পাটকেলঘাটায় অপরিকল্পিত মৎস্যঘেরের বলি হচ্ছে সাধারণ কৃষক: অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার বড়বিলা গ্রামের আউলিতলার মাঠ দখল করে অবৈধ মৎস্যঘের নির্মাণ করেছে আব্দুল গফ্ফার ওরফে বাপ্পী নামের একজন। এ বিষয়ে প্রতিকার পেতে পুলিশী সহায়তা চেয়ে একই গ্রামের আব্দুর রউফ নামের এক বয়:বৃদ্ধ মারধরের শিকার হয়ে বিচার পাননি। পেয়েছেন মাত্র একটি সাধারণ ডায়েরী। বিষয়টি দখলবাজকে উচ্ছেদের জন্য জেলা প্রশাসকের বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন উক্ত বিলের ১৭ জন জমির মালিক।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, আউলিতলার বিলে যে জমিতে বাপ্পী জোর করে বাধ নির্মাণপূর্বক মৎস্যঘের করেছে ওই জমি আউশ ধান কেটে শীতকালীন সবজি লাগান কৃষকরা। আউশ ধান রোপনকৃত অবস্থায় ফলনের মুখে বাদ দিয়ে ফসলের ক্ষতিসাধনপূর্বক মৎস্যঘের করে বহাল তবিয়তে ভোগদখল করছে। এলাকাবাসীর দাবী অপরিকল্পিত মৎস্যঘের, অবৈধ দখলদার, জোতদার, সুদখোর, মাস্তানদের কাছে আজ কৃষক সমাজ নির্যাতিত। পৈতৃক সম্পত্তি অনুমতি ছাড়াই গায়ের জোরে প্রভাবশালী শুধুমাত্র আউলিতলার বিলে নয় তালা উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় এমন মৎস্যঘের গড়ে তুলেছে প্রভাবশালীরা।

এ উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা যেন ননীর পুতুল। প্রত্যেকটি মৎস্যঘের নির্মাণ ও মৎস্যচাষের নির্দিষ্ট নিয়মাবলী মেনে প্রত্যয়ন নিয়ে মৎস্যঘের নির্মাণ করার কথা থাকলেও হাজার হাজার হেক্টর ফসলী জমি আজ অপরিকল্পিত মৎস্যঘেরের কবলে। ফলে সবজিসহ খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ব্যাপক হারে হ্রাস পাচ্ছে। বিষয়টি সরেজমিন পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য গত ২ নভেম্বর ২০২০ তারিখে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

Check Also

ঘাস চাষে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর কাটছাঁট হচ্ছে

ক্রাইমবাতা রিপোট:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে কাটছাঁট হচ্ছে ঘাস চাষে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *