বৃহস্পতিবার | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৮শে মে ২০২০ ইং | ৪ঠা শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী | গ্রীষ্মকাল

মে ২, ২০২০
অবশেষে ‘জনসমক্ষে এলেন’ কিম জং-উন

ক্রাইমর্বাতা রিপোট:   নানা জল্পনা, গুজব, কানকথার পর অবশেষে ‘জনসমক্ষে এসেছেন’ উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন। রাষ্ট্রীয় মিডিয়া বলেছে, প্রায় তিন সপ্তাহ পর তিনি একটি সার কারখানায় প্রতিযোগিতায় উপস্থিত হয়েছিলেন। আজ শনিবার খুব সকালে রাষ্ট্রীয় মিডিয়া কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) রিপোর্ট করেছে, রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের কাছে সানচেওন-এ একটি সার কারখানায় একটি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন তিনি। এ সময় তার পাশে ছিলেন বহুল আলোচিত তার ছোটবোন কিম ইয়ো জং। কেসিএনএ বলেছে, শুক্রবারের ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে কিম জং উন ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এ সময় সেখানে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা ‘বজ্রনিনাদে হুররে ধ্বনিতে ফেটে পড়েন’। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। এতে বলা হয়, কিম জং উনের ওই সময়কার বেশ কিছু ছবি প্রকাশ পেয়েছে।

তাতে তাকে হাস্যোজ¦ল দেখা যাচ্ছে। সহযোগীসহ ওই প্লান্ট সফরে গিয়েছিলেন তিনি। তাদের সঙ্গে তাকে এ সময় কথা বলতে দেখা যায়। সরকারি পত্রিকা রোডং সিনমুন-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এসব ছবির যথার্থতা যাচাই করা যায় নি বলে জানাচ্ছে আল জাজিরা।  কেসিএনএ’র রিপোর্ট সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, এখনও আমি এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করবো না।
গত ১৫ই এপ্রিল ছিল উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও কিম জং উনের দাদা কিম ইল সাং-এর জন্মদিন। এদিন রাষ্ট্রীয়ভাবে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে জাতীয় ছুটি হিসেবে পালন করা হয়। আয়োজন করা হয় বড় অনুষ্ঠান। তাতে ক্ষমতাসীন নেতার উপস্থিতি একরকম বাধ্যতামূলক পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে। কিন্তু ২০১১ সালে দেশের ক্ষমতায় আসার পর এবারই প্রথম ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেন নি কিম জং উন। কেন তিনি যোগ দেন নি সে বিষয়ে রাষ্ট্রীয় কোনো পর্যায় থেকে, কোনো সূত্র থেকে কিছুই বলা হয় নি। তারপর থেকে প্রকাশ্যে তাকে আর দেখা যায় নি। ফলে স্বাভাবিক কারণেই তিনি কোথায়, বেঁচে আছেন নাকি মারা গেছেন- তা নিয়ে তীব্র কৌতুহল সারা বিশ্বে। এরই মধ্যে অনির্ভরশীল সূত্রগুলো প্রকাশ করে যে, তিনি মারা গেছেন। কেউ কেউ বলেন, তার হার্টের অপারেশন করা হয়েছে। এরপর তার অবস্থার অবনতি হয়েছে। তাকে চিকিৎসার জন্য প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে চীন। এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত দৃশ্যত এক অন্ধকারের মধ্যে আছেন বিশ^বাসী। কিন্তু কেসিএনএ’র আজকের ওই রিপোর্ট বাদে আর কোনো তথ্যই প্রকাশ করা হয় নি। এরই মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি পর্যায় থেকে দাবি করা হয়েছিল যে, কিম জং উন জীবিত আছেন এবং ভাল আছেন। ওদিকে স্যাটেলাইটে ধারণ করা ছবিতে কিমের ব্যবহৃত একটি স্পেশাল ট্রেন এবং একটি বোটের উপস্থিতি ধরা পড়ে। তাতে ধারণা করা হয়, তিনি অবকাশ যাপনের শহর ওনসানে অবস্থান করছেন। কিন্তু এটা শুধু ধারণাই। এর পক্ষে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই।

Facebook Comments
Please follow and like us:
720

ফেসবুকে আপডেট পেতে যুক্ত থাকুন

ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা চালাচ্ছে ‘ক্রাইমর্বাতা' বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় বাংলা অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সবাই অবগত, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বর্তমান সময়ে সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদ প্রাপ্তির অন্যতম উৎসে পরিণত হয়েছে। ২০১২ খ্রিস্টাব্দ থেকে ‘ক্রাইমর্বাতা ’ সর্বশ্রেণির পাঠকের সংবাদের ক্ষুধা নিবারণে যথাসাধ্য চেষ্টা করে চলেছে। আবেগ কিংবা গুজবের উপর ভিত্তি করে নয় বরং পাঠকের কাছে বস্তুনিষ্ঠ তথ্য উপস্থাপন করাই আমাদের অন্যতম লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। স্বতন্ত্র কিছু বৈশিষ্ট্যের কারণে ‘ক্রাইমর্বাতা' পাঠকের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। পূর্বের ন্যায় আগামী দিনের পথচলায়ও পাশে থেকে সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ প্রদানের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ ‘‘ক্রাইমর্বাতা ’ আপনাদেরই কথা বলে....। আমাদের ‘ক্রাইমর্বাতা পেজে' লাইক দিয়ে সাথে থাকার জন্য ধোন্যবাদ। সম্পাদক



চেয়ারম্যান : আলহাজ্ব তৈয়েবুর রহমান (জাহাঙ্গীর) -----------------সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com