বোমা – লাঠি – জলকামান-কাঁদানে গ্যাস বিজেপির নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র কলকাতা

বিজেপি জাতীয় যুব মোর্চার নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার  দুপুরে কলকাতার একাংশ কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়।  মুহুর্মুহু বোমাবাজি হয়। পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয় হাওড়া ময়দান,  হেস্টিংস, হাওড়া ব্রিজ ও সাঁত্রাগাছিতে।  জলকামান ব্যবহৃত হয়, চলে কাঁদানে গ্যাস। হাওড়ায় এক বিজেপি বিক্ষোভকারীর কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় একটি আগ্নেয়াস্ত্র।  বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। বিজেপির পাল্টা অভিযোগ,  তৃণমূল আশ্রিত সমাজবিরোধীরা বোমাবাজি করেছে।  স্যানিটাইজেশন করার  জন্য নবান্ন এদিন বন্ধ ছিল।  বিজেপি নেতাদের দাবি,  বিজেপির ভয়ে মমতা নবান্ন ছেড়ে পালিয়েছেন।  ছমাস পরে বাংলা ছেড়ে পালাবেন।  বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন,  পুলিশ বিনা প্ররোচনায় বিজেপি কর্মীদের মিছিলের ওপর লাঠি চালিয়েছে।  জলকামান ছুঁড়েছে,  টিয়ার গ্যাসিং  করেছে।  তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের পুরমন্ত্রী ববি হাকিম বলেন, বিজেপি কোনও রাজনৈতিক দল নয়।  ওরা সন্ত্রাসবাদী দল।  বোমা – বন্দুক নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দল আন্দোলনে আসে না।  সন্ত্রাস করবে বলেই বিজেপি এসেছিল।

অতিমারির আবহে দীর্ঘদিন পরে কলকাতায় একটি বড়মাপের আন্দোলন হল।  প্রচার এর আলো যে বিজেপি টানলো তা অনস্বীকার্য।

Check Also

আগামী বছর ঢাকায় আসতে পারেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান

আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ডি-৮ শীর্ষ সম্মেলন বা মুজিববর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তুরস্কের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *