সকল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে আল্লাহর দ্বীনকে বিজয়ী করার প্রচেষ্টা চালাতে হবে – ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ বলেছেন, পৃথিবী মুমিনের জন্য আরাম আয়েশের স্থান নয়, মূলত এটা একটা পরীক্ষা কেন্দ্র। আমরা ছিলাম জান্নাতে, আমাদের রব আল্লাহ তায়ালা আমাদের পরীক্ষার জন্য দুনিয়ায় প্রেরণ করেছেন। এজন্য একজন ঈমানদার হিসেবে আমাদেরকে আল্লাহর দেওয়া বিধান অনুযায়ী জীবন পরিচালনা করতে হবে। ইকামাতে দ্বীনের কাজে আত্মনিয়োগ করতে হবে। তবেই আমরা শেষ বিচারের দিনে জাহান্নাম থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারবো। ঈমানদারেরা দুনিয়াতে এক আল্লাহ ছাড়া আর কাউকে ভয় পেতে পারে না। যে হৃদয়ে আল্লাহর ভয় আছে সেখানে দুনিয়ার কোন ভয় থাকতে পারেনা। এজন্য পৃথিবীর সকল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে আমাদের আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীনকে বিজয়ী করার প্রচেষ্টা চালাতে হবে।

আজ সোমবার রাজধানীর একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের ধানমন্ডি উত্তর থানার উদ্যোগে আয়োজিত রুকন সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের মজলিসে শুরা সদস্য ও ধানমন্ডি উত্তর থানা আমীর মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুর রহমান। ধানমন্ডি জোনের টিম সদস্য এডভোকেট জসীম উদ্দিন তালুকদার, থানা সেক্রেটারি মোস্তাফিজুর রহমান, থানা কর্মপরিষদ সদস্য সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ বলেন, পবিত্র কুরআনে জাহান্নামের খবর আগে উল্লেখ করে মানুষদেরকে বারবার সর্তক করা হয়েছে। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন জান-মালকে আমাদের কাছে আমানত হিসেবে প্রদান করেছেন ফলে দ্বীন ইসলামকে বিজয়ী করতে আমাদেরকে জান-মাল দিয়ে প্রচেষ্টা চালাতে হবে। তাহলেই আমরা সফলকাম হবো অন্যথায় আল্লাহর সাথে কৃত ওয়াদা ভঙ্গ করলে অত্যন্ত কঠোর শাস্তি প্রদানের কথা বলা হয়েছে। এমনকি জালেম ও অত্যাচারী শাসক চাপিয়ে দেওয়ার কথাও রাসুল সাঃ উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন, আজকে বাংলাদেশে এক ফ্যাসিস্ট সরকার জাতির ঘাড়ে চেপে বসেছে। জনগণের সাথে প্রতারণা করে এই আওয়ামী সরকার সারাজীবন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতাকে কুক্ষিগত রাখতে চায়। তারা জনগণের গণতান্ত্রিক সকল অধিকার হরণ করেছে। দেশে আজ বাক-স্বাধীনতা নাই, ভোট ও ভাতের অধিকার নাই। সামাজিক ব্যাধির মতো অশ্লীলতায় চারিদিকে ছেয়ে গেছে। শিক্ষা ব্যবস্থায় ইসলামের পরিবর্তে পৌত্তলিকতা শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে। এভাবে দেশ চলতে পারেনা। দেশের মানুষের মুক্তির জন্য ইসলামের সু-মহান আদর্শের আলোকে ন্যায় ও ইনসাফের ভিত্তিতে একটি কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তিনি সেই কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে জামায়াতে ইসলামীর রুকনদের সর্বোচ্চ ত্যাগ ও কুরবানী প্রদানের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান।

Please follow and like us:

Check Also

কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানকে অব্যাহতি

সনদ বাণিজ্য চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পর এবার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।