শুক্রবার | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৯শে মে ২০২০ ইং | ৫ই শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী | গ্রীষ্মকাল

জুন ১৩, ২০১৯
এমপির উদ্বোধন করা সা’দ গ্রুপের ইজতেমার প্যান্ডেল ভেঙে দিল প্রশাসন

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি:   তাবলীগ জামায়াতের সাদ গ্রুপের তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমার প্যান্ডেল ভেঙে দিয়েছে প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা সদরের পৌরসভার কুতুববাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

তাবলীগ জামায়াতের সাদ গ্রুপের টাঙ্গাইল জেলা শাখার নেতা এবং তিন দিনব্যাপী তাবলীগ জামায়াতের ইজতেমার আয়োজক কমিটির সদস্যরা জানান, ইসলামের সব কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য তাবলীগ জামায়াতের (সাদ গ্রুপের) পক্ষ থেকে টাঙ্গাইল জেলা ইজতেমার আয়োজন করা হয়। এই ইজতেমা এ বছর মির্জাপুর উপজেলার কুতুববাজার পরিত্যক্ত একটি খেলার মাঠে অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত হয়।

১৩, ১৪ ও ১৫ জুন এই তিন দিনব্যাপী ইজতেমা উপলক্ষে সব রকমের প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ইজতেমার মাঠে প্যান্ডেল তৈরি করে শামীয়ানা টাঙ্গানো হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সড়ক পরিবহন এবং সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন ইজতেমা মাঠে প্যান্ডেলের খুঁটি স্থাপন করে তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমার উদ্ধোধন করেন।

অপর দিকে তিন দিনব্যাপী এই জেলা ইজতেমা যাতে না হতে পারে এ জন্য তাবলীগ জামায়াতের অপর একটি পক্ষ যোবাইর (সুরাইজম) গ্রুপ প্রশাসনের সঙ্গে যোগসাজস করে ইজতেমার প্যান্ডেল ভেঙে ফেলার গভীর ষড়যন্ত্র করে বলে আয়োজকরা অভিযোগ করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে আমবয়ানের মাধ্যমে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হওয়ার কথা ছিল। বয়ান শুরু হওয়ার পুর্ব মুহূর্তে টাঙ্গাইল ও মির্জাপুরের প্রশাসন পুলিশ নিয়ে ইজতেমার মাঠের প্যান্ডেল ভেঙ্গে দিয়ে মুসুল্লিদের সরে যাওয়ার নির্দেশ দেন। নিরুপায় তাবলীগ জামায়াতের শতশত মুসুল্লি কান্ঠালিয়া দারুল উলুম মাদ্রাসা এবং কান্ঠালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে গিয়ে প্রখর রোদের মধ্যে আশ্রয় নিয়েছেন।

প্রশাসন ও পুলিশ ইজতেমা করতে না দেয়ায় মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হেনেছেন। এটা মুসল্লি হিসেবে মেনে নেয়া যায় না। প্রশাসনের বাঁধার মুখেও প্রখর রোদ বৃষ্টি উপেক্ষা করে কান্ঠালিয়া দারুল উলুম মাদ্রাসা ও স্কুল মাঠে খোলা আকাশের নিচে বসেই তিন দিনব্যাপী ইজতেমায় বয়ান চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক বলেন, তাবলীগ জামায়াতের পক্ষে-বিপক্ষে দুইটি গ্রুপ রয়েছে। আয়োজক কমিটি ইজতেমা করার জন্য প্রশাসনের কোনো অনুমোদন নেননি। যে কোনো সময় দুই গ্রুপের মধ্যে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। এলাকার পরিবেশ শান্ত রাখতে ও আইনশৃংখলা উন্নয়নের স্বার্থেই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ইজতেমার প্যান্ডেল ভেঙে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। মুসুল্লিদের চলে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
720

ফেসবুকে আপডেট পেতে যুক্ত থাকুন

ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা চালাচ্ছে ‘ক্রাইমর্বাতা' বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় বাংলা অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সবাই অবগত, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বর্তমান সময়ে সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদ প্রাপ্তির অন্যতম উৎসে পরিণত হয়েছে। ২০১২ খ্রিস্টাব্দ থেকে ‘ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা করে চলেছে। আবেগ কিংবা গুজবের উপর ভিত্তি করে নয় বরং পাঠকের কাছে বস্তুনিষ্ঠ তথ্য উপস্থাপন করাই আমাদের অন্যতম লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। স্বতন্ত্র কিছু বৈশিষ্ট্যের কারণে ‘ক্রাইমর্বাতা' পাঠকের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। পূর্বের ন্যায় আগামী দিনের পথচলায়ও পাশে থেকে সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ প্রদানের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ ‘‘ক্রাইমর্বাতা ’ আপনাদেরই কথা বলে....। আমাদের ‘ক্রাইমর্বাতা পেজে' লাইক দিয়ে সাথে থাকার জন্য ধোন্যবাদ। সম্পাদক



চেয়ারম্যান : আলহাজ্ব তৈয়েবুর রহমান (জাহাঙ্গীর) -----------------সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com