সবজির বদলে শিশুকেই ফ্রিজে ভরলেন মা!

মানুষের মুঠোয় ফোন, না ফোনের মুঠোয় মানুষ? অ্যাকচুয়ালে আনন্দে নেই, বরং ভার্চুয়ালে মেতে বিশ্ব। পকেটের কড়ি খরচ করে বেড়াতে গিয়েও ক্যামেরাই চোখ। বেড়াতে গিয়ে ‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ সূর্যোদয় দেখেই আনন্দ নেটিজেনের। হ্যাঁ, নেটিজেন। যেহেতু সিটিজেনের দিন গিয়েছে। ফলে মা-বাবা, স্বামী-স্ত্রী-সন্তান ছাড়াও সংসারে বাঁচা সম্ভব, কিন্তু ফোন ছাড়া সম্ভব নয় কখনই। তারই চূড়ান্ত দৃষ্টান্তের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সম্প্রতি। যেখানে দেখা গিয়েছে, একটানা ফোনালাপে মগ্ন মা সবজির বদলে কোলের সন্তানকেই রেফ্রিজারেটরের ভরলেন!

এটা সত্যি যে আজকের দিনে সোশাল মিডিয়ার একাধিক কার্যকরী ভূমিকা রয়েছে। ফোনের মাধ্যমে যাবতীয় কাজ সারা সম্ভব। প্রয়োজনের পাশাপাশি বিনোদনেরও হাজার সম্ভার রয়েছে স্মার্টফোনে। তারপরেও এই কাণ্ড মেনে নেয়া কঠিন। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, নিজের বাড়িতে এক তরুণী মা ও তার সন্তানকে। শিশুসন্তান মেঝেতে আপন মনে খেলছে। ফোনে কথা বলতে বলতেই তার দেখভাল করছেন তরুণী। এর মধ্যেই ফোন ছেড়ে সবজি কাটতে ব্যস্ত হন মা।

এর পরই ঘটে বিপজ্জনক মজার কাণ্ড। ফোনের নেশায় মশগুল মা সবজির বদলে সন্তানকে রেফ্রিজারেটরের ভিতরে ঢুকিয়ে দেন। খানিক বাদে সেখানে হাজির হন শিশুর পিতা। সন্তান কোথায়, জানতে চান স্ত্রীর কাছে। এতেই টনক নড়ে তরুণীর। দুজনে মিলে গোটা বাড়ি তন্ন তন্ন করে খুঁজতে শুরু করেন। তাতে শিশুটিকে পাওয়ার কথা নয়, পানওনি তারা। শেষ পর্যন্ত ভয়ংকর ঠান্ডা ও শ্বাসকষ্টে শিশুটি মরণকান্না কেঁদে উঠলে রেফ্রিজারেটর থেকে উদ্ধার করা হয় তাকে।

এই ঘটনায় বোঝা যায়, ফোন কীভাবে মানুষের স্বাভাবিক জীবনকে ধ্বংস করছে। যেখানে দায়িত্বজ্ঞান তো বহু দূর, যুক্তিবুদ্ধিরও অস্তিত্ব থাকছে না। ফোন কি মানুষের জন্য এতটাও জরুরি হতে পারে, যেখানে ভুলবশত মা তার সন্তানের মৃত্যুর কারণ হয়ে উঠছেন। এই প্রশ্ন তুলে সচেতনতার বার্তা দিল বর্তমান ভিডিও।

Please follow and like us:

Check Also

কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানকে অব্যাহতি

সনদ বাণিজ্য চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পর এবার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২৩*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।