নির্বাচনে কোন প্রার্থীকে বাড়তি সুযোগ নিতে দেওয়া হবে না……. পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকী

এস, এম মোস্তাফিজুর রহমান (আশাশুনি) সাতক্ষীরা।।
সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকী বলেন- উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী কোনো প্রার্থীকে কোনো ধরনের বাড়তি সুযোগ নিতে দেওয়া হবে না। অবাধ-সুষ্ঠু-গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেবা দেবো সর্বোচ্চ, আইন প্রয়োগ হবে শতভাগ। আশাশুনি উপজেলার এই নির্বাচন হবে সারা দেশের একটি মডেল নির্বাচন।

সোমবার (২০ মে) বেলা ১১টায় আশাশুনি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত ব্রিফিং প্যারেড শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মতবিনিময়কালে অন্যদের মধ্যেউপস্থিত ছিলেন আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রনি আলম নুর, আশাশুনি থানার ওসি বিশ্বজিৎ অধিকারী, ওসি (তদন্ত) মো. রফিকুল ইসলামসহ নির্বাচন পরিচালনা ও আইনশৃঙ্খলা প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ।

এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকগনের উদ্দেশ্যে এসপি মুহাম্মদ মতিউর রহমান সিদ্দিকী বলেন- আপনারা গণমাধ্যমকর্মী, আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। চোখ-কান খোলা রেখে সাংবাদিকদের কাজ করতে হবে, কোথাও কোনো অভিযোগ পেলে সঙ্গে সঙ্গে তিনি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জানানোর আহ্বান জানান।

ভোটাররা যাতে করে নির্বিঘ্নে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারে সে বিষয়ে সবার সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন- ভোটকেন্দ্রে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না। এমনকি ভোটকেন্দ্রের আশপাশ এলাকায় কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হলে কঠোর হস্তে তা দমন করা হবে।

নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থী কর্তৃক চিহ্নিত ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের তালিকা জমা প্রদান সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে এসপি বলেন- প্রার্থী কর্তৃক ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের তালিকা আমরা পেয়েছি এবং সে মোতাবেক ওই সমস্ত কেন্দ্রগুলোতে বিশেষ নজরদারি রাখা হয়েছে। পোশাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন মোতায়েন করা হয়েছে।

ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের কেন্দ্রে অবাধ প্রবেশসংক্রান্ত সাংবাদিকদের এক প্রশ্ন জবাবে তিনি বলেন- চেয়ারম্যানরাও অপরাপর সাধারণ মানুষের মতো। শুধু তার নিজের ভোটটি দিতে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন, এর বাইরে কোনো চেয়ারম্যান কোনো অবস্থায় লোকজন নিয়ে কেন্দ্রের ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন না। চেয়ারম্যান কেন, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। সবাইকে আইন মেনে চলতে হবে। কোথাও এর ব্যতিক্রম হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২১ মে) দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৫জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ইতোমধ্যে ভোটগ্রহণের যাবতীয় প্রাথমিক কর্মকাণ্ড শেষ হয়েছে। উপজেলার ৮৭টি কেন্দ্রের ৬০৪টি বুথে ২ লাখ ৩৯ হাজার ২১০ জন ভোটার রয়েছেন। ১ জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার এবার ভোট প্রদান করবেন।

Please follow and like us:

Check Also

জেলা রেজিস্ট্রার জনাব শেখ আব্দুর রাজ্জাকের মৃত্যুতে সাতক্ষীরা জামায়াতের শোক

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর মহিলা রোকন, সাবেক জেলা কর্মপরিষদ সদস্য হোসনিয়ারা মারিয়ার স্বামী অবসরপ্রাপ্ত জেলা রেজিস্ট্রার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।