দেশ ও জাতির মুক্তির জন্য জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে-ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম

বিশ্ব  ইতিহাসে ভাষার জন্য শাহাদাত বরণ অদ্বিতীয় ও বিরল ঘটনা হলেও নেতিবাচক রাজনীতির কারণে ভাষ াশহীদ ও সৈনিকদের যথাযথ মূল্যায়ন করা হয়নি এবং বাংলাভাষাও সর্বজনীন হয়ে ওঠেনি বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম।

তিনি আজ রাজধানীর একটি মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের মোহাম্মদপুর পশ্চিম থানা আয়োজিত এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান  প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। থানা আমীর ডা. শফিউর রহমানের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি মাসুদুজ্জামানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে  বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা ঢাকা মহানগরীর উত্তরের কর্মপরিষদ সদস্য ও জোন পরিচালক মু. জিয়াউল হাসান। উপস্থিত ছিলেন থানা নায়েবে আমীর মাহাদী হাসান, থানা কর্মপরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম, রুহুল আমিন ও এবাদত হোসেন প্রমূখ।

ড. রেজাউল করিম বলেন, অন্যায়, অবিচার, অপরাজনীতি ও বৈষম্যের পরিবর্তে ন্যায়- ইনসাফভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় ছিল স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। ভাষা আন্দোলনের পথ ধরে মরণপণ মুক্তি সংগ্রামের মাধ্যমে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করলেও পাঁচ দশক অতিক্রান্ত হওয়ার পরেও স্বাধীনতার সুফলগুলো আজও আমাদের কাছে অধরায় রয়ে গেছে। গণতন্ত্র ও নির্বাচনের নামে দেশ ও জাতির সাথে চলছে নির্মম প্রহসন। এমতাবস্থায় গণমানুষের গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে হলে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার কোন বিকল্প নেই। তিনি মহান একুশের চেতনায় শোষণ, বঞ্চনা, ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত গণতান্ত্রিক সমাজ গঠনে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের বিচ্যুতির কারণেই আইনের শাসন প্রতিষ্ঠানিক ভিত্তি পায়নি। সংবিধানে সর্বশক্তিমান আল্লাহর ওপর আস্থা কথা বলা হলেও রাষ্ট্রাচারের কোন ক্ষেত্রেই সে প্রতিফলন নেই। মূলত, ইসলাম ও ইসলামী মূল্যবোধই হচ্ছে আমাদের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের রক্ষাকবজ। কিন্তু শাসকগোষ্ঠী বিভিন্ন তন্ত্রমন্ত্রের কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করে জাতিকে এক অনিশ্চিত গন্তব্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কথিত উন্নয়নের ঢাকঢোল পিটিয়ে গণমানুষের ভোটের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। যা ৭ জানুয়ারির তামাশার নির্বাচনের মাধ্যমে দেশ ও জাতির সামনে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। তাই দেশের মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হলে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের কোন বিকল্প নেই। তিনি  ন্যায়-ইনসাফের ভিত্তিতে ইসলামী সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

ভাটারায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

আজ সকাল ৮টায় স্থানীয় একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ভাটারা থানার এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। থানা আমীর এডভোকেট রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারি সেক্রেটারি নাজিম উদ্দিন মোল্লা। উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি ও সেক্রেটারিসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

কাফরুলে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

যুব বিভাগ কাফরুল দক্ষিণ থানার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে  সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ কর্মসূচি পালিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারি সেক্রেটারি  ডা. ফখরুদ্দীন মানিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব বিভাগ কাফরুল জোন পরিচালক খান হাবিব। উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারি মুসআব মুহাইমিন, জামায়াত নেতা সালাউদ্দিন শাহিন, তারেক ও জাকির হোসেন প্রমূখ।

হাতিরঝিল থানা পূর্ব থানায় আলোচনা সভা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের হাতিরঝিল পূর্ব থানার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও দোয়া থানা আমীর এডভোকেট জিল্লুর রহমান আজমীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি খন্দকার রুহুল আমিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।  স্থানীয় একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও হাতিরঝিল অঞ্চল পরিচালক হেমায়েত হোসাইন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগরীর উত্তরের প্রচার-মিডিয়া সম্পাদক আতাউর রহমান সরকার। বক্তব্য রাখেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য আবু সাদিক, আবুল হাশেম ও আশিকুর রহমান প্রমূখ।

গুলশানে আলোচনা সভা

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের গুলশান পূর্ব থানার উদ্যোগে মহান ভাষা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  থানা আমীর আবু জুনাইদের সভাপতিত্বে এবং থানা শূরা ও কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা ওমর ফারুকের পরিচালনায় আলোচনা সভায় প্রধান আলোচক ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ইয়াছিন আরাফাত। উপস্থিত ছিলেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা আবু তোহফা, আবু দোয়া, ইব্রাহিম খলিল, মাইদুল ইসলাম ও মিলন সরকার প্রমূখ।

মিরপুর থানা দক্ষিণে আলোচনা সভা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের মিরপুর দক্ষিণ থানার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর এডভোকেট আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি রাকিবুল ইসলামের পরিচালনায় স্থানীয় একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য আমির হোসেন ও তাজুল ইসলাম প্রমূখ।

মগবাজারে শিশু-কিশোরদের নিয়ে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী হাতিরঝিল পশ্চিম থানার উদ্যোগে একটি মিলনায়তনে শিশু-কিশোরদের নিয়ে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। হাতিরঝিল পশ্চিম থানা আমীর  আবু আহমাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারি রাশেদ আহমদ, জামায়াত নেতা আখতার হোসাইন, শামীম হোসাইন, বাসির আহমদ, ইকবাল হোসেন ও ইদ্রিস আলী আনসারী প্রমূখ।

মিরপুর থানা দক্ষিণে দোয়া মাহফিল

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগরী উত্তরের মিরপুর দক্ষিণ থানার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর এডভোকেট আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে ও থানা সেক্রেটারি রাকিবুল ইসলামের পরিচালনায় স্থানীয় একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন ও থানা কর্মপরিষদ সদস্য আমির হোসেন ও তাজুল ইসলাম প্রমূখ।

পল্লবী থানায় আলোচনা সভা

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন পল্লবী উত্তর থানার উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পল্লবী উত্তর থানা সভাপতি  মো. মহিব্বুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন ঢাকা মহানগরী উত্তরের সভাপতি  মাওলানা  মুহিব্বুল্লাহ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগরী উত্তরের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও গুলশান জোনের সহকারী পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম, উপস্থিত ছিলেন পল্লবী মধ্য থানা সভাপতি মো.  রফিকুল ইসলাম,  ইসহাক হোসেন ও ইসমাইল হোসেন প্রমূখ।

তেজগাঁও দক্ষিণে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প ও ব্লাড গ্রুপিং

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষে তেজগাঁও দক্ষিণ থানার উদ্যোগে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প ও ব্লাড গ্রুপিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

থানা আমীর ইঞ্জিনিয়ার নোমান আহমেদির সভাপতিত্বে ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ রুবেলের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের প্রচার-মিডিয়া সম্পাদক আতাউর রহমান সরকার। বিশেষ  অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক ফারুক আহমেদ ও ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় প্রকাশনা সম্পাদক কলিম উল্লাহ । আরো উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা মিয়া মুহাম্মদ তৌফিক, আলী আকবর ও হাসান ইমাম প্রমূখ। এতে সহস্রাধিক মানুষকে ফ্রি চিকিৎসা সেবা, ওষুধ প্রদান ও ব্লাড গ্রুপিং করা হয়।

Please follow and like us:

Check Also

কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানকে অব্যাহতি

সনদ বাণিজ্য চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পর এবার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।