ইতিহাসের প্রথমবার পূজার ছুটিতে হল বন্ধের নির্দেশ, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ
নিরাপত্তার অজুহাতে হঠাৎ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে ৪দিনের ছুটিতে হল বন্ধ রাখতে নোটিশ দিয়েছে কতৃপক্ষ। তবে ছাত্রলীগের চলমান দ্বন্দ্বের প্রভাবে ক্যাম্পাস অস্থিতিশীল হবার আশঙ্কায় বন্ধ হচ্ছে সকল হল। প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ ও ক্ষোভ জানিয়েছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এরই প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। হঠাৎ নেয়া এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন হাজার হাজার শিক্ষার্থী।

সূত্র মতে, অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আগামী ৬ থেকে ৯ই অক্টোবর পর্যন্ত শারদীয় দূর্গা পূজার ৪দিন ছুটি নির্ধারিত আছে। এর আগে ও পরে ৩-৪ এবং ১০-১১ তারিখ রয়েছে বিশ^বিদ্যালয়ের সাপ্তাহিক ছুটি। রবিবার বাদ যাওয়া মাঝের ৫ তারিখকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছেন ভিসি ড. রাশিদ আসকারী।
সব মিলিয়ে ৯ দিন বন্ধ থাকবে অ্যাকাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম। বিশ^বিদ্যালয়ে প্রায়ই ৩/৪ দিনের ছুটি থাকলেও বন্ধ হয় না কোন হল। তবে ইবি’র ইতিহাসে প্রথমবারের মত পূজার ছুটিকে কেন্দ্র করে সকল হল বন্ধ হচ্ছে এবার। বিশ^বিদ্যালয়ের চলমান ছাত্রলীগের দ্বন্দ্বকে পুজি করে ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির আশঙ্কায় প্রশাসন এ নির্দেশ দিয়েছে বলে প্রভোস্ট কাউন্সিলি সূত্র জানিয়েছে। এদিকে এ সিদ্ধান্তে বিপাকে পড়েছে পরীক্ষা চলমান শিক্ষার্থীরা। নির্দেশনা মতে হল খোলার পরের দিন (১২ই অক্টোবর) বিভিন্ন বিভাগে রয়েছে ১৬ টি শিক্ষাবর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। এছাড়া ১৩ই অক্টোবর ৭টি এবং ১৪ই অক্টোবর ৪ টি করে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। হল খোলার পরদিনই এসব পরীক্ষায় অংশ নেয়া কষ্ঠসাধ্য বলে অভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীরা। একই সাথে ৫ই অক্টোবর ভিসি’র দেয়া ছুটিতে ১১ টি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে বলে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অফিস নিশ্চিত করেছে। প্রশাসনের এমন খামখেয়ালি সিদ্ধান্তে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

প্রভোস্ট কাউন্সিলের সভাপতি ও শহীদ জিয়াউর রহমান হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. আকরাম হোসেন মজুমদার বলেন, ভিসি স্যার আমাকে হল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন। স্থানীয় ও শিক্ষার্থীদের সমস্যার কথা চিন্তা করে দীর্ঘ মেয়াদী মঙ্গলের জন্য হল বন্ধ করতে বলেন তিনি। পরে আমরা রোববার প্রভোস্ট কাউন্সিলের জরুরী সভা ডেকে হল বন্ধের নোটিশ দিয়েছি। আগামী ৩ থেকে ১১ই অক্টোবর পর্যন্ত সকল হল বন্ধ থাকবে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় হল বন্ধ হয়ে পরবর্তী ১১ই অক্টোবর সকাল ৯ টায় হল খুলে দেয়া হবে।

Check Also

আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে অবস্থান মূলত ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া : ড. মাসুদ

ষিতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং পরে বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য কেউ ভূমিকা রাখেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।