বপনকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলাকারীরা হলেন- গৌরনদী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নাট্য ও ক্রীড়া সম্পাদক গৌরনদী কলেজছাত্র সংসদের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক আরিফ মিয়া ও তার ভাই ছাত্রলীগ নেতা আতিক মিয়া এবং ছাত্রলীগকর্মী জিহাদ মিয়া।

বাস কাউন্টারের স্টাফ ও আহত স্বপনের ভাতিজা হাসানাত শরীফ জানান, কয়েক বছর ধরে বরিশাল-কাঁঠালবাড়ী রুটের বিএমএফ পরিবহনের গৌরনদী কাউন্টার পরিচালনা করে আসছেন যুবদল নেতা স্বপন।

গত ২৫ দিন ধরে আরিফ মিয়া ও তার ভাই আতিক মিয়া, জিহাদ মিয়াসহ তার সহযোগীরা প্রতিদিন কাউন্টারের ক্যাশ থেকে জোরপূর্বক টাকা ছিনিয়ে নেয়।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে কাউন্টারের মালিক স্বপন কাউন্টারে আসলে আরিফ, আতিক ও জিহাদসহ ৫/৬ সহযোগীরা কাউন্টারে প্রবেশ করে ক্যাশ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় তাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে তার দুটি দাঁত ভেঙে দেয়া হয়।

স্বপনের চিৎকারে তার বোন নাজমা এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। স্থানীয়রা আহত স্বপনকে উদ্ধার করে প্রথমে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তাকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ নেতা আতিক মিয়া বলেন, কাউন্টারের মালিকানা আমার এবং আমি ভোগ দখল করে আসছি। হামলার সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের ওসি মুনিরুল ইসলাম মুনির জানান, গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডে অপ্রীতিকর ঘটনার কথা মৌখিকভাবে শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
Please follow and like us: