রবিবার , ৫ জুলাই ২০২০

শ্যামনগরের মাদার নদী থেকে বনবিভাগের নৌ-চালকের মৃতদেহ উদ্ধার

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ  সোমবার রাত এগারটার দিকে সুন্দরবন সংলগ্ন মাদার নদী থেকে নবাব আলী গাজী (৬৫) নামের বনবিভাগের কৈখালী ষ্টেশন অফিসের নৌযান চালকের উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে শ্যামনগর থানা পুলিশ উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের ভেটখালী এলাকার কোষ্টগার্ড অফিসের সম্মুখস্থ পল্টুনে বেঁধে থাকা অবস্থায় বনরক্ষীর পোশাক পরিধেয় মৃত নবাব আলীকে উদ্ধার করে। এর আগে রাত সাড়ে আটটার দিকে কোষ্টগার্ড সদস্যরা মাদার নদীতে তাদের স্থাপিত পল্টুনে মৃতদেহটি দেখতে পেয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদকে সংবাদ দেয়।
উদ্ধার হওয়া নবাব আলী পুর্ব কৈখালী গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পশ্চিম বনবিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের কৈখালী ষ্টেশনে নৌ-যান চালকের কাজ করছিলেন। তিনি পাঁচ সন্তানের জনক ছিলেন। দুই স্ত্রী থাকলেও তাদের মধ্যে কোন ঝগড়া বিবাদের খবর পরিবারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়নি।
নিহতের ছেলে কাছিকাটা টহলফাড়ির নৌ-যান চালক মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান রোববার রাত আটটার দিকে তার সাথে মুটোফোনে পিতার কথা হয়। পরবর্তীতে রাত নয়টার দিকে তিনি ষ্টেশন অফিস থেকে বাড়িতে ফিরে শুয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে রাত দশটার দিকে তার (নবাব আলী) মুটোফোনে কল দিয়ে কেউ তাকে ডাকায় বাড়ির পাশর্^স্থ ষ্টেশনে যাওয়ার কথা বলে নবাব আলী বেরিয়ে যান।
রফিকুল ইসলাম আরও জানায়, মা খোদেজা বিবিকে অফিসে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে যাওয়ায় বনের মধ্যে টহলে যাওয়ার কথা ভেবে সারাদিন তারা নবাব আলীর খোঁজ খবর নেয়নি। কিন্তু বেলা দুইটার দিকে কৈখালী ষ্টেশন থেকে ডাকতে আসার পর তারা নবাব আলীকে খুঁজতে থাকেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদ লাল্টু জানান, রাত সাড়ে আটটার দিকে কোষ্টগার্ডের সিসি সাহেব ফোন দিয়ে ডাকার পর তিনি কয়েকজনকে নিয়ে পল্টুনে বেঁধে থাকা অবস্থায় উপুড় হয়ে ডুবে থাকা মৃতদেহ নবাব আলীর বলে নিশ্চিত হয়ে শ্যামনগর থানা পুলিশকে অবহিত করেন। শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাজমুল হুদা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে পৌছে গেছেন। গুরুত্বের সাথে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে কৈখালী ষ্টেশন অফিসার কামরুল ইসলাম ষ্টেশনে না থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
এদিকে নিহতের ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম আরও জানিয়েছে পাশর্^বর্তী কালিন্দি নদীতে রাতে মাছ শিকারের সাথে জড়িত শওকাত, লিয়াকতসহ অনেকে জানিয়েছে যে রাত দুইটার দিকে তারা নবাব আলীকে উপকুল রক্ষা বাঁধের উপর নির্মিত সাইদ আলীর দোকানে বসে থাকতে দেখেছিলেন।

About ক্রাইমবার্তা ডটকম

Check Also

আম্পানের ৪৪ দিনেও পানিতে তলিয়ে আশাশুনি

ক্রাইমর্বাতা রিপোট: আশাশুনি:  গত ২০ মে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড় আম্পান। ওই সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *