সোমবার , ১৩ জুলাই ২০২০

সাতক্ষীরায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে মাদক মামলার ৮ জনসহ গ্রেফতার ২১

ক্রাইমর্বাতা রিপোট:   সাতক্ষীরা জেলা ব্যাপী পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে মাদক মামলার ৮ জনসহ ২১ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে। অভিযানের সময় পুলিশ ১২০ পিচ ইয়াবা, ২৩ বোতল ফেন্সিডিল ও ৫০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছে।

শনিবার(০৭ সেপ্টেম্বর)সন্ধ্যা থেকে আজ রবিবার(০৮ সেপ্টেম্বর)সকাল পর্যন্ত  আটটি থানার  বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আসামীদের গ্রেফতার করে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে সাতক্ষীরা সদর থানা থেকে ৭ জন,কলারোয়া থানা থেকে ২ জন,তালা থানা থেকে ১ জন,কালিগঞ্জ থানা থেকে ২ জন,শ্যামনগর থানা থেকে ৪ জন,আশাশুনি থানা থেকে ৪ জন,পাটকেলঘাটা থানা থেকে ১ জনসহ ২১ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মো. মিজানুর রহমান গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,আসামীদের বিরুদ্ধে মাদক ও নাশকতাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।এছাড়াও বিভিন্ন থানায় গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ৬ টি মাদকের মামলা হয়েছে।

কালিগঞ্জে ছিনতাই ও মারপিটের মামলায় বাহিনী প্রধান ডালিম সহ গ্রেপ্তার-২

 কালিগঞ্জের পল্লীতে এক ব্যবসায়ীকে মারপিট ও টাকা ছিনতাইয়ের মামলায় বাহিনী প্রধান ডালিম মেম্বর সহ ২ জন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার বেলা ১টার সময় পালানোর পথে উপজেলার কাঁকশিয়ালী গ্রামের জ্যাকি সিনেমা হল সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা অনুপ কুমার দাশ তাদের কে মটরসাইকেল সহ গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার মৌতলা গ্রামের মীর জিয়াউর রহমানের পুত্র বাহিনী প্রধান মৌতলা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মীর সালমান রহমান ওরফে ডালিম(৩৫) এবং একই গ্রামের শেখ আহছান হাবিবের পুত্র শেখ রানা(২৫)। এর আগে শুক্রবার রাতে মামলার অপর আসামী সোহেল কে উক্ত মামলায় গ্রেপ্তার করে পুলিশ। থানা সূত্রে জানা যায়, ইউপি সদস্য মাদকাসক্ত মীর সালমান রহমান ওরফে ডালিমের নেতৃত্বে ডালিম বাহিনী নামে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরে মাদকের টাকা যোগাড় করার জন্য ব্যবসায়ী এবং সাধারণ জনগণের নিকট চাঁদাবাজী ও ছিনতাই করে আসছিল।

গতকাল বৃহস্পতিবার মৌতলা বাজারের ব্যবসায়ী মোকছেদ আলীর নিকট চাঁদার টাকা না পেয়ে তার মটরসাইকেল ছিনতাই চেষ্টাকালে পুত্র তপু বাঁধা দিলে তাকে মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে। উক্ত ঘটনায় নামাজ গড় গ্রামের ব্যবসায়ী মোকছেদ আলীর স্ত্রী মঞ্জুয়ারা বেগম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ৫-৬জন কে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করে, মামলা নং-৪। ডালিম সহ তার বাহিনীর সদস্যরা গ্রেপ্তার হওয়ায় মৌতলা বাজারের ব্যবসায়ীরা গতকাল মিষ্টি বিতরণ করে। গ্রেপ্তারের বিষয়টি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা অনুপ দাশ স্বীকার করেন। থানায় আটক ইউপি সদস্য মীর সালমান রহমান ওরফে ডালিম এপ্রতিনিধি কে বলেন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে মিথ্যা ভাবে হয়রানি করা হচ্ছে।

About ক্রাইমবার্তা ডটকম

Check Also

শুল্ক ফাঁকি, বেনাপোল কাস্টমসের ৩ কর্মকর্তা বরখাস্ত

ক্রাইমবাতা রিপোট: যশোর বেনাপোল:     র্রাজস্ব ফাঁকিতে সহযোগিতা করে আমদানি পণ্যের চালান খালাস দেয়ার অভিযোগে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *