অবৈধ দখলদারদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ যশোর সদরের বসুন্দিয়া’র জনসাধারণ

মোঃ রাসেল হোসেন, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি, সদর উপজেলা, যশোর্ \ অবৈধ দখলদারদের খামখেয়ালীপনায় ক্রমেই সংকীর্ণ হয়ে পড়ছে যশোরের কোতয়ালীানাধীন মিনি শিল্পাঞ্চল খ্যাত বসুন্দিয়া মোড় থেকে নড়াইলগামী সড়কটি। যার দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বিভিন্ন যানবাহনের পাশাপাশি স্থানীয় জনসাধরনকে। প্রায়ই ঘটছে ছোট-খাটো দুর্ঘটনা। তবুও থেমে নেই দখলদারদের দৌরাত্ম।
খুলনা থেকে ছেড়ে আসা নড়াইলের কালনা অভিমুখী যাত্রীবাহী বাসের পাশাপাশি পণ্যবাহী ট্রাক, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, ইজিবাইক, নসিমন, ইঞ্জিনচালিত ভ্যান, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন বসুন্দিয়া মোড় হয়ে বাঘারপাড়া, নড়াইলসহ অন্যান্য স্থানে চলাচলের একমাত্র সড়ক এটি। গত কয়েক বছর ধরে এই সড়কে যানবাহন চলাচলের পরিমান অনেকাংশে বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি এই সড়কটি ভায়া সড়ক হিসেবে ব্যবহৃত হওয়ায় ব্যস্ততম যশোর-খুলনা মহাসড়কের বসুন্দিয়া মোড় বাজারে প্রতিনিয়ত যানজট লেগেই থাকে। যানজটের অন্যতম কারন হিসেবে দেখা গেছে, এখানকার ব্যবসায়ীরা তাদের দোকানঘরগুলি সম্প্রসারণ করতে করতে ক্রমেই সড়কের দিকে ধাবিত হচ্ছে। অনেক ব্যবসায়ী তাদের দোকানঘরের সামনে টোং বা চাল দিয়ে ইতিমধ্যে পাকা সড়ক পর্যন্ত এগিয়েও নিয়েছে। এই সড়কে আলফা টোব্যাকো ম্যাঃ কোঃ লিঃ এর প্রাচীর ঘেষে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে দখল করে গড়ে উঠেছে অনেকগুলো স্থাপনা। জায়গা স্বল্পতার কারণে বসুন্দিয়া মোড় ও বসুন্দিয়া বাজারে রাস্তার উপরে পণ্য রেখে কেনা-বেঁচা করতেও দেখা যায়। এছাড়া এই সড়কের উপর যত্রতত্র অপেক্ষমান ভ্যান, ইজিবাইক, মোটর সাইকেলের কারণেও ভোগান্তীর শিকার হন জনসাধারন। এই অঞ্চলে অনেকগুলো শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠায় বসুন্দিয়া মোড় বাজারটিতে জনসমাগমও লেগে থাকে সারাক্ষণ। আবার বাসস্ট্যান্ড লাগোয়া ভ্যানস্ট্যান্ডটি গড়ে উঠেছে প্রধান সড়কের উপরেই। এই সড়কে চলাচলরত জনসাধারন বাধ্য হয়েই মূল সড়কের উপর দিয়ে চলাচলের পাশাপাশি তাদের সাইকেল, মোটর সাইকেল প্রভৃতি সড়কের উপর রেখে দেন। আর এভাবেই সৃষ্টি হয় যানজটের। বিশেষ করে বসুন্দিয়া মোড় বাজারের দোকানীদের অত্যাচারে নাজেহাল হয়ে পড়েছে পথচারীরা। তাদের দখলদারীত্বে মূল সড়ক দিয়ে চলাচলের কারণে নিয়মিত ঘটছে ছোট-খাটো দুর্ঘটনা। অনেক সময় মূল সড়কের পাশে ভ্যান, ইজিবাইক রাখলে দোকানীরা তাদের সাথে করে দুর্ব্যবহার। সব মিলিয়ে সড়ক লাগোয়া অবৈধ দখলদার ব্যবসায়ীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এই এলাকার পথচারীরা। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ইতোপূর্বে একাধিকবার এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলেও কিছুদিনের মধ্যে তা আবার পূর্বাবস্থায় ফিরে যাওয়ায় জনসাধারণের ভোগান্তির অন্ত নেই। স্থানীয় সচেতন মহল এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

Check Also

সংবাদপত্র ও টেলিভিশন এখন আর গণমানুষের কথা বলতে পারছে না -রুহুল আমিন গাজী

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা : বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী বলেন, সাংবাদিকতা পেশা একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *