দেবহাটায় স্বামী র্কতৃক স্ত্রী হত্যার চেষ্টা: মামলা না নেয়ার অভিযোগ

ক্রাইমবার্তা রিপোট:  সাতক্ষীরা:সাতক্ষীরার দেবহাটার কুলিয়া ইউনিয়নের কুলিয়া গ্রামের ইব্রাহিম গাজির স্ত্রী আশুরা খাতুনকে পাশের বাড়ির লোকজন তুচ্ছ কারণে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করেছে। অথচ এ ব্যাপারে পুলিশ মামলা নিচ্ছে না।
রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ইব্রাহিম গাজি। তিনি বলেন তার স্ত্রী এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাকে হত্যার লক্ষ্যে এই আঘাত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
ইব্রাহিম গাজি বলেন গত ২৭ সেপ্টেম্বর পাতা কুড়ানোকে কেন্দ্র করে তার স্ত্রী আশুরা খাতুনের সাথে ঝগড়া হয় প্রতিবেশি আছের আলির স্ত্রী খোদেজা খাতুনের। এ ব্যাপারে তিনি দেবহাটা থানায় একটি অভিযোগ দেন। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।
অভিযোগ করে তিনি বলেন পরদিন ২৮ সেপ্টেম্বর তার স্ত্রী আশুরা খাতুনকে একা পেয়ে প্রতিবেশি আছের আলি, তার স্ত্রী খোদেজা খাতুন ও ছেলে রবিউল ইসলাম তার মাথায় সজোরে দা দিয়ে কোপ মারে । তিনি মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম হন। এ সময় তার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসেন। প্রথমে তাকে সখিপুর হাসপাতাল ও পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানান তিনি। স্থানীয় জাহাঙ্গীর শাহজির মদদে এই হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে ইব্রাহিম গাজি আরও বলেন এরপরও পুলিশ আমার দেওয়া মামলা নিচ্ছে না। মামলা রেকর্ড না করায় স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে ইব্রাহিম গাজি মামলা রেকর্ডের ব্যাপারে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

Facebook Comments
Please follow and like us: