ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের ১৪জন মৃত সদস্যকে মরণোত্তর নগদ অর্থ প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলা ভিআইপি ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের ১৪জন মৃত সদস্যের পরিবারের হাতে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে।
শনিবার (৮ জুন) বিকাল সাড়ে ৫টায় আলিপুরস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে সাতক্ষীরা জেলা ট্রাক ট্রাক্টর কাভার্ডভ্যান ট্যাংক লরী (দাহ্য পদার্থ বহনকারী ব্যতিত) শ্রমিক ইউনিয়নের (রেজি: নং ১২৭৫/৯৮ খুলনা) আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য লায়লা পারভীন সেঁজুতি।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ হ ম তারেক উদ্দীন।
ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি বকুল মোড়লের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ বাবুর সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা শ্রমিক লীগের আহবায়ক সাইফুল করিম সাবু, সদস্য সচিব মাহমুদুল আলম বিবিসি, ট্রাক মালিক সমিতির আব্দুল মোমেন চৌধুরী সান্টু, জয়নাল আবেদিন কিরণ, আলিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল ইসলাম জিয়া, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি আজিজুল হক, হাফিজুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ সাহাঙ্গীর হোসেন শাহীনসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
৩১৩ মহিলা আসনের সংসদ সদস্য লয়লা পারভীন সেঁজুতি বলেন, আমার বাবা শিক্ষকতার পাশাপাশি শ্রমিকদের জন্য বেশি কাজ করতেন। রাজনীতিতে তিনি যখন সক্রিয় অংশগ্রহণ করেছেন তখন তিনি শ্রমিকদের নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। সে কারণে আমিও আপনাদের একজন। আমি একজন শ্রমিক পরিবারের সদস্য। আমার বাবাকে দেখেছি মোটরসাইকেলে ঘুরতে, তিনি গাড়ি ব্যবহার করতেন না।
তিনি আরও বলেন, বর্তমান কমিটি যখন দায়িত্ব নিয়েছে তখন তাদের দেনার পাহাড় নিয়ে কাজ শুরু করতে হয়েছে। তারপরও দায়িত্ব নেওয়ার দুই মাসের একটু বেশি সময়ে যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এটি প্রশাংসার দাবীদার রাখেন। তারা নিজেরা বেতন না নিয়ে মহৎ এই উদ্যোগ নেওয়ার জন্য বর্তমান কমিটিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আগামীতে যারা আবসে তারাও এ ধরনের উদ্যোগ নেবে বলে আশা করি। যে সকল মায়ের স্বজন হারিয়েছে। তারা তাদের স্বজন ফিরে পাবে না। কিন্তু এই অর্থ কিছুটা হলেও তাদের আর্থিক কষ্ট লাগবে সহায়ক হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিকদের জন্য শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের মাধ্যমে ১০ কোটি টাকা দিয়েছেন। নিয়োগপত্র থাকলে প্রতিটি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার ১০লাখ টাকা পাবে। এজন্য মালিকদের কাছে আহŸান করবো শ্রমিকদের নিয়োগপত্র দেওয়ার জন্য।
তিনি আরও বলেন, জেলা কিছু সংগঠন থেকে রাহু মুক্ত করা প্রয়োজন। অবৈধ শক্তির বলে তারা ক্ষমতায় আছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল অর্জনকে নস্যৎ করতে চোরকারবারি, গডফাদার চক্র কাজ করে যাচ্ছে। এই চক্র বিভিন্ন সংগঠনকে কুক্ষিগত করে রেখেছে। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে উঠার চেষ্টা করছে। সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সংগঠনগুলো থেকে রাহু মুক্ত করতে হবে। নিহত ও মৃত শ্রমিকের পরিবার মাত্র ৩০ ও৬০ হাজার টাকা নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এই সংগঠনগুলো দখল করে কোটি কোটি টাকা লুটে নিয়ে যাচ্ছে। সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করলে খুনি, চোরকারবারি ও গডফাদারদের হাত থেকে শ্রমিকদের সম্পদ উদ্ধার করা সম্ভব। আসুন সকলে এক হয়ে সুন্দর সাতক্ষীরা গড়ে তুলি।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের মাধ্যমে আসা কমিটি বেতন ভাতা না নিয়ে টাকা সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ও মৃত্যুবরণকারী সদস্য মাঝে বিতরণ করছে। এটি খুবই ভালো উদ্যোগ। নির্বাচনের মাধ্যমে তারা এসেছে বলেই তারা এই কাজটি করতে পেরেছে। নির্বাচনের সৌন্দর্য্য এটাই। আগামীতে যারা আসবে তারাও এটি করবে। জানতে পারলাম ট্রাক মালিক সমিতিতে অনেক বছর নির্বাচন হয় না। এই সংগঠনটি নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করে যাবে এটাই পত্যাশা।
তিনি আরও বলেন, আধুনিক সাতক্ষীরার রূপকার স.ম আলাউদ্দীন শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করে গেছে। ট্রাক মালিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। গডফাদারা জুন মাসের ১৯ তারিখে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিলো। নারকেলতলা শ্রমিক ইউনিয়ন ও বাস টার্মিনালের উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করতে করতে ভোমরা স্থলবন্দর প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন দিখেছিলেন। ভোমরা স্থল বন্দর প্রতিষ্ঠা করে গডফাদারদের হাতে তাকে হত্যা হতে হয়েছিলো। তার কন্যা লায়লা পারভীন সেজুতিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি বানিয়েছেন। তিনিও শ্রমিক ও সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে।
প্রসঙ্গত, ১৪জন শ্রমিকের মাঝে ৫ লাখ টাকার মরণোত্তর চেক বিতরণ করা হয়। দু’জন শ্রমিককে ২০ হাজার, নয় জন শ্রমিকদের মাঝে ৩০ হাজার এবং ৩জন শ্রমিকের পরিবারের হাতে ৬০ হাজার টাকা তুলে দেওয়া হয়। নতুন কমিটি দুই মাস ২৪ দিন বেতনের টাকা নিহত শ্রমিকদের মাঝে এ টাকা বিতরণ করেন।

Please follow and like us:

Check Also

জেলা রেজিস্ট্রার জনাব শেখ আব্দুর রাজ্জাকের মৃত্যুতে সাতক্ষীরা জামায়াতের শোক

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর মহিলা রোকন, সাবেক জেলা কর্মপরিষদ সদস্য হোসনিয়ারা মারিয়ার স্বামী অবসরপ্রাপ্ত জেলা রেজিস্ট্রার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।