জানুয়ারি ২৬, ২০২০
সাতক্ষীরায় স্কুল-মাদ্রাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ   জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে
কুখরালী আহমাদীয়া দালিখ মাদরাসার স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন
সাতক্ষীরা পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কুখরালী আহমাদীয়া দালিখ মাদরাসা ছাত্র-ছাত্রীদের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন শাহিনুর রহমান, সহ-নির্বাচন কমিশনার রাবেয়া খাতুন ও আছিয়া খাতুন। এ মাদরাসায় মোট ১৫জন প্রার্থী বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। ভোটার সংখ্যা ছিলো ২৭১ জন। ভোট গ্রহণ পর্যবেক্ষণ করেন মাদরাসার সুপার জাহাঙ্গীর মোর্তজা রেজা, সহকারী সুপার আব্দুল আলীম, সহকারী শিক্ষক মুজিবুর রহমান, আবু তালেব, শেখ শহীদুল ইসলাম, মোহাদ্দিছুর রহমান, প্রবীণ শিক্ষক কামরুল হাসান প্রমুখ।
নকিপুর পাইলট স্কুলের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন
শ্যামনগর প্রতিনিধি: নকিপুর সরকারি এইচসি পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে ৯ম শ্রেনীর ছাত্র শেখ রমিউজ্জামান রাজন সর্বোচ্চ ২১০ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছে। সে বংশীপুর চিংড়ী বনিক সমিতির সভাপতি শেখ কামরুজ্জামান কচির পুত্র। নির্বাচনে বিজয়ীরা হলো-শেখ রমিউজ্জামান রাজন (৯ম শ্রেণি) সর্বোচ্চ ২১০ ভোট, রাকিবুল আলম (১০ম শ্রেণি) ২০২ ভোট, ৮ম শ্রেণির জিৎ মুখার্জী ১৩৯ ভোট, আফিয়া তাবাচ্ছুম ১০৬ ভোট, মুরাদ হাসান ৭৩ ভোট, ৭ম শ্রেণির সাদ বিন আশিক ১২০ ভোট, সাম্য রায় চৌধুরী ১৩৭ ভোট, ৬ষ্ঠ শ্রেণির সানিয়া আক্তার মুন্নী ৩৬ ভোট। নকিপুর পাইলট গার্লস স্কুলের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন
শ্যামনগর প্রতিনিধি: নকিপুর পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে ১০ম শ্রেণির ছাত্রী লামিয়া তাহসীন তৌশী সর্বোচ্চ ৩৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। একই নির্বচনে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী নুদরাত নাওয়ার ইনা ৩২১ ভোট পেয়েও নির্বাচিত হয়েছে। তারা শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাবেক উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার শেখ আফজালুর রহমানের কন্যা। নির্বাচনে বিজয়ী অন্যান্যরা হলো-সাওদা বিনতে রেজা (১০ম শ্রেণি) ২৪৩ ভোট, নাদিয়াতুল আক্তার(৯ম শ্রেণি) ২১৫ ভোট, মনিকা মেহেজাবীন মিথিলা ৩০৮ ভোট, ৮ম শ্রেণি তাসনিয়া আক্তার তিন্নি ৩৩৫ ভোট, ৭ম শ্রেণির জেবা তাসনিয়া ২৪৯ ভোট, জয়ত্রী বিশ্বাস জয়া ২৪১ ভোট পায়।

ব্রহ্মরাজপুর গার্লস স্কুলে স্টুডেন্টস্ কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন
উৎসবমূখর পরিবেশে সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ডিবি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্টস্ কেবিনেট নির্বাচন-২০২০। শনিবার নির্বাচন উপলক্ষে স্কুল ক্যাম্পাস পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে যায়। নির্বাচনে ৩২৪ জন ভোটারের মধ্যে ২৮০ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ১১জন প্রার্থী এতে অংশ নেয়। সকাল ৯টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোট গ্রহণ। ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল প্রকাশ করেন নির্বাচন কমিশন। এতে নির্বাচিতরা হলেন ষষ্ঠ শ্রেণির দীপ্তি মন্ডল, ফারজানা ফায়িজা, সপ্তম শ্রেণির জেসমিন সুলতানা, অষ্টম শ্রেণির তাসনিম আক্তার নিপা, নবম শ্রেণির পূজা নন্দী, সুমাইয়া খাতুন ও দশম শ্রেণির রুবিনা এবং আশুরা খাতুন। নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন দশম শ্রেণির রাবেয়া খাতুন মুন্নি, নবম শ্রেণির তন্বী খাতুন ও সপ্তম শ্রেণির মাহিরা আফরিন। প্রিজাইডিং অফিসার ছিলেন সপ্তম শ্রেণির তামান্না খাতুন। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধান ছিলেন দশম শ্রেণির লতা মন্ডল। নির্বাচনে পাঁচজন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও দশজন পোলিং অফিসার নিয়োগ করা হয়। নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন সদর উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মো. আবুল হোসেন, স্কুলের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছোবহান, প্রধান শিক্ষক মো. এমাদুল ইসলাম, অভিভাবক সদস্য নজর উদ্দীন সরদারসহ শিক্ষকরা। প্রেসবিজ্ঞপ্তি
আশাশুনি বালিকা বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন
আশাশুনি ব্যুরো: আশাশুনির মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহন ও পরিচালনায় প্রত্যেক শ্রেণিতে ১ জন করে এবং অতিরিক্ত (সকল শ্রেণিতে উন্মুক্ত) ৩ জন মোট ৮টি পদের জন্য ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচিতরা হলো, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে কেয়া সুলতানা, ৭ম শ্রেণিতে সাবিনা ইয়াছমিন, ৮ম শ্রেণিতে হিরা সুলতানা, ৯ম শ্রেণিতে মেহরুবা তানজুম মোহনা, ১০ম শ্রেণিতে সাদিয়া সুলতানা এবং উন্মুক্ত ৩ জন হলো, সুরাইয়া সুলতানা ৭ম শ্রেণি, প্রেমা দাশ ৬ষ্ঠ ও আশামনি ৭ম শ্রেণি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিল আসমা সুলতানা জেরিন (১০ শ্রেণি), সহকারী নির্বাচন কমিশনার সাদিয়া দিলশাদ মহুয়া (১০ম) ও ঈষিকা মন্ডল (৭ম)। পোলিং অফিসার জাকিয়া সুলতানা (১০ম) ও শাহরিয়া (৯ম)।
নবারুণ গার্লস স্কুলে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন
নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা নবারুণ উচ্চ বালিকা বিদ্যায়ের স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০২০ সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টা থেকে হয়ে শুরু হয়ে চলে দুপুর ২টা পর্যন্ত। স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে অংশ নেয় ৬ ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে ১৯ জন, ৭ম শ্রেণি ১৯ জন, ৮ম শ্রেণির ৯ জন, ৯ম শ্রেণির ১০ জন, ও দশম শ্রেণির ১০ জন মোট ৬৭ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে। ভোট গণনা শেষে ১০ শ্রেণির অসিয়া সুলতানা আনিকা ২৫৪ ভোট পেয়ে প্রথম। ৯ম শ্রেণির সোনালী খুসবু ২১৪ ভোট পেয়ে ২য় , ৯ম শ্রেণির মাসুমা আক্তার রশ্নি ২১২ ভোট পেয়ে ৩য়, সপ্তম শ্রেণি আঁখি সককার ২০০ ভোট পেয়ে ৪র্থ, ১০ম শ্রেণি রোকাইয়া সুলতানা ১৯২ ভোট পেয়ে ৫ম, অষ্টম শ্রেণি মোহনা ইয়াসমিন ১৩৩ ভোট পেয়ে ৬ষ্ঠ, অষ্টম শ্রেণি শারমিন আক্তার খুশি ১২২ ভোট পেয়ে ৭ম, ৬ষ্ঠ শ্রেণি রুবিনা আক্তার রুমকী ৬০ ভোট পেয়ে ৮ম স্থান অধিকার করেন। মোট ৮৭৬ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৮০৬ জন ভোট প্রদান করেন।
কালিগঞ্জের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন
বিশেষ প্রতিনিধি: সারা বাংলাদেশের ন্যায় কালিগঞ্জের সকল বিদ্যালয়ে উৎসবমূখর পরিবেশে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলার বড়শিমলা কারবালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গাজী মিজানূর রহমান জানান, শিশুকাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকান্ডে শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ নিশ্চিতকরণের জন্য মাধ্যমিক ও মাদরাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতি বছর স্টুডেন্ট কেবিনেট গঠিত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় ২০২০ সালে বড়শিমলা কারবালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে ৮ টি পদে মোট ১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এরমধ্যে ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী শেখ হাফিজ ও মনুজান, ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী তামান্না জান্নাত, ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাফিজা খাতুন ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মো. ফরহাদ হাসান ও রচনা সরকার এবং ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাবেয়া খাতুন ও মাছুমা খাতুন নির্বাচিত হয়। মোট ৩১৮ জন ভোটারের মধ্যে ২৯৫ জন ভোটার ভোট প্রদান করেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন ১০ম শ্রেণির ছাত্রী মারজুনা খাতুন, নির্বাচন কমিশনার যথাক্রমে ৯ম শ্রেণির ছাত্র জীবন সরকার ও ৮ম শ্রেণির ছাত্র তামিম হাসান তুহিন। প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ১০ম শ্রেণির ছাত্রী শিফা সুলতানা।
সরকারি কালিগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়: শনিবার বিকেল ৪ ঘটিকায় আনুষ্ঠানিক ভাবে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. ওয়াজেদ আলী ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে মোট ১৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচনে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার টুকটুকি ৩০১ ভোট পেয়ে ১ম, ৯ম শ্রেণির ছাত্র তৌফিক আহম্মেদ দ্বীপ ২৫৭ ভোট পেয়ে ২য়, ৮ম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত জাহান মোহনা ২১৮ ভোট পেয়ে ৩য়, ৭ম শ্রেণির ছাত্র মাহী বিন মাকসুদ ২০৫ ভোট পেয়ে ৪র্থ, কারিগরি বিভাগের ৯ম শ্রেণির ছাত্র সিজাব হোসেন স্বাধীন ১৮২ ভোট পেয়ে ৫ম স্থান অধিকার করে। আর সর্বোচ্চ ভোটাধিকারের ভিত্তিতে বাকি তিনজন নির্বাচিত হন। এরা হলেন ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাদিত কবির ওশান ২৫১ ভোট পেয়ে ৬ষ্ঠ, ৯ম শ্রেণির ছাত্রী কিবতীয়া আলম পিউলী ২৪৩ ভোট পেয়ে ৭ম, ৮ম শ্রেণির ছাত্র হাসিবুল হাসান পলক ১৯২ ভোট পেয়ে ৮ম স্থান অর্জন করে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com