মঙ্গলবার , ৭ জুলাই ২০২০

বাংলাদেশের হার কাঠগড়ায় বোলাররা

বাংলাদেশের বিপক্ষে কার্ডিফে শনিবার ইংল্যান্ড ফেভারিট হিসেবেই জিতেছে। তবে বাংলাদেশের ১০৬ রানের হার নিয়ে সমালোচনাও কম হচ্ছে না। বাংলাদেশের নির্বিষ বোলিংয়ের সামনে ইংল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করে ৩৮৬ রানের পাহাড় গড়ে।

বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সাকিব আল হাসান ছাড়া আর কেউ বড় স্কোর করতে পারেননি। সাবেক অধিনায়করা হারের কারণ হিসেবে বাংলাদেশের বাজে বোলিংকে দায়ী করেছেন। গাজী আশরাফ হোসেন লিপুর ধারণা, ইংল্যান্ডের ব্যাটিংই ম্যাচে ব্যবধান গড়ে দিয়েছে। মোহাম্মদ আশরাফুল মনে করেন, স্বাগতিকরা ৩৮৬ করার পরই ম্যাচ হেরে যায় বাংলাদেশ। আর শাহরিয়ার নাফীস মনে করেন, বাংলাদেশের বাজে বোলিংয়ের সুযোগ নিয়েছে ইংল্যান্ড। বোলিং আক্রমণে পরিবর্তনের পক্ষে সাবেক অধিনায়করা।

নিজেদের সৌভাগ্যের ভেন্যু কার্ডিফে বাংলাদেশের হার নিয়ে গাজী আশরাফ হোসেন  বলেন, ‘ম্যাচে ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরাই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘টস জিতে ফিল্ডিং নেয়া যুক্তিযুক্ত ছিল। একটু স্যাঁতসেঁতে উইকেটে দু’জন পেস বোলার দু’পাশ থেকে বল করলে ফিল্ডিং নেয়ার যৌক্তিকতার প্রমাণ মিলত।

এক সাকিবের ওপরই নির্ভর করতে হয়েছে। মিরাজ নিজেকে বারবার প্রমাণ করলেও ডান-হাতি ব্যাটসম্যানের কথা চিন্তা করে তাকে শুরুতে আনা হয়নি। সে যখন এসেছে তখন সেট ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষেও ভালো করেছে।’ বোলিং আক্রমণ নিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বোলাররা সময়মতো ব্রেকথ্রু এনে দিতে পারছে না। আবার ভালো লাইন-লেন্থে বল করে রানও নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে না। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রুবেলকে একাদশে রাখা উচিত ছিল। পরে বোলিং করেও জফরা আর্চার দেখিয়েছে প্রথমে বল করলেও সে কতটা ভয়ংকর হতে পারত। তবে সাকিবের ধারাবাহিকতা গর্ব করার মতো।

মোহাম্মদ আশরাফুল বলেন, ‘ইংল্যান্ড ৩৮৬ রান করার পরই বাংলাদেশ হেরে যায়। বাংলাদেশের একজন বোলার কম ছিল। স্পিনাররা খারাপ করেনি। কিন্তু মাশরাফি, মোস্তাফিজ ও সাইফউদ্দিন নিজেদের সেরা ছন্দে নেই। সেক্ষেত্রে রুবেলকে খেলানো যেত। আমার মনে হয়, রুবেলকে প্রথম ম্যাচ থেকেই খেলানো উচিত ছিল।’ তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ প্রথমে ফিল্ডিং নিয়েছে। এ নিয়ে কোনো কথা হবে না। উইকেটের সুবিধা বাংলাদেশের বোলাররা কাজে লাগাতে পারেনি। এই বোলিং আক্রমণ নিয়ে ভাবতে হবে।’

নিজেদের কন্ডিশনে ইংলিশরা ফেভারিট হলেও শাহরিয়ার নাফীসের কাছে হারটাই বড়। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে হার তো হারই। সেটা এক রানে হোক আর একশ’ রানে। আমি বলব, ব্যাটিংটা ভালোই হয়েছে। খারাপ করেছি বোলিংয়ে।

’ তিনি বলেন, ‘বড় রানের চাপ থাকেই। সেখানে তাদের বিপক্ষে ২৮০ করা খারাপ নয়। সাকিব নিজের ক্ষমতা দেখাতে সক্ষম হয়েছে। দারুণ ধারাবাহিক। টস জিতে ফিল্ডিং নেয়াও যুক্তিযুক্ত ছিল। কিন্তু আমাদের কাজটা তো করতে হবে।’ একাদশে পরিবর্তন আনার পক্ষে নাফীসও। তিনি বলেন, ‘রুবেলকে নিলে ভালো হবে। এখন পর্যন্ত আমরা এই জায়গাতেই (বোলিংয়ে) পিছিয়ে আছি। দক্ষিণ আফ্রিকাও আমাদের বিপক্ষে তিনশ’ ছাড়ানো স্কোর করেছিল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষদিকে ভালো করলেও বোলিংটাকে এগিয়ে রাখা যাচ্ছে না। ব্যাটিংয়ে লিটন দাস ও সাব্বির রহমান এখনও একাদশে সুযোগ পায়নি। তাদেরও একাদশে জায়গা দেয়া যেতে পারে।’যুগান্তর

About ক্রাইমবার্তা ডটকম

Check Also

কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে হানিফ সংকেতের স্ট্যাটাস

ক্রাইমর্বাতা  রিপোর্ট : গতকাল মৃত্যুবরণ করেছেন কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর। দীর্ঘ ১০ মাস মরণব্যাধি ক্যানসারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *