জানুয়ারি ১৬, ২০২০
সাতক্ষীরায় ক্ষেত পাহারা দিয়েও পিয়াজ চুরি বন্ধ হচ্ছে না

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ   পিয়াজ নিয়ে আলোচনা থামছেই না। এবার সাতক্ষীরার বিভিন্ন গ্রামে ফসলের মাঠ থেকেই চুরি হয়ে যাচ্ছে পিয়াজ। পুলিশ প্রশাসন পিয়াজ চুরি ঠেকাতে সামাজিক প্রতিরোধের ওপর জোর দিতে বললেন।
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দিগং গ্রামের ফসলের মাঠে রাত জেগে টর্চ নিয়ে পাহারা দিতে দেখা যায় এলাকার লোকজনকে। কারণ জানতে মাঠে গিয়ে জানা গেলো প্রতিদিন রাতে ক্ষেত থেকেই চুরি হয়ে যাচ্ছে পিয়াজ।
রাতে পাহারারত কৃষকপুত্র আশরাফুলের সাথে কথা বলে জানা যায়, তাদের এলাকা জুড়ে বর্তমানে পিয়াজ চুরির হিড়িক পড়েছে। পুরো ফসলী এলাকাতে তাদের পক্ষে পাহারা দেয়া সম্ভব না তাই তারা প্রতিদিন একেক পাশে পাহারা দিচ্ছে। যেদিন যে এলাকায় পাহারা দেয় চোরেরা সেদিন সেই এলাকায় চুরি না করে অন্য এলাকায় চুরি করছে।
জেলার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার এজাহার আলী বলেন, গ্রাম্য দফাদারদের সাধারণ মানুষ সমীহ করে চলে। সেই দফাদার হয়েও রেহাই পাননি তিনিও। তার ক্ষেতের সব পিয়াজ চুরি করে নিয়ে গেছে। এখন যেভাবে পাহারা দিতে হচ্ছে ফসলের মাঠে এরকম পাহারা এর আগে কখনই দিতে হয়নি তাদের। কিন্তু পিয়াজের দাম বাড়ার পরে ক্ষেত থেকে পিয়াজ চুরির ঘটনা ঘটে চলেছে। ফলে কৃষকরা অপরিপক্ক অবস্থায় পিয়াজ তুলে ফেলতে বাধ্য হচ্ছে।
পিয়াজ চাষী আবুল হোসেন ভুট্টো জানান, এবার পিয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ার পর পিয়াজের বীজের দামও বেড়েছে। ফলে কৃষক প্রথমেই পড়েছে এক বড় সংকটে তারপর আবার এই চুরি যাওয়াতে তাদের মাথায় হাত উঠে গেছে।
এভাবে পিয়াজ চাষী ছবুর দাই, নওশের আলী দাই, নজরুল দাই, শাহালম গাজী সাইদুল ইসলাম, সাত্তার গাজী সবার সাথে কথা বললে সবাই’ই তাদের পিয়াজের ক্ষেতে পেয়াজ চুরি হয়ে যাওয়ার কথা জানান। চুরি ঠেকাতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছে ক্ষতিগ্রস্থ সব কৃষক।
এ ব্যাপারে সাতক্ষীরার পুলিশ প্রশাসনের বিশেষ শাখার সহকারি পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলামের মুখোমুখি হলে তিনি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত আছেন জানিয়ে বলেন, ক্ষেতে পিয়াজ চুরি ঠেকাতে সম্মিলিত প্রতিরোধের উদ্যোগ নেয়া হবে। কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত করে দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেয়া হবে তিনি জানান।
ক্ষেত থেকে পিয়াজ চুরি ঠেকাতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা পিয়াজ চাষীরা দ্রুত পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতার পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থদের সরকারি সহযোগিতার বিষয়টি চিন্তায় আনার জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com