নভেম্বর ৩, ২০১৯
উড়ো চিঠি: সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পিকচার আর্কাইভিং মেশিন ক্রয়ে কোন দুর্নীতি হয়নি!

ক্রাইমর্বাতা রিপোর্ট:সাতক্ষীরা:: চাহিদা প্রাপ্তির পর ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে দরপত্রের মাধ্যমে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পিকচার আর্কাইভিং এন্ড কমুনিকেশন সিস্টেম মেশিনটি ক্রয় ও স্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। হাসপাতালের বাজার দর কমিটি কর্তৃক মেশিনটির প্রযুক্তিগত বিশেষায়ন ও মূল্যনির্ধারণ করা হয়। পরিচালক হাসপাতাল, মহাখালীর ব্যয় মঞ্জুরি ও প্রশাসনিক অনুমোদন গ্রহণপূর্বক দরপত্রের মাধ্যমে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উক্ত মেশিনটি ক্রয় করেন। শুক্রবার এশাধিক মেইল থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উক্ত তথ্য জানানো হয়। তবে, প্রেস বিজ্ঞপ্তির প্রেরকের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। উল্লেখ্য, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পিকচার আর্কাইভিং এন্ড কমুনিকেশন সিস্টেম মেশিনটি ক্রয়ে দুর্র্নীতির অভিযোগে গত ৩১ অক্টোবর সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শাহজাহানসগ ৫ জনের নামে মামলা করে দুদক। এনিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় খবর প্রকাশের পর এই প্রেস বিজ্ঞপ্তিটি পাঠানো হয়।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মেশিনটি যথাসময়ে সরবরাহের পর সার্ভে কমিটি নির্ধারিত মেশিনটির সার্ভে সম্পাদনপূর্বক প্রতিবেদন তত্ত্বাবধায়ক বরাবর পেশ করেন। সার্ভে প্রতিবেদন প্রাপ্তির পর ঠিকাদারের নিকট হতে দ্রুত ইনস্টলমেন্ট ও সাত কোটি টাকার জামানত স্বরূপ একটি পে-অর্ডার গ্রহণ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ঠিকাদারকে উক্ত মেশিনটির বিল পরিশোধ করেন। উল্লেখ্য, পরিপূর্ণ ইনস্টলমেন্টের পর, অর্থাৎ সফট ওয়্যারটির সংযোগের পর ঠিকাদার উক্ত পে-অর্ডারটি গ্রহণ করবেন। বর্তমানে মেশিনটি হাসপাতালে চালু অবস্থায় আছে এবং রোগীদের কল্যাণে যেমন, diagonistic, data and picture achieving ও অন্যান্য কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। মেশিনটি ও তার সার্ভার এবং সফট ওয়্যার বর্তমানে হাসপাতালের ৩১০ ও ৩১১ নম্বর কক্ষে সুরক্ষিত আছে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, দরপত্র ও ক্রয়ের ক্ষেত্রে বিভিন্ন পর্যায় ও কমিটির অনুমোদনের প্রয়োজন হয়। যেমন, ক্রয় কমিটি বা specification ও বাজারদর কমিটি, দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি, সর্বোপরি সার্ভে কমিটির সার্ভে প্রতিবেদন (মালামাল specification অনুযায়ী বুঝে পাওয়া) প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে তত্ত্বাবধায়ক এবং পরিচালকের একক সিদ্ধান্তে সম্ভব নয়। বিল পাশের ক্ষেত্রে ঠিকাদার কর্তৃক সরবরাহকৃত মালামালের চালান/সার্ভে রিপোর্টের প্রতিবেদন ব্যতিত স্থানীয় অফিস বিলটি পাশ বা অনুমোদন করেন না।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com