লন্ডভন্ড সুন্দরবন:

আবু সাইদ বিশ্বাস: ক্রাইমর্বাতা রিপোট: সাতক্ষীরা: সুপার সাইক্লোন আমফান পশ্চিম সুন্দরবনের উপর দিয়ে প্রবেশ করে সাতক্ষীরা জেলার উপর ৪ ঘণ্টা তান্ডব চালায়। রক্ষাকবচ সুন্দরবনের কারণে জেলাতে প্রাণ হানির সংখ্যা কম থাকলেও ক্ষতি হয়েছে বনটিতে। একটি মৃত্যু বাঘ বনের পাশে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সুন্দরবনে কি পরিমানে প্রাণহানী ঘটেছে তার সঠিক তথ্য বের হতে এখনো কয়েক দিন সময় অপেক্ষা করতে হবে। চার ফিট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হওয়ার ফলে ৬১টি টহল ফাঁড়ি ও ১৬টি স্টেশন লবণ পানিতে তলিয়ে গেছে। টিনশেড উড়ে গেছে অনেক স্থাপনার।তবে বনের ভেতরে মাছ ধরতে ও মধু আহরণের জন্য অনেকেই ছিলেন। তাদের অবস্থা এখনো জানতে পারিনি সংশ্লিষ্টরা।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট সুপার সাইক্লোন আমফান সুন্দরবনের উপর দিয়ে বাংলাদেশ উপকূলে প্রবেশ করে তান্ডব চালিয়ে উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে রাজশাহী অঞ্চলে গিয়ে দুর্বল হয়ে পড়ে। তবে সামুদ্রিকঝড় থেকে বাংলাদেশের রক্ষাকবচ এ বনটির কি পরিমাণ ক্ষতি তা নিয়ে মাঠে নেমেছে বনবিভাগ।
সুন্দরবনের প্রধান বন সংরক্ষক আমির হোসেন চৌধুরী সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমফান মূলত সুন্দরবনের সাতক্ষীরা অংশ দিয়ে গিয়েছে, তবুও প্রভাব ছিল গোটা অঞ্চল জুড়েই।
তবে তিনি বলছেন, ‘যতটা আশঙ্কা করেছিলাম ততটা ক্ষয় ক্ষতি নাও হতে পারে।
গাছপালার ক্ষতি কতটা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বনাঞ্চলের কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে সেটা এখনই বলা মুশকিল। অনেক নদী পাড়ি দিয়ে যেতে হয়।
‘অমাবশ্যা ও পূর্ণিমায় মাছ ধরে এখন মধু আহরণের মৌসুম। এই সিগনাল শুরু হওয়ার আগে জেলেরা মাছ ও মধু সংগ্রহের জন্য প্রবেশ করেছিল। অনেকেই বের হয়ে এসেছে, যে কয়জন ছিলেন তাদের খবর এখনো পাওয়া যায়নি।’
এদিকে ঘূর্ণিঝড় আমফানের কারণে সুন্দরবনে সুষ্ট ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণে চারটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ুু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। বৃহস্পতিবার (২১ মে) নিজের সরকারি বাসভবন থেকে ঘূর্ণিঝড় আমফান পরবর্তী অনলাইন প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী এ কথা জানান। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিগুলোকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলে হয়েছে।
পরিবেশ ও বনমন্ত্রী বলেন, বরাবরের মতো এবারও সুপার সাইক্লোন আমফানে সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ে সুন্দরবনের ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণে চারটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সহকারী বন সংরক্ষক পদাধিকারী রেঞ্জ অফিসারদের নেতৃত্বে এ কমিটিগুলো গঠন করা হয়েছে। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিগুলোকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে।
ঘূর্ণিঝড়ের ফলে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে বনবিভাগের ৬০টির অধিক পুকুরে লবণাক্ত পানি প্রবেশ করেছে। সুন্দরবনের গাছ গাছালির মধ্যে কেওড়া গাছ বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানিয়েছে, সুন্দরবনের ক্ষতিগ্রস্থ বা ভেঙে যাওয়া গাছপালা অপসারণ করা হবে। সুন্দরবন নিজস্ব প্রাকৃতিক ক্ষমতা বলেই এটি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনবে বলে তাঁর আশা। শুধু ক্ষতিগ্রস্থ অবকাঠামোগুলোর প্রয়োজনীয় সংস্কার করা হবে। পুকুরগুলোর লবণাক্ত পানি অপসারণ করে ব্যবহার উপযোগী করা হবে। প্রযোজ্য ক্ষেত্রে কিছু পুকুর পুনঃখননের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বুধবার (২০ মে) সন্ধ্যারাত থেকে শুরু হয় অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় আমফানের তান্ডব। সারারাত এটি দেশের দক্ষিণ-দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে তান্ডব চালিয়েছে। সারারাত তান্ডব চালানোর পর সকাল সাড়ে ৭টার পর এটি স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়। এরপর স্থল নিম্নচাপ হিসেবে রাজশাহীতে অবস্থান করছিল আমফান।
আবু সাইদ বিশ্বাস:সাতক্ষীরা: ২২/০৫/২০২০

Please follow and like us:

Check Also

আশাশুনিতে পুশ বিরোধী অভিযান।।২০০ কেজি চিংড়ী জব্দ ও আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট

এস, এম মোস্তাফিজুর রহমান (আশাশুনি) সাতক্ষীরা।।আশাশুনতে পুশ বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। রবিবার (২১শে এপ্রিল) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।