সাতক্ষীরায় আরো তিন নারীর মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৮২ জন

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে তিন নারীর মৃত্যু হয়েছে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এনিয়ে জেলায় ৩১ জুলাই শনিবার পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৮৫ জন। আর উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন কমপক্ষে ৫৪৫ জন।

করোনা উপসর্গে মৃতরা হলেন, সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ উপজেলার মৌতলা গ্রামের রাশেদ গাইনের স্ত্রী হাসিনা খাতুন(৫০), একই উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের মোঃ অবু বাক্কার সিদ্দিকীর স্ত্রী রমিছা খাতুন (৫৭) ও শ্যামনগর উপজেলার আটুলিয়া গ্রামের হামজার আলীর স্ত্রী জাহানারা খাতুন( ৫৫)।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে ও আক্রান্ত হয়ে মৃত ব্যক্তিরা গত ২৪ জুলাই থেকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে বিভিন্ন সময়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩১ জুলাই সকাল ৭ টা ৫১ মিনিট থেকে রাত ১০ টার মধ্যে বিভিন্ন সময়ে তাদের মৃত্যু হয়।

সামেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, ১ আগষ্ট সকাল পর্যন্ত মোট ১৫৬ন রোগী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ১১জন করোনা পজেটিভ ও বাকি ১৪৫ জন সাসপেক্টেড। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ১০ জন ও সুস্থ্য হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ১৮ জন। নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি আছে ৮ জন।

এদিকে সাতক্ষীরায় ফের কমেছে করোনা সংক্রমনের হার। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ৮২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় ২৯৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৬১শতাংশ। এর আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ২৫শতাংশ।

সাতক্ষীরা সদর হাসপতালের মেডিকেল অফিসার ও জেলা করোনা বিষয়ক তথ্য কর্মকর্তা ডাঃ জয়ন্ত কুমার সরকার জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা উপসর্গে মারা গেছে ৩ জন। এসময় ২৯৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৮২জনের করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়। এরমধ্যে সামেক হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাবে ৯১ টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৬ জনের এবং বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কপ্লেক্সে র‌্যাপিড এন্টিজেন কীটে ২০৬ টি নমুনা পরীক্ষা করে আরো ৬৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৬১ শতাংশ।

তিনি আরো বলেন, শনিবার ৩১ জুলাই পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫ হাজার ৬৭৩ জন। জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৪৫২ জন। বর্তমানে জেলায় করোনা রোগী রয়েছে ১ হাজার ১৩৯ জন। এরমধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগীর সংখ্যা ৩১ জন। ভর্তি রোগীর মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ২৪ জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ৭ জন রয়েছেন। বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছেন ১ হাজার ১০৮ জন।

বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৩৯ জন। সরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৫৬ জন। সরকারি ও বেসরকারি মিলে জেলায় মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২০৯ জন। গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় সুস্থ হয়েছেন ৬৪ জন। জেলায় ৩১জুলাই পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে ৮৫ জন এবং উপসর্গে মারা গেছেন আরো ৫৪৫জন।

Check Also

আশাশুনি ইঁদুর মারা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দু’জনের মৃত্যু

আশাশুনি উপজেলার শোভনালীতে ধান ক্ষেতের ইঁদুরের উপদ্রব দমন করতে পেতে রাখা বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদে আটকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।