সাতক্ষীরায় স্বামীর গোপানাঙ্গ কাটল স্ত্রী

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি: অন্য নারীর সাথে পরকিয়া সম্পর্কের সন্দেহের জের ধরে স্বামীর গোপানাঙ্গ কাটার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর স্ত্রী শারমিন বেগম(২৩) আটক করেছে পুলিশ। স্বামী মেহেদি হাসান(২৮) সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

মেহেদি হাসান পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে। মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে সাতক্ষীরা জেলার পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম জানায়, ৭বছর আগে ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে মেহেদির সাথে বকশিয়া গ্রামের সাজ্জাদ মোড়ল শারমিনের প্রেমের সম্পর্কের সুত্র ধরে বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের ঘরে ৪ বছর বয়সী পুত্র সন্তান আছে। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে প্রায় অশান্তি হত। গতকাল সন্ধ্যায় স্ত্রী তাকে কৌশালে একসাথে ঘুমানোর জন্য বলে। অতপর রাতে ঘুমিয়ে পড়লে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামীর গোপানাঙ্গ কোটে নেয় শারমিন।

পাটকেলঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) বাবলুর রহমান খান জানান, ঘটনার পর শারমিনকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ছেলের পিতা নওয়াব আলী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

Check Also

আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে অবস্থান মূলত ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া : ড. মাসুদ

ষিতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং পরে বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য কেউ ভূমিকা রাখেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।