আড়াই বছর পর কঙ্কালের ডিএনএ থেকে রহস্য উদ্ঘাটন

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় অজ্ঞাত কঙ্কাল উদ্ধারের আড়াই বছর পর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করা হয়েছে। এ হত্যায় জড়িত দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই আসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার আসামিরা হলো- রাসেল ওরফে নাসির (২৮) ও মিরাজ (৩১)। নাসির কাঁঠালিয়া উপজেলার মরিচবুনিয়া গ্রামের মৃত শামসুল হকের ছেলে এবং মিরাজ পাটিখালঘাটা গ্রামের শাহজাহান জমাদ্দারের ছেলে।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদের গ্রেফতার করা হলেও তদন্তের স্বার্থে রোববার রাতে বিষয়টি সাংবাদিকের জানানো হয়।

এসআই আসলাম জানান, ২০১৮ সালের ১৪ জুলাই উপজেলার মিরুখালী ডিগ্রি কলেজের পশ্চিম দিকে রাস্তার পাশে কৃষক আবু সালেহর পরিত্যক্ত ডোবা থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির একটি কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। পরে কঙ্কালের ডিএনএ পরীক্ষায় পার্শ্ববর্তী ঝালকাঠি জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলার মরিচবুনিয়া এলাকার অপহৃত জিয়া নামে এক যুবকের পরিচয় শনাক্ত হয়।

এ ঘটনায় নিখোঁজ জিয়ার ভাই জুয়েল হাওলাদার বাদী হয়ে অপহরণ করে হত্যা ও লাশ গুমের অভিযোগ এনে আটজন নামীয় ও অজ্ঞাত চারজনকে আসামি করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা করেন। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে মাধ্যমে গত বৃহস্পতিবার ঝালকাঠি এলাকা থেকে এজাহারভুক্ত আসামি ও মূল ঘাতক রাসেল ওরফে নাসির ও মিরাজকে গ্রেফতার করা হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, জমি ও পূর্ব বিরোধের জের ধরে আসামিরা জিয়াকে অপহরণ করে মঠবাড়িয়া এলাকায় এনে হত্যা করে। গ্রেফতার দুই আসামিকে আদালতে সোপর্দ করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

Check Also

কে সঠিক : নূরুল হুদা, না মাহবুব তালুকদার?

ড. বদিউল আলম মজুমদার : ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ উপলক্ষ্যে ২ মার্চ ২০২১ আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।