August 11, 2019
ঈদযাত্রা নিয়ে কাদেরের বক্তব্য দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের সঙ্গে নিষ্ঠুর রসিকতা: রিজভী

ক্রাইমবার্ত রিপোট:  ঈদযাত্রা নিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য দুঃখ-দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের সঙ্গে নিষ্ঠুর রসিকতা বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, সেতুমন্ত্রী মানুষের দুঃখ-দুর্দশা জানবেন কীভাবে। তিনি তো জনগণের মন্ত্রী নন। তার হুইসেল বাজিয়ে রাস্তা ফাঁকা করে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত গাড়িতে করে সড়কে ছুটে বেড়ানোর অবাধ সুযোগ আছে। সুতরাং ঘণ্টার পর ঘন্টা যানজটে রাস্তায় আটকে থাকার দৃশ্য দেখে তার আনন্দ পাওয়ারই কথা।

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ৪০ টাকার ভাড়ার স্থলে ৪০০ টাকা, ৩০০ থেকে ৪০০ টাকার ভাড়া আদায় করা হয়েছে ১২০০ টাকা। এটা দেখার কেউ নেই। কোনো কোনো মহাসড়কে ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার যানজট। লঞ্চে তিল ধারণের ঠাঁই নেই। ফেরিঘাটে লম্বা লাইন। সকালের ট্রেন রাতে ছাড়ছে। পরিবার নিয়ে স্টেশন-রাস্তায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা মানুষ। কষ্টের সীমা নেই। অথচ সেতুমন্ত্রী বলছেন, এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক ও আনন্দঘন। অনির্বাচিত বলেই সেতুমন্ত্রীর মুখে এমন কথা মানায়। কারণ তিনি তো ভোটে নির্বাচিত নন। তার তো জনগণের প্রতি কোনো দায়বদ্ধতা নেই।

আওয়ামী লীগের কাজই হলো মানুষের দুঃখ-দুর্দশা নিয়ে হাসি-তামাশা করা বলেও মন্তব্য রিজভীর।

তিনি বলেন, দেশের কোটি মানুষের প্রত্যাশা ছিল ঈদের আগে মিথ্যা সাজানো মামলায় কারাবন্দি খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন। কিন্তু মধ্য রাতের ভোটে নির্বাচিত সরকার প্রধানের হুকুমে তাকে জামিন দেয়া হয়নি। তিনি গুরুতর অসুস্থ হলেও চিকিৎসা পাননি। ক্ষমতার মোহে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক কৃষ্টি-কালচার দেশ থেকে বিতাড়িত করে দিয়েছে। কিন্তু ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না, এই জুলুমের বিচার একদিন হবেই।

এসময় তিনি ঈদের দিনে দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেন। বলেন, ঈদুল আজহার দিন সোমবার দুপুর ১২ টায় দলের সিনিয়র নেতারা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা নাজমুল হক নান্নু, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ দফতর সম্পাদক বেলাল আহমেদ, মুনীর হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

More News


Thia is area 1

this is area2