সাতক্ষীরায় মাত্রাতিরিক্ত মাটি বহনে অবৈধ ট্রাক্টর, হল্লা গাড়ি ও ট্রলির চাকায় নষ্ট হচ্ছে শহর ও গ্রামীণ সড়ক, বাড়ছে ভোগান্তি, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার বিভিন্ন এলাকায় ট্রাক্টর, হল্লা গাড়ি ও ট্রলিতে মাটি বহন করায় শহর ও গ্রামীণ সড়কের রাস্তাঘাট ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ইটভাটা ও পুকুর খননকারী ও পুকুর ভরাটকারীদের অবৈধ ট্রাক্টর-ট্রলি মাত্রাতিরিক্ত মাটি বহনের কারণে শহর ও গ্রামীণ সড়কপথ গুলো ধ্বংসের মূখে পড়েছে। সারা রাত ধরে চলে এলাকায় ট্রাক্টর, হল্লা গাড়ি ও ট্রলিতে মাটি বহন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিভিন্ন স্থানে ফসলি জমি ও বিনেরপোতার বেতনা নদীর পাড় থেকে মাটি কেটে খালি জায়গা ভরাট, পুকুর ভরাট এবং বিভিন্ন ইটভাটায় মাটি সরবরাহ করা হচ্ছে। তাই প্রতিদিন মাটিবোঝাই বহু ট্রলি সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে। ট্রলিগুলোর বেপরোয়া চলাচলে ধুলাবালু উড়ে রাস্তার পাশে থাকা সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ির ভেতরে ঢুকে। কেউ প্রতিবাদ করতে গেলে ওই গাড়ী চালক ও মালিকদের রোষানলে পড়তে হচ্ছে।
সাতক্ষীরার বিনেরপোতা, থানাঘাটা, কদমতলা, দেবনগর ও নলকুড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় রাতে ও দিনে অবৈধ ট্রাক্টর, হল্লা গাড়ি ও হাইড্রোলিক ট্রলির চলাচলে সড়ক বেহাল হয়ে গেছে। এতে সড়কের পিচের রাস্তা ও ইটের সলিং রাস্তার বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে খানাখন্দ। বেহাল সড়কে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। এসব ট্রলিতে সাধারণত মাটি পরিবহন করায় পিচের রাস্তার উপর পড়ছে কাদা মাটি। যেকারণে সৃষ্টি হচ্ছে ধুলার। এছাড়া সড়কে ধুলার কারণে পরিবেশ দূষিত করছে ও ট্রলির শব্দে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন শহর ও ইউনিয়নবাসী। বৃষ্টি হলেই সড়কে তৈরী হবে কাদা। বিগত সময়ে এই কাদার কারণে বিনেরপোতায় সড়কে দুর্ঘটনায় অকালে ঝরে গেছে অনেক প্রাণ। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে সড়কের এমন দুরবস্থায় ভোগান্তি পোহাতে হবে হাজারো মানুষকে। প্রতিদিন এসব এলাকার বিভিন্ন সড়কে রাতে ও দিনে অনেক ট্রলি ও ট্রাক্টর চলাচল করে। এসব ট্রলি সড়কে অতিরিক্ত ওজন নিয়ে চলাচল করে। ফলে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বিভিন্ন সড়ক বেহাল হয়ে পড়েছে।
সাতক্ষীরার ইটভাটা ও পুকুর খননকারী ও পুকুর ভরাটকারীদের অবৈধ ট্রাক্টর-ট্রলি মাত্রাতিরিক্ত মাটি বহনের কারণে শহরের ও গ্রামীণ সড়কপথ গুলো ধ্বংসের মূখে পড়েছে। উপজেলা ও পৌরসভা প্রকৌশল বিভাগ বলছেন, সড়কের অবকাঠামো না জেনে অবৈধ ওই গাড়ির মালিকরা তাদের ইচ্ছেমত মাটি বা ইট পরিবহণ করছেন। যার করণে সংস্কার বা নির্মাণ করার বছর শেষ না হতেই সড়ক গুলো পূর্বের রুপ ধারণ করছে। যে কারণে সরকারের উন্নয়ন আলোর মুখ দেখলেও কিছু সুবিধাভোগীর কারণে ধ্বংশ হচ্ছে উন্নয়ন। সড়ক ধ্বংশকারী মাটি বহনে অবৈধ ট্রাক্টর, হল্লা গাড়ি ও ট্রলি বন্ধ করে এদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী এলাকাবাসী ও সচেতন মহলের।

Check Also

সাতক্ষীরায় ২ দিন ব্যাপী কৃষি ঋণ মেলার উদ্ধোধন

মোঃ সাইদুল হোসেন শহর প্রতিনিধিঃ  সাতক্ষীরায় কৃষি ঋণ মেলায় জনতা ব্যাংকের  প্রথম দিনে কৃষকদের মাঝে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।