সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী হাওয়া

ক্রাইমবার্তা ডটকম :  সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী হাওয়া বইছে জেলার ক্লাবগুলোতে। নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে দুটি প্যানেল। প্যানেলের একদিকে বীরমুক্তিযোদ্ধা বদরুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে স্বাধীনতা ক্লাব ঐক্য  পরিষদ।

অপর দিকে রয়েছেন সাবেক ছাত্রদল নেতা একেএম আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে জেলা ক্লাব ঐক্য পরিষদ। নির্বাচনকে নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। গুঞ্জন চলছে কারা ধরবেন হাল জেলা ক্রীড়া সংস্থার? ২২ সেপ্টেম্বর জেলা ক্রীড়া সংস্থার চার বছর মেয়াদী এই নির্বাচনের কারা হবেন জয়ী? দুটি প্যানেলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা তাদের জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

 

সূত্র জানায়, বীরমুক্তিযোদ্ধার নেতৃত্বে স্বাধীনতা ক্লাব ঐক্য পরিষদে রয়েছেন মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মো. বদরুল ইসলাম বদু। ১৯৭১ সালের ৭ডিসেম্বর সাতক্ষীরা মুক্ত দিবসে যাদের হাতে উঠেছিল জাতীয় পতাকা তিনি তাদের একজন।

অপরদিকে সাবেক ছাত্রদল নেতা একেএম আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে রয়েছে জেলা ক্লাব ঐক্য পরিষদ। তিনি সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক নেতা এবং জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদেক ছিলেন। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সম্মেলনে সভাপতি পদে অংশ নিয়ে তিনি আহসান হাবিব টুটুলের কাছে পরাজিত হন। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সরকার গঠিত হলে তাকে আর বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় দেখা যায়নি। জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন এবার এসব কারণে কৌতুহলের সৃষ্টি করেছে।

এদিকে সোমবার বিকেল ৩টায় জেলা প্রশাসকের নোটিশ বোর্ড ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার নোটিশ বোর্ডে বৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করেছেন নির্বাচন কমিশনার ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানজিন্নুর রহমান।

২২ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকার একদিকে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন প্রার্থীদের সমন্বয়ে স্বাধীনতা ক্লাব ঐক্য পরিষদ। যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ৪জন সহ-সভাপতি পদে মো. আশরাফুজ্জামান আশু, মো. মুজিবর রহমান, মেহেদী হাসান, আব্দুল মোমেন খান চৌধুরী সান্টু, সাধারণ সম্পাদক পদে বীর মুক্তিযুদ্ধা মো. বদরুল ইসলাম বদু, অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক পদে মাহমুদ হাসান মুক্তি, যুগ্ম-সম্পাদক পদে শেখ আব্দুল কাদের ও শেখ মারুফুল হক, কোষাধ্যক্ষ পদে মো. শাহ আলম হাসান শানু এবং ১৮ জন নির্বাহী সদস্য পদে কবীর উদ্দীন আহমেদ, আহম্মদ আলী সরদার, আ. হ. ম. আখতারুজ্জামান মুকুল, কাজী সফিউল আযম, শেখ রফিকুর রহমান লাল্টু, খন্দকার বদরুল আলম, হাফিজুর রহমান খান বিটু, ইমাদুল হক খান, ইকবাল কবির খান বাপ্পি, জিএম সাইফুল ইসলাম বাপ্পি, এসএম আব্দুল গফ্ফার, মো. আলতাফ হোসেন, মো. ময়নুর আরেফিন ও কবিরুজ্জামান রুবেল। ২টি উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদকের জন্য সংরক্ষিত পদে স. ম. সেলিম রেজা ও মীর জাকির হোসেন। ২টি মহিলা সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত পদে মিসেস ফারহানা দিবা খান সাথী ও শিমুন শামস্ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

অপরদিকে, অধিকাংশ তরুণ ও নতুন প্রার্থীদের নিয়ে সাতক্ষীরা জেলা ক্লাব ঐক্য পরিষদ প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ৪জন সহ-সভাপতি পদে মো. মিজানুর রহমান চৌধুরী, ফিরোজ আহমেদ, শেখ তহিদুর রহমান ডাবলু, শেখ আশরাফ আলী, সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক একেএম আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক পদে কাজী কামরুজ্জামান, যুগ্ম-সম্পাদক পদে মো. সাইদুর রহমান শাহীন ও মীর তাজুল ইসলাম রিপন, কোষাধ্যক্ষ পদে আল-আমিন কবির চৌধুরী ডেভিড এবং ১৮ জন নির্বাহী সদস্য পদে মো. আব্দুল মান্নান, মো. ইদ্রিস আলী বাবু, মো. হাবিবুর রহমান, মো. রুহুল আমীন, খন্দকার আরিফ হাসান প্রিন্স, সৈয়দ জয়নাল আবেদীন জসি, মো. লুৎফর রহমান সৈকত, মির্জা মনিরুজ্জামান কাকন, মো. রাশিদুজ্জামান সুমন, কাজী আক্তার হোসেন, শেখ হাবিবুর রহিম রিন্টু, শেখ তানজিম কালাম তমাল, শেখ মনিরুজ্জামান ও শেখ হেদায়েতুল ইসলাম। ২টি উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদকের জন্য সংরক্ষিত পদে জহুরুল হায়দার ও মো. জিয়াউল-বিন-সেলিম যাদু প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। আর উভয় প্যানেল থেকে ২টি মহিলা সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত পদে মিসেস ফারহানা দিবা খান সাথী ও শিমুন শামস্ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনের নির্বাচন কমিশনার ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানজিন্নুর রহমানের ঘোষিত তপশীলে বলা হয়, সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনিবাহী পরিষদের গত ১৯ আগস্ট সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ অনুমোদিত জেলা ক্রীড়া সংস্থার গঠনতন্ত্রের ২৬ এর ৩ অনুচ্ছেদ বলে সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার পরবর্তী ৪ (চার) বছর মেয়াদী কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠনকল্পে মো. তাজজিন্নুর রহমানকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগপূর্বক জেলা ক্রীড়া সংস্থার গঠনতন্ত্রের ১০ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাচন সম্পূর্ণ করার দায়িত্ব প্রদান করা হয়।

তৎপ্রেক্ষিতে তিনি সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার পরবর্তী ৪ (চার) বছর মেয়াদী কার্যনির্বাহী পরিষদের ৪ জন সহ-সভাপতি, একজন সাধারণ সম্পাদক, একজন অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক, দুইজন যুগ্ম-সম্পাদক, একজন কোষাধ্যক্ষ এবং ১৮ (আঠারো) জন নির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হবেন, যার মধ্যে ২টি সদস্য পদ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদকের জন্য সংরক্ষিত এবং ২টি সদস্য পদ মহিলা সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে।
এরআগে, গত ৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ দিনে উৎসবমুখর পরিবেশে উভয় প্যানেলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ করা হয়।

আগামী ২২ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলা অফিসার্স ক্লাবে একটানা বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ভোট গ্রহণ সমাপ্তির পর ভোট গণনা ও নির্বাচিত প্রার্থীদের ফলাফল ঘোষণা করা হবে।
সরাসরি ভোটারদের গোপন ব্যালটে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন আগামী চার বছর মেয়াদী কার্যনির্বাহী পরিষদের সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নেতৃত্বদানকারী নেতা-নেত্রী।

Check Also

সংবাদপত্র ও টেলিভিশন এখন আর গণমানুষের কথা বলতে পারছে না -রুহুল আমিন গাজী

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা : বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী বলেন, সাংবাদিকতা পেশা একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *