সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯
একটি মাত্র পুকুর তালার হাজার মানুষের গোসল
ইলিয়াস হোসেন, তালা: তালা উপজেলা পরিষদের একটি মাত্র পুকুর হাজার মানুষের গোসলের চাহিদা মিটাচ্ছে। স্থানীয় চাকুরীজীবি, হোটেল ব্যবসায়ী, মুদি দোকানদার, রাজ মিস্ত্রী, কাট মিস্ত্রীসহ বহু শ্রেণী পেশার মানুষ প্রতিনিয়ত গোসল ও সাংসারিক কাজে এ পুকুরের পানি ব্যবহার করছে। আশি সালের দিকে খনন করা হয় এ পুকুরটি। এই পুকুরে নারী ও পুরুষের গোসলের জন্য আলাদা দুইটি সিঁড়িঘাট রয়েছে। কিন্তু একই সাথে সিঁড়িঘাটে বহু মানুষ প্রয়োজন মিটাতে আসায় প্রতিনিয়ত ভিড় লেগেই থাকে।
তালা উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের সামনে পুকুরটি অবস্থিত। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এই পুকৃুরের সিঁড়িঘাটে বহু মানুষ এক সাথে গোসল করছেন। যা দেখে মনে হয় পুকুরে গোসলের প্রতিযোগিতা বা উৎসবতালার একটি মাত্র পুকুরে হাজার মানুষের গোসল চলছে। পুকুরের পাকা সিঁড়িতে বসে যার যেমন খুশি পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ করছেন। কেউ সাবান দিয়ে শরীর ঘষছেন, কেউ কাপড় কাচছেন, কেউ পুকুরের পানিতে ডোবা-ডুবি করছেন। এ যেন এক মহামিলন মেলা।

সাধারণ মানুষ এই পুকুরে গোসল করতে বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করার একটায় কারন, এখানে কোন বাইরের নোংরা আবর্জনা বা ময়লা পানি প্রবেশ করতে পারে না। পার্শ্ববর্তী কপোতাক্ষ নদের নব্যতা কমে যাওয়াই এবং পানি নোংরা থাকায় এই পুকুরের পানি দিয়ে গ্রামের মানুষেরা গোসলসহ সাংসারিক কাজ করতে বেশি আগ্রহী।
তালা সদরের বাসিন্দা শোভন হোসেন আসিব দৈনিক পত্রদূতকে বলেন, ‘আমাদের গ্রামে চাহিদা অনুপাতে নলকূপ থাকলেও তার পানি ব্যবহারে মানুষ স্বাচ্ছন্দবোধ করে না। কিছু কিছু টিউবওয়েল আছে, তাতে পানি কম উঠে। আবার কোনো কোনো টিউবওয়েলের পানি অতিমাত্রায় আয়রোন যুক্ত। যে কারনে পুকুরের পানি দিয়ে গোসল, কাপড় কাচা এবং অন্যান্য কাজে ব্যবহার করে আসছি আমরা।
রাম প্রসাদ রায় দুষ্টুু পেশায় সে একজন “নর সুন্দর” কারীগর। তিনি দৈনিক পত্রদূতকে জানান, প্রতিদিন সকাল, বিকাল ও রাত এই তিন বারই গোসল করে সে উজেলার এ পুকুরেই। তার চাওয়া রাতে গোসলের জন্য উভয় ঘাটে একটি করে লইট এবং উত্তর পাশের ঘাটের উপর একটি জামা-কাপাড় রাখার জায়গা করলে ভালো হয়।
তালা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন দৈনিক পত্রদূতকে বলেন, তালা বারুহইটি কাজীপাড়া মোবারাকপুর খাজরা রহিমাবাদসহ আশপাশের গ্রামের মানুষের গোসলের ব্যবস্থা না থাকায় আশ পাশের এলাকার বহু মানুষ এখানেই গোসল করে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com