নভেম্বর ১২, ২০১৯
শ্যামনগরে শিক্ষাখাতে ক্ষতি প্রায় দুই কোটি টাকা: বুলবুলকে পুঁজি করে গুটিকতক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য সরবরাহের অভিযো

শ্যামনগর প্রতিনিধি: সুপার সাইক্লোন বুলবুলের তান্ডবে শ্যামনগর উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্র বিভিন্ন কলেজ, মাদ্রাসা, মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়সুমহের ক্ষয়ক্ষতির এ পরিমান নিশ্চিত করেছে।

এদিকে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে খুব বেশি ক্ষতি না হওয়া সত্ত্বেও সেসব প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে বিশাল অংকের ক্ষয়ক্ষতির তালিকা জমা দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা যায় উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্থ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৩৭টি। এছাড়া ৩৬টি দাখিল ও ১০টি এবতেদায়ী মাদ্রাসাসহ সাতটি কলেজ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। একইভাবে উপজেলার ৪৫টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ও বুলবুলের তান্ডবের শিকার হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সমুহের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় ৬৩ লক্ষ টাকা। এছাড়া কলেজসমুহে সাত লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হলেও দাখিল মাদ্রাসাগুলোতে আর্থিক ক্ষতির পরিমান দাড়িয়েছে ৬১ লাখ ৬০ হাজার টাকায়। এবতেদায়ী মাদ্রাসাসমুহে ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হলেও মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রায় ৫২ লাখ টাকার সম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সুত্র মতে সবগুলো প্রতিষ্ঠানে গাছ পড়ে কিংবা গাছ উপড়ে ভবনের উপর পড়ে ক্ষয়ক্ষতি হলেও অনেক প্রতিষ্ঠানের ছাউনি পর্যন্ত উড়ে গেছে। কোন কোন প্রতিষ্ঠানের আসবাবপত্র ধ্বংস হওয়ার পাশাপাশি সীমানা প্রাচীর ভেঙে ক্ষয়ক্ষতি বাড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে অভিযোগ উঠেছে বেশকিছু প্রতিষ্ঠানে অল্পবিস্তর ক্ষয়ক্ষতি হলেও তারা সংশ্লিষ্ট দপ্তরে বিশাল অংকের ক্ষতির তালিকা জমা দিয়েছে। নাম না প্রকাশ করার অনুরোধ জানিয়ে এসব স্থানীয়রা অভিযোগ করেন সরেজমিনে পরিদর্শন করলে বিশাল অংকের ক্ষতি হয়েছে- মর্মে দাবিকৃত প্রতিষ্ঠানের প্রকৃত ক্ষতির পরিমান নিরুপন সম্ভব হবে।

তাদের দাবি ঈশ^রীপুর ইউনিয়নের একটি প্রতিষ্ঠানের কয়েকটি টিন উড়ে গেলেও শিক্ষা অফিস থেকে সরবরাহকৃত তালিকায় দেখা যায় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে দুই লাখ টাকা ক্ষতির দাবি করা হয়েছে। একইভাবে বংশীপুরের একটি প্রতিষ্ঠানে সামান্য ক্ষয়ক্ষতি হলেও তালিকায় তাদের ক্ষতির পরিমান তিন লাখ টাকা বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে বাস্তবতার সাথে সরবরাহকৃত তালিকার এমন বৈসাদৃশ্যের বিষয়ে জানার জন্য উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের সাথে মুটোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com