সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯
এখনও অবরুদ্ধ কাশ্মীর উপত্যকা

ক্রাইমর্বাতা রিপোট: ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ধাপে ধাপে বিভিন্ন বিধিনিষেধ শিথিল করা হলেও সেখানকার পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি। বিগত ২৯ দিন ধরে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে আছে গোটা কাশ্মীর উপত্যকা।
কাশ্মীরে ৯২টি থানা এলাকা থেকে নিষেধাজ্ঞা তোলা হয়েছে বলে সরকারি মুখপাত্র রোহিত কানসাল জানিয়েছেন। ২৯টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জ চালু হয়েছে। উপত্যকায় ৪ হাজার স্কুল খুলেছে। পার্সটুডে।
তবে, সেখানকার সড়কে মানুষজনের তেমন দেখা মিলছে না। সরকারি পরিবহণ  শুরু হয়নি। স্কুল-কলেজ চালু হলেও কোনও ছাত্র-ছাত্রীকে পাঠাতে ভরসা পাচ্ছেন না অভিভাবকরা। জনবহুল এলাকায় কিছু বিক্রেতা পসরা নিয়ে বসলেও অধিকাংশ বাজার বন্ধ রয়েছে।
কেন্দ্রীয় সরকার গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে নেয়ার পরে ২৯ দিন পার হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত স্বাভাবিক ছন্দে ফেরেনি ভারতের ভূ-স্বর্গ। কতদিন নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে? কতদিন পরে মোবাইল-ইন্টারনেট পরিষেবা শুরু হবে? প্রশাসনের কাছে এসবের কোনও উত্তর নেই। সেখানকার রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীরা এখনও হয় গৃহবন্দি নয়তো কারাগারেই রাত কাটাচ্ছেন।
গত সোমবার সরকারি মুখপাত্র রোহিত কানসাল বলেন, কাশ্মীরের পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। পাথর নিক্ষেপের ঘটনা অনেক কমেছে। মানুষজন স্বাভাবিক কাজকর্ম শুরু করেছেন। কিন্তু সন্ত্রাসীদের ভয়ে দোকানপাট সম্পূর্ণ খুলছে না। রাজ্যে ৯৩ শতাংশ এলাকায় কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই। রোহিত কনসালের দাবি, দৈনিক ৩০০ ট্রাক ফল রাজ্যের বাইরে দেশের বিভিন্ন অংশে যাচ্ছে। গত ২০/২৫ দিনে দেড় লাখ টন আপেল রফতানি হয়েছে। বিগত ২৯ দিনে আড়াই লাখ রোগী হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আসেন। এসময় ২ হাজার বড় সার্জারি বা অপারেশন হয়েছে। এসব হাসপাতালে গর্ভবতী নারীরা ২ হাজার শিশুর জন্ম দিয়েছেন।
এদিকে, গত (রোববার) জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে পুঞ্চ সেক্টরে পাকিস্তানি বাহিনী গুলিবর্ষণ করলে গ্রেনেডিয়ার হেমরাজ জাট (২৩) নামে এক ভারতীয় সেনা জওয়ান নিহত হয়েছেন। এক কর্মকর্তা বলেন, পাকিস্তানি বাহিনী মর্টার ও ছোট অস্ত্রের সাহায্যে গুলিবর্ষণ করলে হেমরাজ জাট গুরুতর আহত হন। রাজস্থানের আলওয়ার জেলার বাসিন্দা হেমরাজ ২০১৭ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন। ভারতীয় সেনাবাহিনী ওই ঘটনার পাল্টা কঠোর জবাব দিয়েছে।
যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে দু’দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সীমান্তে পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণের মধ্যে গত (শুক্রবার) দু’দিনের জন্য কাশ্মীর উপত্যকা সফরে করেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তিনি এসময় নিয়ন্ত্রণরেখায় সেনাবাহিনীর যাবতীয় প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেন ও সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে সেখানকার পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন। সীমান্তে অগ্রবর্তী শিবির পরিদর্শনের সময় জেনারেল রাওয়াত সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা, কমান্ডার ও নিয়ন্ত্রণরেখায় মোতায়েন সেনা জওয়ানদের সঙ্গে কথা বলেন। সেনা প্রধান এসময় তাঁদেরকে উৎসাহিত করতে যেকোনো খারাপ কৃতকর্মের কঠোর জবাব দিতে বলার পাশাপাশি সেনা জওয়ানদের বীরত্বের প্রশংসা করেন। যদিও এর একদিন পরেই পাক বাহিনীর গুলীতে হেমরাজ জাট নামে এক ভারতীয় সেনা জওয়ান নিহত হলেন।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com