আশাশুনিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত

এস, এম মোস্তাফিজুর রহমান ॥ আশাশুনিতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’২৪ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার প্রত্যুষে থানা চত্বরে একত্রিশবার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির শুভ সূচনা করা হয়। এরপর সূর্যোদয়ের সাথে সাথে বিভিন্ন সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বে-সরকারী প্রতিষ্ঠানের ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সকাল ৯টায় আশাশুনি কেন্দ্রীয় শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এসময় আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম এর নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রনি আলম নূরের নেতৃত্বে উপজেলা প্রশাসন, সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ এর নেতৃত্বে আশাশুনি সরকারী কলেজ, থানা অফিসার ইনচার্জ বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী এর নেতৃত্বে আশাশুনি থানা পুলিশ, আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং অঙ্গ সহযোগি সংগঠন, আশাশুনি মহিলা কলেজ, আশাশুনি সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আশাশুনি বালিকা বিদ্যালয়, জাতীয় পার্টি, সদর ইউনিয়ন পরিষদ, সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ, পূজা উদযাপন পরিষদ, ফ্রেন্ডস স্পোর্টিং ক্লাব, আশাশুনি বাজার বণিক সমিতিসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। মাল্যদান শেষে উপস্থিত সকলকে শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। সকাল ৯.৩০টায় আশাশুনি সরকরি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এরপর অভিবাদন মঞ্চে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এবিএম মোস্তাকিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রনি আলম নূর ও থানার অফিসার ইনচার্জ বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী। পরে কুচকাওয়াজ ও মাঠ পার্স অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সাড়ে ১০টায় ছাত্র-ছাত্রীদের সমাবেশ ও ক্রীড়া অনুষ্ঠান, বেলা ১১টায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক নেতৃত্ব এবং দেশের উন্নয়ন বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাড়ে ১১টায় উপজেলা পরিষদ চত্তরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মুক্তিযোদ্ধা ভিত্তিক প্রমাণ্য চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও যোহর নামাজ বাদ মসজিদে ও সুবিধামত সময়ে অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় এবং দুপুরে হাসপাতাল ও এতিমখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়। এরপর বিকাল ৩টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে মহিলাদের ক্রীড়া অনুষ্ঠান ও বিভিন্ন ইভেন্টে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। সন্ধ্যায় সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বে-সরকারী প্রতিষ্ঠানের ভবনসমূহে আলোকসজ্জা করা হয়।

Please follow and like us:

Check Also

কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানকে অব্যাহতি

সনদ বাণিজ্য চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পর এবার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।