ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল থেকে কুরআনের হাফেজ হলেন অর্ধশত শিক্ষার্থী

পবিত্র কুরআনের হিফজ সম্পন্ন করেছেন রাজধানীর একটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অর্ধশত শিক্ষার্থী। রাজধানীর লালমাটিয়ার ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে তারা এ কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। হাফেজ হওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৩ জন মেয়ে শিক্ষার্থীও রয়েছেন।

ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, স্কুলের শিক্ষকদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এসব শিক্ষার্থী কুরআনের হাফেজ হয়েছেন। পবিত্র কুরআনের ৩০ পারা মুখস্ত করতে প্রতিজন শিক্ষার্থী ২ থেকে আড়াই বছরের মতো সময় লেগেছে। এর মধ্যে কয়েকজন শিক্ষার্থী মাত্র এক বছরেই কুরআনের হাফেজ হওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

মূলত ক্যামব্রিজ কারিকুলামের পরিচালিত প্রতিষ্ঠানটিতে জেনারেল সাবজেক্ট এর পাশাপাশি আরবি ভাষা এবং ইসলাম শিক্ষা বিষয়ে পাঠদান করা হয়৷ ফলশ্রুতিতে এ লেভেল পাশ করার পর মিশরের আল আজাহার বিশ্ববিদ্যালয় এবং সৌদি আরবের মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামিক বিষয়ে উচ্চতর শিক্ষা অর্জনের পথ শিক্ষার্থীদের জন্য উম্মুক্ত থাকছে। হিফয বিভাগের সফলতার পাশাপাশি ও লেভেল পরীক্ষাতেও সব শিক্ষার্থী ‘এ প্লাস’ পেয়ে অভুতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে।

স্কুলটিতে প্রতি সেকশনে সর্বোচ্চ শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৫ জন এবং হিফজ ক্লাসে শিক্ষক ও ছাত্রের অনুপাত সংখ্যা ১:৪ ৷

ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সৈয়দা বদরুন্নেছা ইসলাম  বলেন, ক্লাসের স্বাভাবিক পড়াশোনা নিশ্চিত করে এর পাশাপাশি কুরআন হিফজের এই উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রতিদিন ফজর নামাজের পর দুই ঘণ্টা এবং বার্ষিক বিভিন্ন ছুটির সময়কে কাজে লাগিয়েই কুরআন হিফজ শেষ করেছে এসব শিক্ষার্থী।

তিনি আরও বলেন, আগ্রহী শিক্ষার্থীদের জন্য সকাল ৬টা থেকে ৮টা পর্যন্ত কুরআন শিক্ষার ক্লাস চালু করি। নির্দিষ্ট সময় পর এই ক্লাসের হিফজে আগ্রহীদের জন্য হিফজ কোর্স চালু করা হয়। সাধারণত প্রতিদিন সকালে দুই ঘণ্টা, রমজান মাস ও শীতকালীন ছুটির সময়ে এই কোর্সের শিক্ষার্থীরা বেশি সময় হিফজে ব্যয় করে বলে জানান তিনি।

Check Also

আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে অবস্থান মূলত ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া : ড. মাসুদ

ষিতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং পরে বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য কেউ ভূমিকা রাখেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।