সাতক্ষীরায় ডায়রিয়া ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে

তীব্র শীতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে শীতজনিত রোগ। বিশেষ করে শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ ঠা-াজনিত নানা রোগে।
একে তো মাঘের শীত, তার ওপর শৈত্যপ্রবাহ। শীতে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ। শীতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যাও। জেলার হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়রিয়া ও সর্দি-জ্বর-কাশি নিয়ে রোগী ভর্তি বাড়ছে। এ ধরনের রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। ডায়রিয়াসহ শীতজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন শতশত শিশু। শীত বাড়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে রোগীর চাপও বেড়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে রোগীরা হাসপাতালে আসছে। বিশেষ করে ডায়রিয়া, কাশি, সর্দিসহ শ্বাসকষ্টজনিত রোগীর সংখ্যা বেশি। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে পরামর্শ। শিশুদের যেন ঠান্ডা না লাগে সে বিষয়ে অভিভাবকদের সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে। এ ছাড়া শিশুদের গরম পরিবেশে রাখার পাশাপাশি গরম খাবার ও বেশি করে তরল খাবার খাওয়ানোর পরামর্শ দেওযা হচ্ছে।

এদিকে সাতক্ষীরায় ডায়রিয়া-কোল্ড ডায়রিয়া ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। নানা বয়সী রোগীতে ভরে উঠছে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল। চলতি জানুয়ারি মাসের গত ২৮দিনে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালেই ২হাজার ১০৯জন রোগী ভর্তি হয়েছে। এছাড়া জেলার ৯টি সরকারি হাসপাতাল ও বেসরকারী হাসপাতাল ক্লিনিকগুলোতে রোগীর চাপ বেড়েই চলেছে।
যত দিন যাচ্ছে তত শীতের তীব্রতা বাড়ছে এই উপকূলীয় জেলায়। যার ফলে শিশুরা ডায়রিয়া-কোল্ড ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে ক্রমাগত। শীতের তীব্রতায় শিশু ছাড়াও নানা বয়সী রোগীরা ডায়রিয়াতে আক্রান্ত হচ্ছে।
এদিকে রোগীরা ডায়রিয়াজনিত অসুস্থতায় যেমন আক্রান্ত হচ্ছে তেমনি অসুস্থ মানুষদের সুস্থ করতে হাসপাতালের নার্স ডাক্তাররা হিমশিম খাচ্ছে। শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি ছাড়াও বাসি খাবার খাওয়ার ফলেও রোগাক্রান্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।
অভিভাবকরা জানান, হঠাৎ করে শীতের তীব্রতা বেড়ে গেছে। এতে বয়সী মানুষজন কিছুটা সুস্থ থাকলেও জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। বেড়েছে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা। এতে বিপাকে পড়েছেন দরিদ্র পরিবারগুলো। আর্থিক দৈনতায় ওষুধ কিনতে পারছেন না অনেকে। এ অবস্থা শিশুদের রোগ এড়াতে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা।
সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. শেখ সুফিয়ান রুস্তম বলেন, জেলায় কোল্ড ডায়রিয়া ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সতর্কতার কোন বিকল্প

Please follow and like us:

Check Also

বাঘ সংরক্ষণে সুন্দরবনে মিষ্টি পানির উৎস বাড়ানো হবে

সুন্দরবনাঞ্চল (শ্যামনগর): সুন্দরবনে বাঘ সংরক্ষণে মিষ্টি পানির উৎস বাড়ানো হবে ও সুন্দরবনে কেল্লা তৈরী করা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।