বাড়িতে টয়লেট বানিয়ে না দেওয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

ক্রাইমবার্তা ডেস্করির্পোটঃ

বার বার অনুরোধ করেও পরিবারের লোকেরা বাড়িতে টয়লেট নির্মাণ না করার জেরে আত্মহত্যা কেরেছ ১৬ বছরের এক কিশোরী। পুলিশ জানিয়েছে, ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ জেলার ওই কিশোরীর নাম হেমা যাদব। জানা গেছে, ক্লাস ইলেভেনের ছাত্রী ছিল সে। শিকোহাবাদ শহরের শিবনগর এলাকার বাড়িতে টয়লেট তৈরি করে দেওয়ার আকুতি জানিয়েছিল সে। বাড়ি থেকে বেশ খানিকটা দূরেই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে যাওয়ার অভ্যাস ওই এলাকার সবারই। পরিবারের দাবি, বাড়ির চারপাশে বেশিরভাগ সময় পানি জমে থাকে। এছাড়া, প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ি থেকে অনেকটা পথ হেঁটে যেতে হয়। এতদূরে ও খোলা জায়গায় যেতে ওই ছাত্রীর লজ্জা লাগত। তা নিয়ে মা মঞ্জু দেবীকে বারবার অনুরোধ করলেও পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ার জেরে অভিমানে ও লজ্জায় সে আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছে এসপি মহেন্দ্র সিং। কিশোরীর মায়ের দাবি, বাড়িতে টয়লেট বসানোর জন্য বহুবার সে অনুরোধ করেছিল। কিন্তু বাড়িতে টয়লেট তৈরি করে সেটি ব্যবহার করার চাইতে, জমিতে যাওয়াটাই বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছিল। আর সেখানেই আপত্তি ছিল মেয়ের। পুলিশ জানিয়েছে, বাড়ির কাজের জন্য বাইরে গিয়েছিলেন কিশোরীর মা। বাড়িতে একাই ছিল ওই কিশোরী। বেশ কিছুক্ষণ পর বাড়িতে এসে ডাকাডাকি করা সত্ত্বেও কোনও সাড়া না মিললে, প্রতিবেশীদের সাহায্যে দরজা ভেঙে দেখেন, মেয়ে সিলিং থেকে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছে। ঘটনার পর পুলিশ বাড়িতে যায় এবং জেলা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ পাঠিয়ে দেয়।

Facebook Comments
Please follow and like us: