৭২ ঘন্টায় ২২শ’ নেতাকর্মী গ্রেফতার : বিএনপি

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ  ঢাকা : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে, রাজনৈতিক কারণে দেশে আর কাউকে গ্রেফতার করা হবে না। অথচ গত তিনদিনে সারাদেশে বিএনপির প্রায় ২ হাজার ২০০শ’ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোন করেন।

রিজভী বলেন, ‘রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের আর গ্রেফতার করা হবে না বলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মঙ্গলবারের সমাবেশকে কেন্দ্র করে সারাদেশে গত ৭২ ঘণ্টায় দুই হাজার ২০০ এর বেশি নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর এই গ্রেফতার কার্যক্রমের নিন্দা জানান তিনি।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য আদালতের নির্দেশনা ও মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশকে লঙ্ঘন করে তাকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে পাঠিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন এই নেতা।

রিজভী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরুই হয়নি, কেবল পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে, আর সেই মুহূর্তে দেশনেত্রীকে কারাগারে প্রেরণ করার উদ্যোগ শুধু মনুষ্যত্বহীন কাজই নয়, এটি সরকারের ভয়ঙ্কর চক্রান্ত। খালেদা জিয়ার ডাক্তার ও তাঁর জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য সৈয়দ আতিকুল হকের অধীনে তিনি চিকিৎসাধীন, ডাক্তার আতিক বেগম জিয়াকে হাসপাতাল থেকে ছুটির ছাড়পত্র দেননি এবং মেডিকেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ডাক্তার জলিলুর রহমান বর্তমানে দেশের বাইরে, এমতাবস্থায় সরকারের নির্দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ছাড়পত্র দিতে বাধ্য করতে চাপ সৃষ্টি করেছে।’

চিকিৎসা না দিয়ে কারাগারে পাঠিয়ে খালেদা জিয়ার জীবনকে বিপন্ন করার অথবা শারীরিকভাবে চিরতরে পঙ্গু করার চক্রান্ত বলেও মন্তব্য করেন রিজভী। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া সুস্থ হোক, এটি বিদ্বেষপ্রবণ সরকার কখনো চায় না। সরকারের সৌজন্যবোধ ও হিতাহিত জ্ঞান লোপ পেয়েছে বলেই দেশের বিপুল জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়ার ওপর চালানো হচ্ছে অমানবিক নিপীড়ন।’

চিকিৎসা শেষ না করেই হাসপাতাল থেকে খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপির এই নেতা।

Facebook Comments
Please follow and like us: