আসনভিত্তিক কমিটি করবে আ.লীগ

  • শনিবার রাতে গণভবনে আ. লীগের নির্বাচন পরিচালনা জাতীয় কমিটির বৈঠক

  • নির্বাচনের কৌশল ঠিক করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু আওয়ামী লীগের

  • মনোনয়নের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় নেতারা অগ্রাধিকার পাবেন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  ক্রাইমর্বাতা রির্পোট:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আসনভিত্তিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি করবে আওয়ামী লীগ। এই কমিটিতে সংশ্লিষ্ট জেলা, উপজেলা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকেরা থাকবেন। তাঁরা কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী প্রার্থীর পক্ষে বিজয় নিশ্চিত করতে কাজ করবেন।

গতকাল শনিবার রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা জাতীয় কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। কমিটির চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এটা ছিল একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য গঠিত দলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রথম বৈঠক। এর মধ্য দিয়ে আগামী নির্বাচনের কৌশল ঠিক করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

বৈঠকে সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর বিশ্বাস, আগামী নির্বাচনেও বাংলাদেশের জনগণ নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করবে এবং উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত রাখবে। তিনি বলেন, ছয় মাস পরপর সমীক্ষা করা হচ্ছে। আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। প্রার্থীদের ব্যাপারে খোঁজখবর রাখা হচ্ছে। দু-একজন বাদে অধিকাংশ সাংসদের অবস্থা ভালো।

বৈঠক-সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, গতকালের বৈঠকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যদের সদস্যসচিব করে কয়েকটি কোর কমিটি গঠনের প্রস্তাব করা হয়। তাঁরা নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট সব কর্মকর্তা ও দলের তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে কাজ করবেন। ভোটারদের আকৃষ্ট করতে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো বেশি করে প্রচার করতে বৈঠকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা বলেছেন, মনোনয়নের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় নেতারা অগ্রাধিকার পাবেন। ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা কোনো নেতা মনোনয়ন পাবেন না।

গত ১৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চেয়ারম্যান করে ১৩৪ সদস্যবিশিষ্ট আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা জাতীয় কমিটি গঠন করা হয়। দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমাম এই কমিটির কো-চেয়ারম্যান এবং সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সদস্যসচিব। দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরা এর সদস্য।

দলীয় সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে যোগ দেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন। এর আগেই গতকালের বৈঠকে দলের নির্বাচনী কার্যক্রমের বিষয়ে নেতাদের নির্দেশনা ও বার্তা দিয়েছেন। ড. কামাল হোসেন ও বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে যে বৃহত্তর ঐক্যের প্রক্রিয়া চলছে, এ বিষয়টিও আলোচনায় এসেছে।

Facebook Comments
Please follow and like us: