বৃহস্পতিবার | ২১শে জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা জুন ২০২০ ইং | ১১ই শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী | গ্রীষ্মকাল

সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯
পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়ার পর নদীতে যুবলীগ নেতার লাশ

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ  সুনামগঞ্জের ছাতকে সাদা পোশাকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার পথে নদীতে লাফ দিয়ে নিখোঁজ হওয়ার ২০ ঘণ্টা পর আনোয়ার হোসেন নামে এক যুবলীগ নেতার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার বিকালে উপজেলার জাউয়া বাজার ও ছাতক সড়কের কাচা নদী থেকে ওই যুবলীগ নেতার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ ওই যুবলীগ নেতার সঙ্গী শাহাবুদ্দিনকে আটক করেছে।

নিহত আনোয়ার উপজেলার চরমহল্লা ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের মৃত আরশ আলী ছেলে।

নিহতের স্বজনদের দাবি, পুলিশ পরিচয়ে তুলে যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেনকে (৩০) পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শাহাবুদ্দীনের বরাত দিয়ে আনোয়ারের চাচা ও ইউপি সদস্য এখলাছুর রহমান যুগান্তরকে জানান, গত শনিবার রাতে জাউয়া বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে সাদা পোশাকের দুজন লোক নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে মোটরসাইকেল থামিয়ে আনোয়ারকে তাদের সঙ্গে পুলিশ ক্যাম্পে যেতে বলে। পায়ে হেঁটে কয়েক গজ যাওয়ার পর কাঁচা নদীর ব্রিজ থেকে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে নিখোঁজ হন আনোয়ার।

পরে দুজনের একজন পুলিশ পানিতে নেমে খোঁজাখুঁজি করে কোনো সন্ধান পাননি। এ সংবাদ পেয়ে তার আত্মীয়রা স্বজন জাউয়া বাজার পুলিশ ক্যাস্পে যোগাযোগ করেন। পুলিশ এমন কোনো ঘটনাটি অস্বীকার করলেও তারা নদীতে খুঁজে তাকে না পেয়ে রোববার সকালে থানা গিয়ে পুলিশকে ঘটনাটি জানান।

পরে বিকালে ছাতক থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল জাউয়াবাজার ছাতক সড়কের কাঁচা নদীতে ডুবুরি দল ব্যাপক অভিযান চালিয়ে তার লাশ উদ্ধার করেন পুলিশ।

ইউপি সদস্য এখলাছুর রহমান বলেন, আনোয়ারের ডান চোখের ওপরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়া মুখ ও নাক রক্তাক্ত। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

আমরা সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। দাফন শেষে সবার সঙ্গে পরামর্শ করে মামলা করা হবে বলেও জানান এখলাছ মেম্বার।

এ ঘটনার একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী শাহাবুদ্দিনকে পুলিশ তাদের জিম্মায় নিয়ে গেছে। শাহাবুদ্দিন একই গ্রামের মৃত আবদুল আছিরের ছেলে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ছাতক থানার ওসি গোলাম মোস্তফা  জানান, আনোয়ার দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ছিল। পুলিশ তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করলে সে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

সাদা পোশাকে পুলিশ আসামি ধরতেই পারে জানিয়ে ওসি বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি উধ্বর্তন অফিসারদের জানানো হয়েছে, উনারা এসে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

Facebook Comments
Please follow and like us:
720

ফেসবুকে আপডেট পেতে যুক্ত থাকুন

ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা চালাচ্ছে ‘ক্রাইমর্বাতা' বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় বাংলা অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সবাই অবগত, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বর্তমান সময়ে সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদ প্রাপ্তির অন্যতম উৎসে পরিণত হয়েছে। ২০১২ খ্রিস্টাব্দ থেকে ‘ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা করে চলেছে। আবেগ কিংবা গুজবের উপর ভিত্তি করে নয় বরং পাঠকের কাছে বস্তুনিষ্ঠ তথ্য উপস্থাপন করাই আমাদের অন্যতম লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। স্বতন্ত্র কিছু বৈশিষ্ট্যের কারণে ‘ক্রাইমর্বাতা' পাঠকের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। পূর্বের ন্যায় আগামী দিনের পথচলায়ও পাশে থেকে সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ প্রদানের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ ‘‘ক্রাইমর্বাতা ’ আপনাদেরই কথা বলে....। আমাদের ‘ক্রাইমর্বাতা পেজে' লাইক দিয়ে সাথে থাকার জন্য ধোন্যবাদ। সম্পাদক



চেয়ারম্যান : আলহাজ্ব তৈয়েবুর রহমান (জাহাঙ্গীর) -----------------সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com