শ্রীলংকার নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন রনিল বিক্রমাসিংহে: ডেইলি মিরর

শ্রীলংকার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন দেশটির ইউএনপি দলের নেতা রনিল বিক্রমাসিংহে।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটের দিকে তিনি শপথ নিতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইউএনপির বরাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে লঙ্কান সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর।

মাহিন্দা রাজাপাকসের পদত্যাগের পর কে হতে যাচ্ছেন লংকার প্রধানমন্ত্রী? এ নিয়ে বেশ জল্পনা-কল্পনা চলছিল দেশটিতে।
রনিল বিক্রমাসিংহের নামই শোনা যাচ্ছিল।

জানা গেছে, শপথগ্রহণ করে তিনি কলম্বোর একটি মন্দিরে যাবেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি তার কার্যক্রম শুরু করবেন।

বিক্রমাসিংহে যদি প্রধানমন্ত্রী হন, তাহলে সম্ভবত ২২৫ সদস্যের শ্রীলঙ্কা সংসদে ক্রস-পার্টি সমর্থন নিয়ে একটি ‘ঐক্য’ সরকারের প্রধান হবেন তিনি।

প্রেসিডেন্টের ঘনিষ্ঠ এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এএফপিকে বলেছেন, কোনো অঘটন না ঘটলে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আজ শপথ গ্রহণ করবেন বিক্রমাসিংহে।

বিক্রিমাসিংহে ১৯৯৩ সাল থেকে শ্রীংলংকার পাঁচবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তাকে পশ্চিমপন্থী মুক্তবাজার সংস্কারবাদী হিসাবে দেখা হয়।

তুমুল বিক্ষোভের মধ্যে গত সোমবার শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়ান মাহিন্দা রাজপাকসে। এরপর বুধবার সন্ধ্যায় প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন রনিল বিক্রমাসিংহে। তিনিই আজ দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন।

রাজাপাকসে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভেঙে যায় শ্রীলংকার মন্ত্রিসভা। এরপর চলতি সপ্তাহে নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ার ভাই মাহিন্দা রাজাপাকসে।

এক বিবৃতিতে গোতাবায়ে রাজাপাকসে জানান, বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ও দেশের কার্যক্রম পরিচালনায় নতুন সরকার গঠনে আমি পদক্ষেপ নিচ্ছি। সংসদের হাতে আরও ক্ষমতা দেওয়ার জন্য কিছু সাংবিধানিক সংস্কার করা হবে।

Check Also

আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে অবস্থান মূলত ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া : ড. মাসুদ

ষিতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং পরে বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য কেউ ভূমিকা রাখেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।