নাটোর জেলা জামায়াতের আমীরকে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে বেদম মারপিট করে রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে রাখা হয়

নাটোর সংবাদদাতা : নাটোর জেলা জামায়াতের আমির অধ্যাপক বেলাল উজ্জামান কে পুলিশ পরিচয়ে বাড়ি থেকে তুলে মাইক্রোবাসে নিয়ে নির্যাতন চালিয়ে আহত করে ফেলে রেখে গেছে সাদা পোশাকধারীরা। বৃহস্পতিবার সকালে নাটোরের সিংড়ার শেরকোলের তার বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে নলডাঙ্গা উপজেলার আঁচরাখালী এলাকায় রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যায় সাদা পোশাকধারীরা। আহত অবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্য রাজশাহীতে স্থানান্তর করা হয়েছে। তবে পুলিশ এর দায় অস্বীকার করেছে। আহত বেলালউজ্জামান, তার পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে একটি মাইক্রোবাসে অধ্যাপক বেলাল উজ্জামানকে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যায় সাদা পোশাকধারীরারা। তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা নিজেদের প্রশাসনের লোক বলে দাবী করে। বেলা ১১টার দিকে নলডাঙ্গা উপজেলার আঁচড়াখালী এলাকায় রাস্তার ধারে ফেলে রেখে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নাটোরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে যায়। সেখানে তার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহীতে স্থানান্তর করা হয়েছে। পরিবার থেকে পুলিশ পরিচয় তুলে নিয়ে যাওয়ার দাবি করা হলেও পুলিশ এর দায় অস্বীকার করেছে। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পুলিশ ইন্সপেক্টর সৈকত হাসান জানান, তারা এ ধরনের কোনো আটক বা অভিযান পরিচালনা করেননি। নাটোর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত জানান, তিনি এ ধরনের কোন অভিযানের সংবাদ পাননি। এদিকে সিংডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না তবে সংবাদ কর্মীদের মাধ্যমে জেনে বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

Check Also

মৃত্যু ৬৪০০ ছাড়ালো, শনাক্তের হার বাড়ছে হু হু করে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো প্রাণ গেলো ২৮ জনের, শনাক্ত ২৪১৯

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *