২৫০ বেড সামেক হাসপাতালে রোগী ভর্তি ৮৮, উপসর্গে মৃত্যু ২

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে জেলায় ২৪ আগষ্ট (মঙ্গলবার) পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৮৭ জন এবং উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৬২৪ জন।

করোনা উপসর্গে মৃত ব্যক্তিরা হলেন, সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের জিল্লুর রহমানের স্ত্রী তহমিনা খাতুন (৫০) ও একই উপজেলার চেড়াঘাট গ্রামের রফিকুল ইসলামের স্ত্রী রাবেয়া খাতুন (৪৭)।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে গত ১০ আগষ্ট ও ২৪ আগষ্ট তারা সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৪ আগষ্ট (মঙ্গলবার) বেলা ১২টা ও বিকাল ৫টার দিকে তারা মারা যান।
২৫০ শয্যা বিশিষ্ঠ সামেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, ২৫ আগষ্ট সকাল পর্যন্ত মোট ৮৮ জন রোগী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

এর মধ্যে ৫ জন করোনা পজেটিভ ও বাকি ৮৩ জন সাসপেক্টেড। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ১০ জন ও সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ১১ জন। নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি আছে ৬ জন।

এদিকে সাতক্ষীরায় ফের কমেছে সংক্রমণের হার। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় ১৮৫ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এর আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ৮দশমিক ৭০ শতাংশ।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন সাফায়াত জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা উপসর্গে মারা গেছে ২ জন। এ সময় ১৮৫ টি নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জনের করোনা সনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এর মধ্যে সামেক হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাবে ৯৬ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬ জনের এবং সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড এন্টিজেন কীটে ৮৯টি নমুনা পরীক্ষা করে আরো ১৬ জনের করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়।

তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার ২৪ আগষ্ট পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৫৬০ জন। জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ৭৪৫ জন। বর্তমানে জেলায় করোনা রোগী রয়েছে ৭২৮ জন। এরমধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগীর সংখ্যা ১১ জন। বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছেন ৭২৮ জন। জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩৭ জন।

জেলায় ২৪ আগষ্ট পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে ৮৭ জন এবং উপসর্গে মারা গেছেন আরো ৬২৪ জন।
সিভিল সার্জন আরো জানান, গত ২৪ অগষ্ট পর্যন্ত জেলায় ৮৩ হাজার ৭১৪ জন এস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। আর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ৭৯ হাজার ৩২৪ জন। এদিকে সেনোফর্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ১ লক্ষ ৭ হাজার ২৯৪ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ২২ হাজার ২ জন।

Check Also

আশাশুনি ইঁদুর মারা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দু’জনের মৃত্যু

আশাশুনি উপজেলার শোভনালীতে ধান ক্ষেতের ইঁদুরের উপদ্রব দমন করতে পেতে রাখা বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদে আটকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

***২০১৩-২০২১*** © ক্রাইমবার্তা ডট কম সকল অধিকার সংরক্ষিত।