এপ্রিল ২৩, ২০১৯
রেকর্ডীয় সম্পত্তি ও ডিসিআরকৃত সম্পত্তি উদ্ধারের দাবিতে আশাশুনিতে সংবাদ সম্মেলন

আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি রেজিষ্ট্রি অফিস থেকে রেজিষ্ট্রিকৃত সম্পত্তি এবং সরকার বাহাদুরের নিকট থেকে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তকৃত ভোগদখল সম্পত্তি অবৈধ দখল ও দখলদারদের ওই সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ এবং মামলাবাজদের মিথ্যা মামলার হাত থেকে রক্ষা পেতে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের পুটিমারি গ্রামের মৃত আশরাফ গাজীর ছেলে আবুল কালাম গাজী।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় সাংবাদিকের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে আবুল কালাম গাজী জানান, তিনি গত ইং ৯/০১/২০০১তারিখে আশাশুনি রেজিষ্ট্রি অফিসের ১৮৫নং কোবলা দলিল মূলে রেকর্ডীয় সম্পত্তির মালিক সতীশ চন্দ্র মহাতার নিকট হতে বদরতলা মৌজার এস.এ ১৩৮ নং খতিয়ানের ৬৩৩ দাগে ০৪শতক, ৬৪০ দাগে ৪৭শতক, ৬৪১ দাগে ১০ শতক, মোট ৬১শতক জমির মধ্যে সাড়ে ২৬ শতক জমি ক্রয় করিয়া শান্তিপূর্ন ভাবে ভোগদখল করছি। এমনকি আশাশুনি সহকারি কমিশনার (ভূমি) এর আদালত হতে নিজ নামে এজমালিতে ৭৬৯ নং নামপত্তন খতিয়ান করা হয়েছে।

অদ্যবধি উক্ত সম্পত্তির খাজনা আমি নিয়মিত পরিশোধ করে আসছি। কিন্তু ওই সম্পত্তি ক্রয় করার পর মাপ-জরিপ করে আমরা দেখি যে ওই সম্পত্তির মধ্যে ০৪ শতক সম্পত্তির উপর বদরতলা গ্রামের মৃত খগেন মাহাতার ছেলে হেমন্ত মাহাতা একটি ঘর নির্মাণ করে ভোগদখল করছে।

বিষয়টি হেমন্ত মাহাতাকে অবহিত করলে আজ ছেড়ে দেব কাল ছেড়ে দেব বলে সময় ক্ষেপন করতে থাকায় তাহার বিরুদ্ধে আশাশুনি সহকারী জজ আদালতে একটি উচ্ছেদ মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং ৫৫/১৭।

অন্যদিকে তাহার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করায় সে স্থানীয় সাংবাদিকের ভূল তথ্য দিয়ে ‘সংখ্যালঘু পরিবারকে ভিটাবাড়ি থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্রে মেতেছে’ এমনই সংবাদ প্রকাশ করায় প্রতিপক্ষরা। তবে প্রকৃত পক্ষে ওই সম্পত্তির বৈধ মালিক হিসেবে আমি আমার সম্পত্তি থেকে অবৈধভাবে দখলে থাকা হেমন্ত মাহাতার ঘর উচ্ছেদের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

একই সাথে লিখিত সংবাদ সম্মেলনে পুটিমারী গ্রামের মুনসুর গাজীর ছেলে হেকমত গাজী জানান, বদরতলা মৌজার এস এ ৩৫৫ নং খতিয়ােেনর ৬৩৪ দাগের ৩৮শতক জমি ২০১১সাল হইতে ২০১৪সাল পর্যন্ত সরকার বাহাদুরের কাছ থেকে ডি.সি.আর নিয়ে ভোগদখল করাসহ সরকার বাহাদুরের নিকট থেকে চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত গ্রহণ করি। কিন্তু পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমার নামীয় বন্দোবস্তকৃত সম্পত্তির দলিল বাতিল করতে পরসম্পদ লোভী হেমন্ত মাহাতা জেলা প্রশাসক বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

বিষয়টি জানতে পেরে সরকার বাহাদুরের চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত বহাল রাখতে আমি (হেকমত গাজী) হেমেন্ত মাহাতার বিরুদ্ধে আশাশুনি বিজ্ঞ দেওয়ানী আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। মামলা নং ১০/১৫। উভয় পক্ষের মামলা চলাকালিন সময়ে গত ইং ১৮/০৪/১৯ তারিখ দুপুর ১টার দিকে হেমন্ত মাহাতা পুটিমারী গ্রামের আনিছুর গাজীর ছেলে মোঃ হাকিম গাজী ও মোঃ রমজান আলী গাজী সহ অজ্ঞাত প্রায় ১৫/১৬জন লোকজন নিয়ে অবৈধভাব বাঁশ খুটি দিয়ে ঘর নির্মান করিতে থাকে।

এব্যাপারে আমি তাহাদের বাধা দিতে গেলে তারা আমাকে খুন জখমের হুমকি প্রদান সহ নিজেদের ঘরে আগুন দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার হুমকি প্রদান করে। এমতাবস্থায় ন্যায় বিচারের মাধ্যমে নিজেদের সম্পত্তি রক্ষা ও অবৈধ দখল উচ্ছেদের জন্য প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অসহায় আবুল কালাম গাজী ও হেকমত গাজী।

Facebook Comments
Please follow and like us:
আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জিল্লুর রহমান

বাসা ও অফিস: পুরাতন সাতক্ষীরা, যোগাযোগ: ০১৭১৬৩০০৮৬১ - e-mail: zsatkhira@gmail.com