এরদোগানের চেয়ে এগিয়ে বিরোধী নেতা

আগামী ১৪ মে ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত তুরস্কে প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। দেশটির ইতিহাসে, বিশেষ করে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এ নির্বাচনের আগে বিভিন্ন জরিপ পরিচালনা করা হচ্ছে।

জরিপের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এরদোগানের একে পার্টি ও তার মিত্রদের থেকে কমপক্ষে ৬ ভাগ এগিয়ে রয়েছে বিরোধী ব্লক তথা ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স। এ ছাড়া কুর্দিপন্থি পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টি (এইচডিপি) অনেকটা স্বাচ্ছন্দ্যে তথা ১০ ভাগ এগিয়ে রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধিসহ অর্থনীতির নানা সংকটের কারণে আগে থেকেই জনপ্রিয়তা কমে যাচ্ছিল এরদোগানের। এর মধ্যেই সাম্প্রতিক বিধ্বংসী ভূমিকম্পে লণ্ডভণ্ড হয়েছে দেশটির অন্তত ১১টি প্রদেশ। সবমিলিয়ে টানা ২০ বছরের শাসক এরদোগান এবারের নির্বাচনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন।

গত ৮ মার্চ পরিচালিত একটি জরিপের ফল শনিবার প্রকাশ করেছে আকসয় রিসার্চ। এতে দেখা গেছে, বিরোধী জোটের প্রার্থী কিলিকদারোগ্লু ৫৫ দশমিক ৬ শতাংশ সমর্থন নিয়ে এরদোগানের বিরুদ্ধে এগিয়ে রয়েছেন। যেখানে এরদোগানের সমর্থন দেখানো হয়েছে ৪৪ দশমিক ৪ শতাংশ।

জরিপটির ফলাফলে আরও দেখা গেছে, প্রধান বিরোধী জোটকে সমর্থন করছেন  ৪৪ দশমিক ১ শতাংশ ভোটার। অপরদিকে একে পার্টির নেতৃত্বাধীন জোটের সমর্থন দেখা যাচ্ছে ৩৮ দশমিক ২ শতাংশ।

অন্যদিকে গত ৬-৭ মার্চ একটি জরিপ পরিচালনা করে আলফ রিসার্চ। যেখানে দেখা যায়, কিলিকদারোগ্লুর সমর্থন রয়েছে ৫৫ দশমিক ১ শতাংশ। বিপরীতে এরদোগানকে সমর্থন করছেন ৪৪ দশমিক ৯ শতাংশ মানুষ।

এ ছাড়া  কিলিকদারোগ্লুর রিপাবলিকান পিপলস পার্টি (সিএইচপি) ৩১ দশমিক ৮ শতাংশ সমর্থন নিয়ে এগিয়ে রয়েছে। আর একে পার্টির সমর্থন দাঁড়িয়েছে ৩১ শতাংশ। এই জরিপে প্রধান বিরোধী ব্লকের সমর্থন দেখানো হয়েছে ৪৩ দশমিক ৫ শতাংশ। অপরদিকে একে পার্টি ও তার মিত্র এমএইচপির সমর্থন দাঁড়িয়েছে ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ।

পিয়ার রিসার্চ তাদের জরিপে দেখিয়েছে, কিলিকদারোগ্লু ৫৭ দশমিক ১ শতাংশ সমর্থন নিয়ে এরদোগানের চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। জরিপটির ফলাফলে এরদোগানের সমর্থন দেখানো হয়েছে ৪২ দশমিক ৯ শতাংশ। এই জরিপ অনুযায়ী, প্রধান বিরোধী জোটের সমর্থন ৪৬ দশমিক ৪ শতাংশ এবং একেপি (একে পার্টি) ও এমএইচপি জোটের সমর্থন রয়েছে ৩৭ দশমিক ৮ শতাংশ। জরিপটির ফল প্রকাশ হয়েছে গত ১০ মার্চ।

এ ছাড়া ওআরসি রিসার্চ তাদের ফলাফলে দেখিয়েছে যে, কিলিকদারোগ্লুর সমর্থন ৫৬ দশমিক ৮ শতাংশ। যেখানে এরদোগানের সমর্থন রয়েছে ৪৩ দশমিক ২ শতাংশ। জরিপটি পরিচালনা করা হয় গত ৪-৬ মার্চ। তখনও কিলিকদারোগ্লুকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিরোধী জোটের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়নি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক ভয়াবহ ভূমিকম্প ক্ষমতাসীন একে পার্টির জনপ্রিয়তায় খানিকটা প্রভাব ফেলেছে। মেট্রোপলের এ সংক্রান্ত একটি জরিপ বলছে, ৩৪ দশমিক ৪ শতাংশ মানুষ ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতির জন্য সরকারকে দায়ী করেছে। আর ভবনের ঠিকাদারদের দায়ী করেছে ২৬ দশমিক ৯ শতাংশ মানুষ।

ওয়াশিংটনভিত্তিক মধ্যপ্রাচ্যের গণতন্ত্র বিষয়ক প্রকল্পের তুরস্কের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর মার্ভে তাহিরোগ্লু বলছেন, বিরোধী জোটটি ‘বৈচিত্র্যময়’ এবং জোটের প্রতিটি ফিগার (নেতা) তুরস্কের ভিন্ন ভিন্ন অংশের কাছে প্রভাব রাখতে পারেন।

Check Also

অভাবের তাড়নায় সাতক্ষীরায় জুসের সঙ্গে বিষ খাইয়ে ছেলেকে হত্যা !

 সাতক্ষীরা প্রতিনিধি,ক্রাইমবাতারিপোটঃ  ১৮ মার্চ ২০২৩ অভাবের তাড়নায় ৫ম শ্রেণির ছাত্র রোহিত দত্তকে জুসের সঙ্গে বিষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।