স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সদর থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি: তুচ্ছ ঘটনায় সাবেক স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় এজহার করেছেন ব্রহ্মরাজপুরের নজরউদ্দীন সরদারের কন্যা রোজিনা খাতুন (৪০)।

এজহার সূত্রে জানা যায়, বালুইগাছা শেখ পাড়ার মৃত শেখ আইনাল হকের ছেলে শেখ রফিকুল ইসলামের সাথে ২১ বছর পূর্বে রোজিনা খাতুনের বিবাহ হয়। বিবাহের পর তাদের দুটি সন্তানও হয়। প্রথম সন্তানের নাম রুমা সুলতানা এবং দ্বিতীয় সন্তানের নাম তানভীর। সাংসারিক জীবনে রোজিনা খাতুনের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের কারণে ৯ বছর পূর্বে রোজিনা খাতুন রফিকুল ইসলামকে তালাক প্রদান করেন। তালাক প্রদানের পর রোজিনা খাতুন তার পিতার বাড়িতে বসবাস করতো এবং স্থানীয় শালিশির মাধ্যমে সন্তানদের প্রতিমাসে খরচ বহনের সিদ্ধান্ত হয়। এভাবে কিছুদিন তিনি খরচ দেন। বর্তমানে রফিকুল ইসলামের ঔরষজাত কন্যা রুমা সুলতানাকে বিবাহ দিয়েছি।

বিবাহ দেওয়ার পর কন্যার সংসারে কিছু জিনিসপত্র কিনে দেওয়ার জন্য টাকার প্রয়োজন বিধায় গত ১৯ তারিখে বিকালে রোজিনা খাতুন রফিকুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে কন্যার বিষয়ে আলাপ আলোচনা করতে যান। এসময় রফিকুল ইসলামের বর্তমান স্ত্রী সাবিনা খাতুন রোজিনা খাতুনকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। একপর্যায় রফিকুল ইসলাম রোজিনা খাতুনকে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার খুনতি দিয়ে বাম চোখের উপর আঘাত করে। এসময় রোজিনা খাতুন মাটিতে পড়ে গেলে সাবিনা খাতুন মুখের ভিতর কাপড় দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে এবং রোজিনা খাতুনের গলায় থাকা ১টি সোনার চেইন ছিনিয়ে নেয়। এব্যাপারে সদর থানা পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেছেন রোজিনা খাতুন।

Check Also

১৬ জানুয়ারি ৬১ পৌরসভার নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে ও সাতক্ষীরার নাম নেই

ক্রাইমবাতা রিপোট: স্থানীয় সরকারপর্যায়ে নির্বাচনের আমেজ শুরু হয়েছে। আগামী ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় দফায় দেশের ৬১টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *