এপ্রিল মাসে বন্দুকযুদ্বে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২ সময়ে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা পর্যালোচনায় দেখা যায়, বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড বা বন্দুকযুদ্বে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নেওয়ার ঘটনাসহ হেফাজতে মৃত্যু, নির্য্যাতন ও হয়রানি অনেকাংশে বেড়েছে, বেড়েছে কারা হেফাজতে মৃত্যু,  যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। অপর দিকে গণপিটুনীর মত আইন হাতে তুলে নেয়ার ঘটনাও বৃদ্ধি পেয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্যের তুলনামূলক বিশ্লেষণে দেখা যায় যে, ধর্ষণসহ নারী ও শিশুদের উপর সহিংসতার ঘটনাও বেড়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে সাধারণ নাগরিকদের বস্তুনিষ্ঠ ও স্বাধীন চিন্তা, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা এবং মতামত প্রকাশের সংবিধানপ্রদত্ত অধিকার প্রয়োগের পথ রুদ্ধ করার মত ঘটনা অব্যাহত রয়েছে। সীমান্তে হতাহতের মতো ঘটনাও বন্ধ হয়নি। এছাড়া নানা অজুহাতে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেই চলেছে।  মানবাধিকার লংঘনের এই ঘটনাগুলো ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ) গভীর ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করছে।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক বিচার বহির্ভুত হত্যা ও বন্দুকযুদ্ধ

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২এ বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড বা বন্দুকযুদ্ধের ৭টি ঘটনা ঘটেছে।দুইটিতে কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও নৌপুলিশের গুলিতে ১জন ও র‌্যাবের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ২জন নিহত হয়। র‌্যাবের সদস্যসহ গুলিবিদ্ধ ছয়জন আহত হন ও অপর ঘটনা গুলোতে ১৩জনকে আটক করা হয়েছে।

১৬ এপ্রিল, ২০২২ দিবাগত রাত ২টার সময় কুমিল্লার গোলাবাড়ি সীমান্তে সাংবাদিক মহিউদ্দিন সরকার নাইম হত্যা-মামলার প্রধান আসামি রাজু র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। র‌্যাবের দাবি রাজু একাধিক মাদক মামলার আসামি ছিল। ২০ এপ্রিল, ২০২২ দিবাগত রাত ২টার দিকে সিংগাইরের চারিগ্রাম ইউনিয়নের আলমমারা গ্রামে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কাওসার হোসেন (৪৫) নামে এক যুবক নিহত হন। র‌্যাবের দাবি, কাওসার ডাকাত দলের সর্দার ছিলেন। ৭ এপ্রিল, ২০২২ রাত সাড়ে ৯টায় কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার লালবাগ এলাকায় সাদা পোশাকে থাকা র‌্যাব সদস্যদের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছ।

এতে এক র‌্যাব সদস্যসহ আহত হয়েছেন ছয়জন। পরে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ১৯ এপ্রিল, ২০২২ রাতে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরক্লার্ক এলাকাতে শিশু তাসপিয়া হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেফতারে উদ্দেশ্যে র‌্যাব-১১’র একটি অভিযানকালে টের পেয়ে রিমন ও তাঁর সহযোগীরা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। কিছুক্ষণ গোলাগুলির পর র‌্যাব চারদিক থেকে ঘেরাও করে শিশু তাসপিয়া হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. রিমনসহ পাঁচকে অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার করে। গোলাগুলিতে কেউ হতাহত হয়েছেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

২ এপ্রিল, ২০২২ ভোরে টেকনাফের নাফ নদীর জালিয়ার দ্বীপ জলসীমা এলাকায় মিয়ানমার থেকে মাদকের একটি চালান আসার খবরে বিজিবির দুইটি দল ঘটনাস্থলে অভিযান চালালে হস্তচালিত একটি নৌকা জলসীমার শূণ্যরেখা অতিক্রম করার সময় বিজিবির সদস্যরা থামার জন্য নির্দেশ দেন। এ সময় নৌকাটি মিয়ানমারের সীমান্তের দিকে পালানোর চেষ্টা করলে বিজিবির সদস্যরা নৌকাটি লক্ষ্য করে গুলি করে। একজন লাফ দিয়ে মিয়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়। পরে পাচারকাজে ব্যবহৃত নৌকাটি জব্দ করে দুইজনকে আটক করা হয়। ৯ এপ্রিল দিবাগত রাতে মেঘনা নদীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরার সময় লক্ষ্মীপুর নৌ পুলিশের একটি দল জেলেদের ধাওয়া করে এবং এক পর্যায়ে তাদের ওপর গুলি চালালে আমির রাঢ়ী (২৫) নামের এক যুবক গুলিবিদ্ধ হন। রোববার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে অপহরণ

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২ মাসে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয় ৩ জন নাগরিককে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

৬ নভেম্বর, ২০২১ তারিখে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় নিজের মৎস্য খামার থেকে বাড়িতে ফেরার পথে সাদা রঙের একটি মাইক্রোবাস ও দুটি মোটরসাইকেলে এসে একদল ব্যাক্তি ইমাম মেহেদী হাসানকে তুলে নিয়ে যান। মেহেদী হাসানের স্ত্রী মোনতাহেনা পিংকি ৪ এপ্রিল, ২০২২ তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে জানান, সেই থেকে ইমাম মেহেদী হাসান নিখোঁজ রয়েছেন। তিনি অভিযোগ করেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাঁকে গুম করেছে। ১৫ই এপ্রিল, ২০২২ নাইম খান, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা মিরপুর বাসার পাশে মসজিদে আসরের নামাজ শেষে বাসায় ফেরার সময় কতিপয় ব্যাক্তি তাকে একটি সাদা মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে থাকা মুসল্লি এবং নাইমের এক সহকর্মী বাধা দিলে তারা নিজেদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী’র লোক পরিচয় দেয়। এরপর ১৩ দিন পার হলেও আর কোনো সন্ধান মেলেনি নাইমের। ২ এপ্রিল, ২০২২ রাত ৯টার দিকে ৭-৮ জন সাদা পোশাকের লোক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয় দিয়ে সাভার বাজার রোড মহল্লায় নব দিগন্ত ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বিটিএফ মেডিকেল ইন্সটিটিউটে প্রবেশ করে ডা. এস আর নজরুল নামে এক চিকিৎসককে তুলে নিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।

এমএসএফ মনে করে, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে অপহরণে নামে যে অপতৎপরতা চলছে তা অন্যায়, ক্ষমতার অপব্যবহার, মানবাধিকারের চরম লংঘন ও ন্যায়বিচার না পাওয়ার ক্রমবর্মান অবক্ষয়ের চিত্র উঠে এসেছে যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক এবং নাগরিক জীবনে চরম উৎকন্ঠা ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আস্থাহীনতার জন্ম দিচ্ছে। এমএসএফ এ ধরণের ঘটনায় ভিকটিমদের উদ্ধারে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জোরালো ভূমিকা রাখার দাবি জানাচ্ছে।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে মৃত্যু, নির্যাতন এবং হয়রানির অভিযোগ

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী, এপ্রিল, ২০২২ মাসে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১ জন পুলিশের ধাওয়ায় নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মারা যান। তাছাড়া পুলিশের কিছু সদস্যের অশোভন আচরণ, নির্যাতন ও লুটপাট, ভাঙচুর এবং অন্যান্য বেশ কয়েকটি অপরাধের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে যা অনাকাঙ্খিত এবং অগ্রহণযোগ্য।

১৪ এপ্রিল দিবাগত রাত ১ টার দিকে লালমনিরহাটের হারাটি ইউনিয়নের হিরামানিক এলাকায় চলমান বৈশাখী মেলা থেকে জুয়া খেলার অভিযোগে পুলিশ দুই ব্যক্তিকে আটক করে । এদের মধ্যে রবিউল খান (২৫) পুলিশ ভ্যানে উঠতে রাজি না হলে পুলিশ ঘটনাস্থলেই তাকে বেদম মারপিট ও লাথি মারে, এতে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরিবারের স্বজনদের দাবি আটকের পরই পুলিশের প্রচণ্ড মারপিটে রবিউল গুরুতর আহত হলে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়।

২০ এপ্রিল, ২০২২ তারিখ সন্ধ্যা ৭টার দিকে লক্ষ্মীপুর পুলিশ পরোয়ানা ভুক্ত জনৈক আব্দুল কুদ্দুছ (৪৫)কে নিজ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রেফতার করে। থানা হেফাজতে নেয়ার পর তার বুকে ব্যাথা অনুভব হলে সদর হাসপাতালে নিলে রাত পৌনে ১১ টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

২১ এপ্রিল, ২০২২ রতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানা পুলিশের হেফাজতে নাজির আহমেদ সাফু (৪০) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়। পরিবারের দাবি, নাজির আহমেদ সাফুকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। অপরদিকে পুলিশ জানিয়েছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নাজির আহমেদ সাফু মৃত্যু হয়েছে।

৩ এপ্রিল,২০২২ গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নের বরামা জেলেপাড়া এলাকায় পুলিশের ধাওয়ায় মো. মামুন (২৪) নামের এক যুবক শীতলক্ষ্যা নদীর বানার অংশে ঝাঁপ দেয়। নিখোঁজ মামুনের মরদেহ ৫ এপ্রিল সকালে উদ্ধার করা হয়।

২ এপ্রিল, ২০২২ তারিখ সকাল সাড়ে ৮টার সময় ফার্মগেট মোড় পার হয়ে তেজগাঁও কলেজের দিকে যাওয়ার পথে ঐ কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক লতা সমাদ্দারকে টিপ দেওয়াকে অপরাধ হিসেবে নিয়ে পুলিশের পোশাক পরা ব্যক্তি “টিপ পরছোস কেন” বলে বাজে গালি দেন। পুলিশের এ ধরনের আচরণের প্রতিবাদ করায় প্রভাষক লতা সমাদ্দারকে আরও গালিগালাজ করেন। পুলিশের এহেন আচরন অগ্রহনযোগ্য ও অপরাধ।

১৯ এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যায় ইফতারের পর বনানীর শেরাটন হোটেলের সামনে পুলিশের দুই সদস্য এক নারীর ওড়না ধরে টান দিয়েছেন। ফেসবুক লাইভে এসে উক্ত নারী অভিযোগ করলে পুলিশের গুলশান বিভাগের দুই কনস্টেবলকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। ৫ এপ্রিল, ২০২২ সকালে নারায়ণগঞ্জ আদাল তপাড়ায় এক শিক্ষিকাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের এক কনস্টেবলের বিরুদ্ধে।

ভাই মামুনের আদালতে হাজিরার দিন থাকায় এ সময় হেঁটে হেঁটে তার সঙ্গে কথা বলছিলেন স্বজনেরা। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন আইনজীবী জানান, স্বজনদের সঙ্গে আসামির এক বোন ছিলেন। সুযোগ পেয়ে পুলিশ কনস্টেবল আহাদ বারবার তার শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিচ্ছিলেন। ভুক্তভোগী নারী ঘটনার প্রতিবাদ করলে অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল দৌড়ে পালিয়ে যান।

১৬ এপ্রিল, ২০২২ তারিখে সীতাকুণ্ড থানার এস. আই মাহবুব মোর্শেদ ও পুলিশের সোর্স মো. নুরুজ্জামানসহ (৪৫)  মুরাদপুর ইউনিয়নের মধ্যম ভাটেরখীল গ্রামের  বাসিন্দা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নুরুল ইসলামকে (৫০) গ্রেফতার করতে যায়। এ সময় নুরুল ইসলামকে না পেয়ে তার স্ত্রী খালেদা আক্তারের কাছে আলমারির চাবি কোথায় জানতে চান। চাবি দিতে না চাইলে মাহবুব ক্ষিপ্ত হয়ে খালেদাকে লাথি মারেন।

বাধ্য হয়ে চাবি দিলে মাহবুব ও নুরুজ্জামান আলমারিতে থাকা এক লাখ ৪২ হাজার টাকা ও আট আনা ওজনের স্বর্ণালংকার, দুটি মোবাইল ফোনসেট, তাদের ছেলে-মেয়েদের পরীক্ষার বিভিন্ন কাগজপত্র, জন্ম নিবন্ধনের কাগজপত্র ও ইসলামী ব্যাংকে লেনদেনের কাগজপত্র প্রভৃতি নিয়ে যান। খালেদা আক্তার রবিবার দুপুরে চট্টগ্রাম পুলিশ সুপার, সীতাকুণ্ড সার্কেলের অ্যাডিশনাল এসপি ও সীতাকুণ্ড প্রেস ক্লাবে লিখিত অভিযোগ করেন। সাব-ইন্সপেক্টর মাহবুব মোর্শেদের দাবি তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার।

জামালপুর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় র‌্যাবের গাড়ি যাওয়ার জায়গা করে দিতে বিলম্বের জেরে র‌্যাবের দুই সদস্য বাসের এক চালক ও সহযোগীকে মারধর করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে পরিবহন শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন।

২৩ এপ্রিল, ২০২২ তারিখ রাতে গাজীপুরের শ্রীপুরে আসামি ধরতে গিয়ে ফরিদপুর গ্রামের ১০টি পরিবারের বাড়িঘর ভাঙচুর ও স্থানীয় লোকজনকে মারধর করেছে শ্রীপুর থানার পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা। গ্রামের অধিকাংশ বাড়িতে শিশু-কিশোর এবং নারী ছাড়া কেউ নেই। নারীরা বলছেন, পুলিশের ভয়ে অধিকাংশ পরিবারের পুরুষরা গ্রাম ছেড়েছেন। গ্রামের হালিমা খাতুন জানান, গভীর রাতে বাইরে লোকজনের চেঁচামেচি শুনে বের হলে, পুলিশ তাদেরকে ধাওয়া দিয়ে ঘরে যেতে বলে।

রাত ১১টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত চারবার তাদের বাড়িতে আসে পুলিশ। গ্রামের কয়েকটি বাড়ির তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে আলনা, ফ্রিজ ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন পুলিশ সদস্যরা। কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আজমীর হোসেন জানান, আসামি ধরতে গিয়ে গ্রামের মানুষের বাড়িঘর ভাঙচুরের বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে পুলিশের বিরুদ্ধে এ রকম অভিযোগ পেলে তদন্ত করা হবে।

১৮ এপ্রিল, ২০২২ রাতে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেট এলাকার বিপণিবিতানগুলোর ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের সংঘর্ষের ঘটনা শুরু হয়। রাতেই কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও পরিস্থিতি ছিল থমথমে থেকে যায়। ১৯ এপ্রিল, ২০২২ সকাল থেকেই কিছুক্ষণ পরপরই চলছিল ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। একদিকে ঢাকা কলেজের ছাত্ররা, অন্যদিকে কলেজের আশপাশের এলাকার বিভিন্ন বিপণিবিতানের দোকানমালিক-কর্মী ও ফুটপাতের হকাররা।

ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার একপর্যায়ে মিরপুর সড়কের নীলক্ষেত মোড় থেকে সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়ের মাঝখানের প্রায় আধা কিলোমিটার এলাকা জুড়ে শুরু হয় সংঘর্ষ। সংঘর্ষ চলাকালিন সময়ে ইট ও লাঠির আঘাতে আহত হয়েছেন সাংবাদিক, পথচারী, ছাত্র, ব্যবসায়ীসহ অন্তত ৪০ জন। উল্লেখ্য গুরুতর আহত ২ যুবক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। পরদিন সংঘর্ষ চলাকালিন সময়ের প্রায় আড়াই ঘন্টা পর পুলিশ ঘটনাস্থলে আসায় জনমনে প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।

আগের রাতে পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনলেও পরদিন কিছু একটা হতে পারে এমন আশংকা অবশ্যই থেকে যায়। তাহলে পুলিশ কেন আগাম ব্যবস্থা নেয়নি। নিউ মার্কেট থানাধীন এলাকার আধা কিলোমিটার রাস্তার দুই পাশেই নীলক্ষেত পুলিশ বক্স, অন্য প্রান্তে সায়েন্স ল্যাব পুলিশ বক্স রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে কেন এতো দেরিতে এলো, অপরদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এতো দীর্ঘ সময় লাগায় হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমান বাড়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এমএসএফ মনে করে, ঘটনাটিকে যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন ছিল।

মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ) মনে করে, পুলিশের হেফাজতে মৃত্যুর বিষয়গুলো যেমন অনাকাঙ্খিত তেমনি পুলিশের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগসমূহও অপ্রতাশিত যা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। যে কোন ব্যক্তির সুরক্ষা নিশ্চিত করা পুলিশের আইনি দায়িত্ব। এমএসএফ পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগসমূহ গুরুত্ব দিয়ে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠূ তদন্ত নিশ্চিত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছে।

কারা হেফাজতে মৃত্যু

এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২ মাসে কারা হেফাজতে একজন নারীসহ ৫জনের মৃত্যু হয় যা গত মাসের তুলনায় কমলেও উদ্বেগজনক। গত মাসে কারা হেফাজতে ১০ জন বন্দীর মৃত্যু হয়। কারাগারে অপর্যাপ্ত চিকিৎসার কারণে বন্দীরা যথাযথ চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বন্দি অসুস্থ হলে তাকে কারাগারের বাইরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এমএসএফ বিশ্বাস করে যে কারাগারের অভ্যন্তরে চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নতির পাশাপাশি, হেফাজতে মৃত্যুর সঠিকভাবে তদন্ত করা জরুরি।

৪ এপ্রিল ভোরে চট্টগ্রাম কারাগার থেকে অসুস্থ্যাবস্থায় আনা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক ঘণ্টার ব্যবধানে ২ হাজতির রফিক উদ্দীন (৫৪) ও বাবুল মিয়া (৩৪) মৃত্যু হয়। মৃত রফিকের বড় ভাই ভাই জামাল উদ্দিন জানান, গত ২৬ মার্চ চন্দনাইশের চিড়িংঘাটা এলাকায় রফিক স্থানীয় সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হলে পুলিশ মামলা না নিয়ে উল্টো তাকে চিকিৎসা না দিয়ে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়।

সেখানে বেশি অসুস্থ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। রফিককে থানায়ও নির্যাতন করা হয়। ৫ এপ্রিল ২০২২ দুপুরে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মো. মেহেদী আজাদ নয়ন (৩০) নামে এক হাজতিকে অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। টাঙ্গাইল কারাগারে নাদিরা জাহান শেলী (৪০) নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে।

৯ এপ্রিল ২০২২ রাত ৩টার সেহরি খাওয়ার সময় ঘুম থেকে উঠলে তার আশপাশের লোকজন শেলীকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান। পরে তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ১০ এপ্রিল ২০২২ সকালে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ মোস্তফা কামাল (৩৭) নামে এক হাজতি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কারা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোস্তফা কামাল মারা যান।

এমএসএফ মনে করে, কারাগারে অপর্যাপ্ত চিকিৎসা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে বন্দীরা যথাযথ চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বন্দি অসুস্থ হলে তাকে কারাগারের বাইরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এমএসএফ বিশ্বাস করে যে কারাগারের অভ্যন্তরে চিকিৎসা ব্যবস্থার  ও পরিস্থিতির উন্নয়ণের পাশাপাশি, হেফাজতে মৃত্যুর সঠিকভাবে তদন্ত করা গুরুত্বপূর্ণ।

সীমান্তে পরিস্থিতি ও অনুপ্রবেশ

এপ্রিল, ২০২২ মাসে একটি হত্যাকান্ড, তিনজন বাংলাদেশী নাগরিককে বিএসএফ ধরে নিয়ে গেছে ও অবৈধ অনুপ্রবেশকালে আটকের ঘটনা ঘটেছে।

১০ এপ্রিল, ২০২২ লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর চওড়াটারী সীমান্তের ৯২৪ নম্বর মেইন পিলারের ১১ নম্বর সাব পিলার এলাকায় বাংলাদেশ অংশে অজ্ঞাতনামা আনুমানিক ৫০ বয়সের এক ভারতীয় নাগরিকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশর (বিজিবি)’র মধ্যে পতাকা বৈঠক আহ্বান করা হলেও মরদেহ উদ্ধার করা হয়নি।

দু’দেশের পতাকা বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়। স্থানীয়দের ধারণা ভোর রাতে গরু নিয়ে সীমান্ত পাড় হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ)’র ছোড়া গুলিতে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

১২ এপ্রিল ২০২২ সকাল নয়টার দিকে নওগাঁর পোরশা ঢাকাবিল এলাকায় সীমান্তের ২৩১/৭ এস পিলারের কাছে বোরোখেতে পানি সেচ দেওয়ার সময় মামুন (৩৬) নামের এক বাংলাদেশি যুবককে আটক করে ভারতীয় ১৫৯ কেদারাপাড়া ক্যাম্পের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্যরা নিয়ে গেছে। কৃষক মামুনকে ফেরত চেয়ে পতাকা বৈঠকের জন্য বিএসএফকে চিঠি দেয়।

শরীফপুর ইউনিয়নের ভারতীয় নাগরিক তার এক আত্মীয়র সঙ্গে দেখা করতে অবৈধভাবে বাংলাদেশে এসেছিলেন। এপ্রিল ২০২২ সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইফতারের পর তাকে আবার ফিরে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশী নাগরিক ফয়জুর সীমান্তের কাটা তারের বেড়া অতিক্রম করাচ্ছিলেন। এ সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএএসফ সদস্যরা ভারতীয় নাগরিকের সঙ্গে বাংলাদেশি নাগরিক ফয়জুরকেও আটক করে নিয়ে যায়। ১৮ এপ্রিল, ২০২২ বিকেলে নওগাঁর সাপাহার সীমান্ত থেকে সাহাবুদ্দীন হোসেন (৩০) নামে এক বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

এ মাসে ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে দুই দফায় অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে ও বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়ার সময় নারী ও শিশুসহ ৪৪ জন বাংলাদেশী নাগরিক ও ১২ জন ভারতীয় নাগরিককে আটক করেছে বিজিবি ও বিএসএফ।

নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা

দেশে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২ মাসে দেশে নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা যেমন; ধর্ষণ, হত্যা ও পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা বিগত মাসগুলোর মতই অব্যাহত রয়েছে যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এ মাসে ৩৬৭টি নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা সংঘটিত হয়েছে যার মধ্যে ধর্ষণের ঘটনা ৭১টি, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ১৪টি, ধর্ষণ ও হত্যা ২টি। এর মধ্যে ধষর্ণের শিকার হয়েছে ৯ জন প্রতিবন্ধী শিশু-কিশোরী ।

উল্লেখ্য যে ধর্ষণের শিকার ৭১ জনের মধ্যে ৪৯ জন শিশু ও কিশোরী রয়েছে, অপরদিকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৬ জন কিশোরী এবং ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় ২ জনই শিশু রয়েছে। ধর্ষণের চেষ্টা ১৭টি, যৌন হয়রানি ১৯টি ও শারীরিক নির্যাতনের ৬৮টি ঘটনা ঘটেছে। এসময়ে ৩ জন শিশু ও ৩৮ জন কিশোরী, নারীসহ মোট ৯২ জন আত্মহত্যা করেছেন। অ্যাসিড নিক্ষেপে আক্রান্ত হয়েছে ১ জন নারী।

অপহরণের শিকার হয়েছে ১ জন শিশু ও ২ জন কিশোরী অপরদিকে ৪ জন শিশু, কিশোরী ও নারী নিখোঁজ হয়েছেন। এছাড়াও এপ্রিল মাসে ৫ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যুসহ মোট ৭১ জন শিশু, কিশোরী ও নারী হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন, যার মধ্যে ২১ জন শিশু ও কিশোরী রয়েছেন। গণমাধ্যম সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী প্রতিশোধ, পারিবারিক বিরোধ, যৌতুক, প্রেমঘটিত ইত্যাদি কারণে এ হত্যাকান্ডগুলো সংঘটিত হয়েছে।

এ মাসে ২টি ধর্ষণের ঘটনা সালিশে মীমাংসা করা হয়েছে। পৃথক দুইটি ঘটনায় অপর দুইটি সালিশে ৭টি পরিবারকে সমাজপতিরা একঘরে করে রাখার সিদ্ধান্ত দিয়েছে যা বে-আইনী।

এ মাসে ৩ জন মৃত ও ১ জন জীবিত নবজাত শিশুকে বিভিন্ন স্থানে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে যা অমানবিক ও নিন্দনীয়। এ শিশুদেরকে কি কারণে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পাওয়া যাচ্ছে, সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষ তা নিরূপনের চেষ্টা করছে না।

এমএসএফ মনে করে, দেশে ধর্ষণ, শিশু ও নারীদের প্রতি সহিংসতা, নির্যাতন, শ্লীলতাহানি, যৌন হয়রানি ও নিপীড়নের ঘটনা যে হারে ঘটে চলেছে তাতে করে সামাজিক সুরক্ষার পাশাপাশি রাষ্ট্রের দায়দায়িত্ব বিশেষ করে সমাজে অপরাধ প্রবণতা নিয়ন্ত্রনে সরকারের নজরদারি আরো জোরদার করতে হবে। নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতারোধে দেশে যথেষ্ট কঠোর আইন থাকা সত্বেও অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভুমিকা লক্ষণীয় নয়। বিচারহীনতা, বিচারে দীর্ঘসূত্রিতা এবং অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা ক্রমাগতভাবে বেড়েই চলেছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবহার/অপব্যবহার

বর্তমান সময়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রবলভাবে সমালোচিত হওয়ায় এ আইনে মামলার নামে হয়রানি বা অপব্যবহার কিছুটা কমেছে। গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এ মাসে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৭টি মামলায় ২ জন আইনজীবী, ১ জন সাংবাদিক, ১ জন বিরোধী দলীয় নেতার ভাই ও ১ জন প্রবাসীসহ মোট ৫ জন গ্রেফতার হয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের উচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিদের নিয়ে কথিত মানহানিকর কটুক্তি করার অপরাধে এ মাসে ৪টি মামলা, মাহফিলে দাওয়াত না দিয়ে নাম প্রচার, গালিগালাজ নিয়ে ১টি এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় অধ্যক্ষ ও শিক্ষক-কর্মচারীদের নিয়ে ফেসবুকে কথিত কুরুচিপূর্ণ  স্ট্যাটাস দেওয়ার জন্য ১টি মামলা হয়েছে। রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে মো. রাকিবুর রহমান ফাহিম ও তাজউদ্দীন আহমেদ রাসেল নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলা হয়েছে।

বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যাপক অপব্যবহারে জনমনে নানা উদ্বেগ আর ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে। বর্তমান সময়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রবলভাবে সমালোচিত হওয়া সত্বেও এ আইনে মামলার নামে হয়রানি কমেনি বরং ধারাবাহিকভাবে এর অপব্যবহার পূর্বের ন্যায় ঘটেই চলেছে।

সাংবাদিকতা ও মতপ্রকাশের অধিকার

দেশে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ও এমএসএফ কর্তৃক সংগৃহিত তথ্য অনুযায়ী এপ্রিল, ২০২২ মাসে স্বাধীন সাংবাদিকতা ও পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় ১ জন সাংবদিক সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন, ১২ জন সাংবাদিক দায়িত্ব পালনে বাধাপ্রাপ্ত, হয়ে আহত হন, ২ জন সাংবাদিককে জীবননাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে,৬ সাংবাদিককে হয়রানি করা হয়েছে, ১ জন সাংবাদিককে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় আক্রমন ও সীতাকুণ্ডে ১ সাংবাদিকের বাড়িঘর ভাংচুর ও পরিবারের সদস্যদের গালাগালিসহ সাংবাদিককে হত্যার হুমকি প্রদান করেছে সন্ত্রাসীরা।

১৩ এপ্রিল ২০২২ বুধবার রাত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সীমান্তবর্তী রাজাপুর ইউনিয়নে হায়দরাবাদ এলাকায় মহিউদ্দিন নাঈম (২৪) নামে এক স্থানীয় সাংবাদিক পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া গুলিতে নিহত হন।

গত ৪ এপ্রিল, কুমিল্লার মেঘনা উপজেলা প্রকৌশলী খন্দকার মাহমুদুল আশ্রাফকে স্যার না বলায় সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করা হয়। গত ১৮ এপ্রিল, কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালক মো. নুরুল হুদার বিরুদ্ধে এক পাসপোর্ট গ্রহীতাকে মারধরের ভিডিও ধারণ করায় সমাচার পত্রিকার কুমিল্লা প্রতিনিধি সাংবাদিক মো: সাফির মুঠোফোন কেড়ে নেওয়া হয়।

১১ এপ্রিল রাতে সুনামগঞ্জের হাওড়ের ফসল রক্ষা বাঁধ নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতারা বেসরকারি টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি শহীদ নূর আহমেদকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। ১৯ এপ্রিল রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় সকাল থেকে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও  সংঘর্ষের ঘটনায় সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে অন্তত ৮ জন সংবাদকর্মী আহত হয়।

আহত  সাংবাদিকরা  হলেন দ্য ডেইলি স্টারের ফটোগ্রাফার প্রবীর দাস; আসিফ জামান, দীপ্ত টিভির সিনিয়র রিপোর্টার; ইমরান লিপু, দীপ্ত টিভির ক্যামেরাপারসন; আজকের পত্রিকার প্রতিবেদক আল আমিন রাজু; এসএ টিভির প্রতিবেদক তাইফুর রহমান তুহিন; এসএ টিভির ক্যামেরাপারসন কবির হোসেন; জসিম উদ্দিন মাহির, অনলাইন নিউজ পোর্টাল ঢাকা পোস্টের সিনিয়র রিপোর্টার; এবং ঢাকা ট্রিবিউনের সিনিয়র রিপোর্টার শাহেদ শফিক। ২৯এপ্রিল, ২০২২ তারিখ বিকেলে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক এবংদৈনিক আজকের পত্রিকার সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি  সাংবাদিক সবুজশর্মার ভাইয়ের খিলএলাকায় বাড়িতে সন্ত্রাসীরা হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে। এসময় সন্ত্রাসীরা সাংবাদিকের পরিবারের সদস্যদের অকথ্য গালাগাল করে ও তাঁকে হত্যার হুমকি দেয়।

সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে যেভাবে বাধা দেয়া হচ্ছে এবং তাদের যেভাবে হয়রানি ও শারীরিকভাবে আক্রমণ করা হচ্ছে তা শুধুমাত্র অনাকাঙ্খিতই নয় বরং বস্তুনিষ্ঠ ও সৎ সাংবাদিকতার কন্ঠরোধ করার সামিল। তথ্য অনুযায়ী বেশিরভাগ সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মীরা পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় অপমান, নিপীড়ন, হত্যার হুমকি, হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ক্ষমতাসীন সরকারদল নেতাকর্মী, সরকারি কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও দুষ্কৃতিকারীর পাশাপাশি মাদক ব্যবসায়ীরাও এ জড়িত  রয়েছে। এভাবে বাধার সৃষ্টি করে সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে মতপ্রকাশের সাংবিধানিক অধিকারকে সংকুচিত করা হচ্ছে।

সংখ্যালঘু নির্যাতন

গণমাধ্যমসূত্রে পাওয়া এমএসএফ’র পরিসংখ্যান অনুযায়ী এ মাসে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু নির্যাতনের ১১টি ঘটনা ঘটেছে। ধর্মীয় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের তিনজন শিক্ষক  বিভিন্নভাবে হয়রানির শিকার হয়েছেন এ মাসে, যা ছিল স্বাধীনভাবে ধর্ম পালন এবং মতামত প্রকাশের সাংবিধানিক অধিকারের  পরিপন্থি। গণমাধ্যমসূত্রে জানা যায়, মুন্সীগঞ্জের বিনোদপুর রামকুমার উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও গণিতের শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মন্ডলের বিজ্ঞান ও ধর্ম   বিষয়ক মন্তব্যকে কেন্দ্র করে মামলা ও জেলে ঢোকানো এবং নওগাঁর মহাদেবপুরে হিজাব ইস্যু তৈরি করে আমোদিনী পাল নামে সহকারী প্রধান শিক্ষককে হয়রানি করা হয়।

 

গত ১১ এপ্রিল, বাগেরহাটে ‘ধর্ম অবমাননার’ গুজব ছড়িয়ে এক হিন্দু তরুণের (২৫) বাড়িতে হামলা করা হয়। ধর্ম অবমাননা করে ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন এমন অভিযোগে সোমবার বিকাল ৫টার দিকে ওই তরুণকে আমরবুনিয়া জামে মসজিদে ডেকে নিয়ে স্থানীয় প্রভাবশালীরা বিচার করে। সন্ধ্যায় মোংলার আমরবুনিয়া, জিউধরা, গুলিশাখালী ও কচুবুনিয়া গ্রামের কয়েকশ মানুষ জড়ো হয়ে ওই তরুণের বাড়ির দিকে মিছিল নিয়ে যায়। এ সময় তারা বাড়িতে ভাঙচুর, খড়ের গাদায় আগুন দেয়।

গত ১৭ এপ্রিল, ঠাকুরগাঁও পৌরসভা এলাকার ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষের জমি কালোদীঘি কালীমন্দিরের পাশের একটি পুকুর দখল নিতে চেষ্টা চালায় ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. বাবুলসহ কয়েকজন আওয়ামী লীগের লোকজন। ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর লোকজন প্রতিরোধ করলে তাঁরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। জমি দখল করতে ব্যর্থ হয়ে তারা মসজিদে মুসলিমদের ওপর হামলা হয়েছে এমন মিথ্যা গুজব ছড়ায়। এ ঘটনায় সমবায় হিমাগারে স্থাপিত মসজিদে আসা নামাজিদের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীদের বিরুদ্ধে খেপিয়ে তোলেন এবং আদিবাসীদের বাড়িঘরে হামলার চেষ্টা করেন।

টাঙ্গাইলের মধুপুর বনাঞ্চলে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী গারোদের জমিতে লেক খনন প্রকল্পের কাজ নিয়েছে বন বিভাগ। এ জমিতে ১৩ জন গারো জাতিগোষ্ঠীর মানুষ বংশপরম্পরায় চাষাবাদ করছেন।  জমির মালিকেরা সেখানে লেক খনন করতে সম্মত হননি। গত ২২ এপ্রিল বন বিভাগের দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তার কার্যালয়ের কর্মীরা ওই জমিতে সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দেন। সেখানে লেখা ছিল, ‘সংরক্ষিত বনাঞ্চল, সর্বসাধারণের প্রবেশ নিষেধ, উন্নয়নমূলক কাজ চলমান, আদেশক্রমে কর্তৃপক্ষ’। এই সাইনবোর্ড দেখার পর স্থানীয় গারো জনগোষ্ঠীর মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। গত ২৩ এপ্রিল  শনিবার রাতে কে বা কারা ওই সাইনবোর্ডটি ভেঙে ফেলে। এ ঘটনায় বন বিভাগের দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে রোববার বিকেলে মধুপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেখানে কয়েকজন আন্দোলনকারীকে অভিযুক্ত করা হয়।

সড়ক দুর্ঘটনা

সারাদেশে প্রতিদিন সড়ক দুর্ঘটনার চিত্র বরাবরের মতো একই রকম পরিলক্ষিত হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে বিপুল সংখ্যক মানুষের হতাহতের ঘটনা ঘটেই চলছে।

গণমাধ্যমসূত্রে পাওয়া এমএসএফ’র পরিসংখ্যান অনুযায়ী এ মাসে ২৪৮টি সড়ক দুর্ঘটনার ঘটেছে। এর মধ্যে প্রধান সড়কগুলোতে ২৭ টি বাসের দুর্ঘটনায় ৩৮ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অন্যান্য ক্ষেত্রে মটরসাইকেল, সিএনজি অন্যান্য গণপরিবহন দুর্ঘটনায় আরও ২৪৮ জন নিহত হয়েছেন। মোট ২৮৬জন নিহত ও ৩৫৭ জন আহত হয়েছেন।

সড়ক দুর্ঘটনায় বিরাজমান নৈরাজ্য, অনিয়ম-দুনীতিসহ জীবনের জন্য হুমকি নিরসনে সড়কে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় আইনের যথাযথ প্রয়োগ নিশ্চিত করা জরুরি বলে এমএসএফ মনে করে।

গনপিটুনি

এপ্রিল, ২০২২ মাসের অন্যতম একটি উদ্বেগজনক বিষয় ছিল গণপিটুনিতে অনেক মানুষের হতাহতের ঘটনা। প্রচলিত আইন অবজ্ঞা করে নিজের হাতে আইন তুলে নিয়ে গণপিটুনীর ঘটনাগুলোকে বিচারবর্হিভূত হত্যাকান্ড বলে এমএসএফ মনে করে। এমএসএফ এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী এ মাসে গনপিটুণিতে কমপক্ষে ৩ জন নিহত ও বেশ কয়েক জন আহত হয়েছেন। চুরি বা ডাকাতির সন্দেহে, অনৈতিক কাজে বাধা দেওয়ায় গনপিটুনির ঘটনাগুলো সংঘটিত হয়েছে।

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মইক্কাঘোনা পাহাড়ি এলাকায় মুঠোফোনে জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে মোহাম্মদ ইউনুছ (৪০) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। লক্ষ্মীপুরে দাঁড়িয়ে থাকা বাসের ভেতরে সুপারভাইজার রিয়াদ হোসেন লিটনকে ঘুমন্ত অবস্থায় দুর্বৃত্তরা পিটিয়ে হত্যা করে। কথা কাটাকাটির জের ধরে রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি নিজামুল ইসলাম খান অথেলকে প্রতিবেশীরা পিটিয়ে হত্যা করে।

দুর্ঘটনায় নিহত ট্রাকচালকের সহকারী আবদুল হামিদের (৩০) জানাজায় রোববার বিকেলে অংশ নিতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার হয়েছেন ট্রাকমালিক মোহাম্মদ রানা (৩৮)। বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় জুয়া খেলায় বাধা দেওয়ায় মো. জনি (৩০) নামের এক যুবককে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। পীরগঞ্জ পৌর শহরের বায়তুল আমান মসজিদ থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে পালানোর সময় রাজ্জাককে আটক করে গণধোলাই দেওয়া হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে জনতার হাত থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো, ডেইলি ষ্টার, কালের কন্ঠ, যুগান্তর, জনকন্ঠ, আমাদের সময়, বাংলাদেশ প্রতিদিন, দৈনিক মানবজমিন, সমকাল, ইত্তেফাক, আজকের পত্রিকা, ঢাকা ট্রিবিউন ও অন্যান্য জাতীয় দৈনিকসমূহ প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে উপরোক্ত প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। তাছাড়াও প্রায় প্রতিটি ঘটনার ক্ষেত্রেই স্থানীয় হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডারদের মাধ্যমে তা ভেরিফাই করা হয়েছে। এখানে উল্লেখ্য যে ১ এপ্রিল ২০২২ থেকে ৩০ এপ্রিল ২০২২ পর্যন্ত সংঘটিত ঘটনার ভিত্তিতে এ রিপোর্ট তৈরি করা।

Check Also

আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে অবস্থান মূলত ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া : ড. মাসুদ

ষিতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং পরে বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য কেউ ভূমিকা রাখেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।